ডা শাহাদাত হোসেন

Published:
2021-09-05 11:09:03 BdST

লুকিয়ে চুল খাওয়ার  অসুখ,২ কিশোরীর পেটে মিলল ২ কেজি করে চুল! মনোরোগ বিশেষজ্ঞ যা বলছেন 


বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের মনোরোগ বিভাগের প্রফেসর ডা সুলতানা আলগিন

 


ডা. শাহেদ সেলিম রেজা
_____________________

ঘটনা ১। ঢাকা মেডিকেল। জানুয়ারি ২০১৬।
ঘটনা ২। সাম্প্রতিক ঘটনা। স্পট লখনৌ বলরাম হাসপাতাল।
দুটি ঘটনাতেই ২ কিশোরীর পাকস্থলী থেকে জমাট চুলের একটি কুণ্ডলী অপারেশন থিয়েটারে বের করেন ডাক্তাররা।
সে চুলের ওজন ২ কেজি করে।
কয়েক বছর ধরে চুল খেয়েছে ২ কিশোরী। লুকিয়ে
। সঠিক সময়ে সঠিক ভাবে মানসিক চিকিৎসক এর কাছে গেলে এই কেসগুলো অপারেশন থিয়েটারে যেত না।
এটা বিরল মানসিক রোগ।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের মনোরোগ বিভাগের প্রফেসর ডা সুলতানা আলগিন বলেন, বাংলাদেশে এবং গোটা ভারত বর্ষে মানসিক রোগ অবহেলিত। এই কারণে সঠিক সময়ে সঠিক ভাবে মানসিক রোগী চিকিৎসা পান না। রোগীর পরিবারের লোকজন চিকিৎসা নিতে চান না। নানা মিথ কাজ করে তাদের মধ্যে।
অথচ সঠিক সময়ে সঠিক চিকিৎসা নিলে মেয়ে ২টির বছরের পর বছর এরকম কষ্ট করতে হত না।

 


ঘটনা ১। ঢাকা মেডিকেল। জানুয়ারি ২০১৬।
অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে ১৫ বছর বয়সী এক কিশোরীর পাকস্থলী থেকে জমাট চুলের একটি কুণ্ডলী বের করেছেন চিকিৎসকেরা। দেখতে কিছুটা লম্বাটে এ কুণ্ডলীর ওজন ছিল প্রায় দুই কেজি। এটি পাকস্থলী এবং এর নিচের অংশ (ডিওডেনাম) পর্যন্ত বিস্তৃত ছিল।
ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে সার্জারি বিভাগে এই অস্ত্রোপচার করা হয়। চিকিৎসকেরা বলছেন, খাদ্যদ্রব্য ছাড়াও নানা ধরনের জিনিস খাওয়ার অভ্যাস থাকে কারও কারও। মনস্তাত্ত্বিক কিছু কারণে এমন সমস্যা হয়ে থাকে। তবে দীর্ঘদিন চুল খেতে খেতে পাকস্থলীর মধ্যে জমাট বাঁধা চুল পাওয়ার ঘটনা বাংলাদেশে বিরল।
পরীক্ষা-নিরীক্ষায় পাকস্থলীতে চুলের অস্তিত্ব পাওয়ার পর মেয়েটি চিকিৎসকদের জানিয়েছে, সে নিজের চুল নিজেই খেত। হাসপাতালের মানসিক রোগ বিভাগের চিকিৎসক বলছেন, নিজের মাথার চুল অস্বাভাবিকভাবে তুলে ফেলার এ মানসিক সমস্যার নাম ট্রাইকোটিলোম্যানিয়া।
চিকিৎসকেরা জানান, মেয়েটির বাড়ি গাজীপুরে। অস্ত্রোপচারের ২০ দিন আগে সে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিল। চিকিৎসা নিতে আসার আগে দুই মাস ধরে পেটব্যথা হতো তার। খাবার খেলেই বমি হতো। হাসপাতালে আসার পর চিকিৎসকেরা তার পেটে একটি চাকার অস্তিত্ব শনাক্ত করেন। এরপর পরীক্ষা-নিরীক্ষার মাধ্যমে জানা যায়, পাকস্থলীর ভেতরে চুল জমাট বেঁধে যাওয়ার কারণেই সে এসব সমস্যায় ভুগছে।

 

ঘটনা ২। সাম্প্রতিক ঘটনা। স্পট লখনৌ।

বছর দুয়েক ধরেই ক্রমশ অসুস্থ হয়ে পড়ছিল মেয়েটি। ভেঙে পড়ছিল স্বাস্থ্য। দশ দিন আগে থেকে শুরু হয়েছিল অকথ্য পেটব্যথা। সেই সঙ্গে গ্যাসের সমস্যা। তড়িঘড়ি নিয়ে যাওয়া হয়েছিল ডাক্তারের কাছে। কিন্তু তাঁরা ভাবতেও পারেননি তাঁদের জন্য কোন অবাক কাণ্ড অপেক্ষা করে আছে। উত্তরপ্রদেশের (Uttar Pradesh) ওই কিশোরীর এন্ডোস্কপি করে চুলের সন্ধান পেয়েছিলেন তাঁরা। এরপর অপারেশনের সময় দেখা যায় মেয়েটির পেটের মধ্যে রয়েছে প্রায় কেজি দুয়েক চুল (Hair)!

প্রাথমিক ভাবে চুলের সন্ধান পাওয়ার পরে ডাক্তাররা জিজ্ঞেস করতে থাকেন, কখনও ভুল করে সে চুল মুখে দিয়েছিল কিনা। সিটি স্ক্যান করার পরই পরিষ্কার হয়ে যায় বিষয়টি। পরিষ্কার হয়ে যায়, ১৭ বছরের ওই মেয়েটি আসলে জন্মগত একটি বিরল অসুখের (Rare disease) শিকার। আর সেই অসুখের বশবর্তী হয়েই সে লুকিয়ে লুকিয়ে খেতে শুরু করেছিল নিজের চুল। আর তাতেই শেষ পর্যন্ত ঘটল এই বিপত্তি। শেষ পর্যন্ত অপারেশন টেবিলেই জানা যায় আসল কথা।


লখনউয়ের বলরাম হাসপাতালে কিশোরীর অপারেশন হয়েছে। দেখা গিয়েছে, কিশোরীর পেটের মধ্যে রয়েছে ২০ সেন্টিমিটার দৈর্ঘ্যের চুলের স্তূপ! প্রায় দেড় ঘণ্টা ধরে ওই অপারেশন চলে। অপারেশন করতে গিয়ে ডাক্তাররা দেখেছিলেন, পাকস্থলী থেকে ক্ষুদ্রান্ত্র পর্যন্ত অংশ পুরোপুরি বন্ধ। সেই কারণেই খাবার খেলেও তা ওই পথে যেতে পারছিল না। ফলে প্রায় ৩২ কেজি ওজন কমে যায়!

ডাক্তাররা জানিয়েছেন, চুল যেহেতু হজম হয় না, তাই ওই মেয়েটির পেটের মধ্যে চুলগুলি জমে থাকছিল। বছরের পর বছর ধরে জমতে জমতে ক্রমশই জটিল হয়ে দাঁড়িয়েছিল পরিস্থিতি। অপারেশন ছাড়া আর কোনও উপায় ছিল না। অবশেষে সমস্যা থেকে মুক্তি মিলেছে। কিশোরী এখন সম্পূর্ণ সুস্থ।

আপনার মতামত দিন:


মন জানে এর জনপ্রিয়