Ameen Qudir

Published:
2019-09-22 18:35:37 BdST

বিদায় প্রিয় আইডেন্টিটি কার্ড!


 

 

মেজর ডা.খোশরোজ সামাদ,
ক্লাসিফাইড স্পেশালিষ্ট ইন ফার্মাকোলজি,
আর্মি মেডিকেল কোর।
____________________

 

১।পঁয়তাল্লিশ দিন আগে এই আইডেন্টিটি কার্ড আমার নামে ইস্যু করা হয়। বাংলাদেশ থেকে প্রায় দেড়লক্ষ হজ্জব্রত পালনকারীদের চিকিৎসা সেবা প্রদানকারী মেডিকেল টিমের সদস্য হিসেবে সৌদি আরব এসেছিলাম।
২।আমার জানামতে এবং আশা করি, এই বিশাল কর্মযজ্ঞ অত্যন্ত দক্ষতার সাথে আমাদের টিম পালন করতে পেরেছে। চিকিৎসক হিসেবে নাম লেখানোর পর হতে নানা ধরণের রোগীর সেবা দেবার চেষ্টা করেছি। জাতিসংঘ মিশনের সদস্য হিসেবে কংগোর কালো মানুষ,ওয়েস্টার্ন সাহারায় প্রায় ৫০ টি দেশের শান্তিরক্ষীরসহ স্থানীয় বেদূঈনদের চিকিৎসা সেবাও দেয়ার সৌভাগ্য হয়েছিল। হাজিদেরকে স্বয়ং 'আল্লাহর মেহমান 'বলা হয়। এই পূন্যবানদের চিকিৎসা সেবা দেয়ার আনন্দও আমাকে ছুঁয়ে গেছে।
৩।কিছুক্ষণ পরে দেশের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হব।লাখো পুণ্যাত্মাদের নানাস্মৃতি বিজড়িত এই জনপদের ঐতিহাসিক অনেকগুলি স্থাপনা শুধু অন্ধ ধর্মীয় আবেগ দিয়ে নয় বরং পর্যটকের দৃষ্টিতে নির্মোহভাবে দেখেছি, এইগুলির মাহাত্ম্য অন্তর দিয়ে বুঝবার চেষ্টা করেছি। এই আইডেন্টিটি কার্ডটি তার কার্যকারিতা হারালো। জীবনের চলার পথে,বিভিন্ন বাঁকে কত ধরণের পরিচয়ই না বদল হয়!এটি তো লেমিনেটিং জড়ানো কাগজই মাত্র। কিন্তু,এটি ছেড়ে দিতে অবচেতনে হয়ত দুফোটা নীরব অশ্রু গড়িয়ে পড়ল।
৪।চিকিৎসা সেবা দেয়ার পাশাপাশি ওমরাহ ও হজ্জ করেছি। মা বাবা স্ত্রী সন্তান নিকটজন বন্ধু পাঠক রোগীসহ কষ্টে থাকা পরিচিত সকলের জন্য পৃথক পৃথক ভাবে দোয়া করেছি। দোয়া করেছি বাংলাদেশ নামক 'ব ' দ্বীপের জন্য। এই অভাজনের দোয়ায় অন্তত একজনেরও একটি প্রত্যাশা পূরণ হয়, তবেই এই আইডেন্টিটি কার্ডটি সবার্থকতা পাবে।

 

আপনার মতামত দিন:


ভ্রমণ এর জনপ্রিয়