Ameen Qudir

Published:
2017-02-11 03:59:39 BdST

ডাক্তার বলেই কি বইমেলার সর্বাধিক জনপ্রিয় কথাসাহিত্যিক মিডিয়ায় অবহেলিত?


 

কোন রকম বিজ্ঞাপণ ছাড়াই ডা.রাজীবের বই হাজার হাজার কপি বিক্রি হচ্ছে।
রাজীব এখন ঘুমুবার সময় পর্যন্ত পাচ্ছেন না। ডাক্তারির পেশাগত দায়িত্ব তার কাছে আরাধনা। সেটা শেষ করে গভীর
রাত জেগে বইয়ে অটোগ্রাফ দেন।
সেসব আগাম অর্ডার করা বই পরদিন ক্যুরিয়ারে চলে যায় পাঠকের কাছে।



ডাক্তার প্রতিদিন টিম
_______________________

অামরা বইমেলার শুরুর আগেই পরিষ্কার বলেছিলাম, হুমায়ূন আহমেদের পর ঢাকার বইমেলা অারেকজন প্রকৃত জনপ্রিয় কথাসাহিত্যিককে পেতে চলেছে।
সেকথায় অনেকে তুচ্ছতার অট্টহাসি হেসেছে। অনেকে বিষোদ্গার করেছে।

কিন্তু কথা সাহিত্যিক ডা. রাজীব হোসাইন সরকার কথা রেখেছেন।
তার বই অচিন পাখি বাংলা একাডেমীর বইমেলার এ পর্যন্ত সর্বাধিক বিক্রি হওয়া বই। মিডিয়ার কথিত ভাষায় যাকে বলে, হটকেক।

কিন্তু ঢাকা সহ দেশের কোন মিডিয়ায় ( একমাত্র ডাক্তার প্রতিদিন বাদে ) ডা. রাজীবকে নিয়ে কি এক লাইন লেখা দেখেছেন ? তার বই অচিন পাখির কভারের ছবি দেখেছেন কি ?

কেন এই সর্বাধিক বিক্রি হওয়া বইয়ের খবর তথাকথিত মিডিয়া দেয় না !

ডা. রাজীবের কি অপরাধ ?
তিনি অচ্ছুৎ কেন।
তার অপরাধ কি যে , তিনি পেশায় মানবসেবী ডাক্তার। যাদের চরম ঘৃণার বিষবাষ্পে মিডিয়া কসাই বলে।
তার অপরাধ,
রাজীব মিডিয়ার তল্পিবাহক নন!
মিডিয়ার দরজায় বই নিয়ে ধর্না দেন না!
মিডিয়ার দলবাজি, গ্রুপবাজি করেন না।
মিডিয়ার কাছে বই ও মূল্যবান উপহার সামগ্রী নিয়ে ভিখারির মত হাজির হন না ?

মিডিয়ার এই অবহেলায় রাজীবের কি অাসে যায় !
এত অবহেলা , দলবাজি , গ্রুপবাজি করে কি ডা. রাজীবের অগ্রযাত্রাকে রোখা গেছে।

কোন রকম বিজ্ঞাপণ ছাড়াই তার বই হাজার হাজার কপি বিক্রি হচ্ছে।


অাবারও বলি, ডা. রাজীবের সঙ্গে ডাক্তার প্রতিদিন টিমের কারও দূরতম পরিচয় নেই। তার বই কোন স্টলে বিক্রি হয়, তাও লিখি নি। তারপরও তার ভক্ত পাঠকরা তার ওপর লেখা ডাক্তার প্রতিদিনের রিপোর্ট ৫ হাজারের বেশী শেয়ার করেছেন। লাখো পাঠক পড়েছেন । স্টল খুঁজে প্রিয় লেখকের বই যোগাড় করছেন।

অবহেলা করে , গ্রুপবাজি করে কারও অগ্রযাত্রা আটকানো যায় না।


এই লেখাও মিডিয়ার কথিত ভাষায় , হাজার হাজার শেয়ার করে পাঠকরা দলবাজগ্রুপবাজ মিডিয়ার অবহেলার সমুচিত জবাব দেবেন আশা করা যায়।

আমরা বিশ্বের সর্বাধিক জনপ্রিয় স্যোশাল মিডিয়ার ভাষা পড়ে রাজীব সম্পর্কে অাগাম বলে ছিলাম। সেটা সত্য প্রমানিত হয়েছে।

রাজীব পেশায় ডাক্তার বলেই ডাক্তার প্রতিদিন তার বিষয়ে আগ্রহ বোধ করে। আমরা পেশাভিত্তিক মিডিয়া হিসেবে আমাদের দায়িত্ব পালন করেছি মাত্র।

কোন রকম বিজ্ঞাপণ ছাড়াই তার বই হাজার হাজার কপি বিক্রি হচ্ছে।
রাজীব এখন ঘুমুবার সময় পর্যন্ত পাচ্ছেন না। ডাক্তারির পেশাগত দায়িত্ব তার কাছে আরাধনা। সেটা শেষ করে গভীর
রাত জেগে বইয়ে অটোগ্রাফ দেন।
সেসব আগাম বই পরদিন ক্যুরিয়ারে চলে যায় পাঠকের কাছে।

এ নিয়ে স্বয়ং রাজীব বলছেন _____________

""রাত আড়াইটা।
ব্যস্ত বইমেলা শেষে অটোগ্রাফসহ অনলাইন অর্ডার শেষ করতে পারি নি এখনো। জমেছে বইয়ের স্তুপ।

যে গভীর মমতায় আমার মত অভাজনকে আপনারা বেঁধেছেন, এই মমতা ফিরে আসুক আপনাদের জীবনে.... কোন না কোন অপ্রত্যাশিত পথে..।


নিজের বই নিয়ে প্রথম বইমেলার দিন, আমাকে হাত ভরিয়ে দিয়েছে।
ধন্যবাদ সবাইকে....
ধন্যবাদ অচিন পাখি । """

আপনার মতামত দিন:


প্রিয় মুখ এর জনপ্রিয়