Ameen Qudir

Published:
2017-02-04 05:25:55 BdST

বাংলাদেশের লোভী ডাক্তাররা যখন বিশ্বময়


ডা. অধ্যাপক এ বি এম বাশার আতিকুজ্জামান, মার্কিন প্রবাসী বাঙালী গৌরব। সেরা ডাক্তারদের একজন।সিএমসি ২৮। নমুনা ছবি।

 

___________________________

ডা. নাসিমুন নাহার


__________________________________

ডা.সজল ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ থেকে এমবিবিএস পাশ করে আর্মি মেডিক্যাল কোরে জয়েন করে দেশ ও জনগণের সেবা করে যাচ্ছেন আজ পনের বছর ধরে।বর্তমানে তার পোস্টিং একটা মিশনে ইথিওপিয়াতে।গতকাল থেকে ঘুরে ফিরে তার মাথায় ঘুরছে একটা শব্দ -- লোভী ডাক্তার !!!


ইন্টার্নশীপ শেষ করে পোস্ট গ্রাজুয়েশন কোর্সে ভর্তির জন্য ফরম কেনার টাকা জমানোর জন্য ফরিদপুর শহরের বিভিন্ন ক্লিনিকে ঘন্টা হিসেবে ডিউটি ডাক্তারের খেপ মারা চাকরির (!) সেই অসহনীয় অপমানজনক দিনগুলো বারবার চোখের সামনে ভেসে উঠছে তার।নিজের ঘাম রক্ত পানি করে ঘন্টার হিসেবে একটা একটা করে টাকা তার মজুরি ।


ডা.টুসী কর্মরত আছেন ওমানে আজ তিন বছর ধরে।বাংলাদেশ মেডিকেল কলেজ থেকে পাশ করে মেডিসিনে এক বছর অনারারি ট্রেনিং করে ওমানে পালিয়ে বেঁচে গেছে যেন।এখনও বিনা বেতনের মোটামুটি সপ্তাহের প্রতি দিনের বেহিসাবী সেই অমানুষিক ডিউটির এক বছরের কথা ভাবলেও ভয়াবহ দুঃস্বপ্ন বলে মনে হয় তার।
সে এবং তার বন্ধু এবং তার সিনিয়র জুনিয়ররা কি লোভে পড়ে এ পেশায় আছে ? না আছে সম্মান-না সম্মানী।

এই প্রশ্নের কোন সদুত্তর খুঁজে পাচ্ছেন না তিনি।

 

ডা.অনিন্দ্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ থেকে এবং তার ওয়াইফ ডা.মম কমিউনিটি বেজড মেডিকেল কলেজ থেকে এমবিবিএস পাশ করেন।ইন্টার্নশীপের সময় বিয়ে করে তারা।এরপর একসাথে বিসিএসও হয়ে যায় তাদের।অতঃপর দুজনের দেশের দুপ্রান্তে পোস্টিং হয়।বড় কোন মামা চাচা না থাকায় কিছুতেই তারা এক জেলায় কিংবা পাশাপাশি কোন জেলাতেও পোস্টিং নিতে পারছিল না। মাস দুই তিনেক পর পর তাদের দেখা হতো !!! এরই মধ্যে ডা.মমর কর্মস্হলে অপ্রীতিকর ঘটনার জের ধরে তাকে পরতে হয় হুমকির মুখে।অতঃপর অসহনীয় যন্ত্রণা নিয়ে অপমানের চাকরিতে ইস্তফা দিয়ে আজ আট বছর ধরে তারা অস্ট্রেলিয়াতে AMC পরীক্ষার বৈতরণী সফলতার সাথে পার হয়ে সম্মানের সাথে মাথা উঁচু করে বেঁচে আছে।

 

কাল যখন মম ফেসবুকে ঢুকে দেখল 'লোভী ডাক্তার' কাহিনী তখন অনিন্দ্যকে ডেকে দেখাল।প্ল্যাটফর্ম, ডাক্তার প্রতিদিন.কম, ক্যাফেটেরিয়া সহ অন্যসব অনলাইন পোর্টাল এবং বাংলাদেশী ডাক্তারদের গ্রুপগুলো থেকে নিশ্চিত হলো খবরের সত্যতা নিয়ে।হালকা হেসে অনিন্দ্য বলল-- হুমম আমরা লোভী বলেই তো ডিউটি টাইমে হাসপাতাল ছেড়ে চেয়ারম্যানের আত্মীয়কে বাসায় গিয়ে অতিরিক্ত ফী দিয়ে রোগী দেখার অফার রিজেক্ট করে আজ দেশ ছাড়া।

-------- "লোভী ডাক্তার" শুধু বাংলাদেশে বসবাসকারী আমি/তুমি/আপনি ই না।বরং সরকারি বেসরকারি বিভিন্ন মেডিকেল কলেজ থেকে পাশ করে মধ্যপ্রাচ্যসহ অস্ট্রেলিয়া, কানাডা, আমেরিকা, ইংল্যান্ড সহ সারা বিশ্বে সসম্মানে কর্মরত যত বাংলাদেশী ডাক্তার আছেন সব্বাই !
.
.
____________________________

 

লেখক ডা. নাসিমুন নাহার । দেশের জনপ্রিয় কলাম লেখক।

আপনার মতামত দিন:


প্রিয় মুখ এর জনপ্রিয়