Ameen Qudir

Published:
2017-01-28 04:05:37 BdST

ডাক্তারদেরই উচিত সাফল্যের গল্পগুলো প্রচার করা


 

জাহিদুর রহমান
_________________________


গত বছর ৩ অক্টোবর সিলেট এমসি কলেজ ক্যাম্পাসে নরপশু বদরুল খাদিজাকে যেভাবে কুপিয়েছিল, কল্পনাও করিনি মেয়েটা বেঁচে থাকবে।

এমন কি স্কয়ার হাসপাতালের ডাক্তাররাও প্রথমে বাঁচার সম্ভাবনা মাত্র ৫% বলেছিলেন। খাদিজার মাথায় ও হাতে তিন দফায় অপারেশন করা হয়েছিল, লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়েছিল ১০ দিন।

সবার ধারনা ভুল প্রমাণ করে ওর শারীরিক অবস্থার উন্নতি হয়। সুস্থ হয়ে ওঠার পর খাদিজাকে ফিজিওথেরাপি দেবার জন্য স্কয়ার হাসপাতাল থেকে সাভারের সিআরপিতে স্থানান্তর করা হয়। বাম হাতে সামান্য ব্যাথা ছাড়া খাদিজা এখন পুরোপুরি সুস্থ, যার কৃতিত্ব শুধুমাত্র স্কয়ার হাসপাতালের ডাক্তারদের।

বাংলাদেশে এই মূহূর্তে ডাক্তার-রুগির পারস্পরিক সম্পর্ক তিক্ততম পর্যায়ে। এই অবস্থা থেকে বের হয়ে আসা কঠিন তবে অসম্ভব না। ডাক্তারদের নিজেদের স্বার্থেই উচিত এরকম সাফল্যের গল্পগুলো বেশি করে প্রচার করা।

দিনরাত শুধু মানুষের অজ্ঞতা আর মিডিয়ার একচোখা নীতিকে দায়ী না করে আসুন খাদিজার কথা বলি, বাজানদারের কথা বলি, মেয়ের পেটে থাকা অবস্থায় গুলিবিদ্ধ হবার পরও বেঁচে যাওয়া মাগুরার সেই শিশুটার কথা বলি।
___________________________
লেখক জাহিদুর রহমান । জনসেবী কলামিস্ট।

আপনার মতামত দিন:


প্রিয় মুখ এর জনপ্রিয়