Ameen Qudir

Published:
2020-01-06 01:01:09 BdST

আয়ারল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী একজন ডাক্তার


 

বার্তা সংস্থা
____________________

ভুটান, মালয়েশিয়ার পর ইউরোপের রাষ্ট্র আয়ারল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রীর গুরুভার সামলাচ্ছেন একজন ডাক্তার। উপমহাদেশের রক্তর উত্তরাধিকারী হলেও শাসন করছেন আয়ারল্যান্ড। আইরিশদের মাঝে অসম্ভব জনপ্রিয় তিনি।


হতে পারেন তিনি আয়ারল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী কিন্তু তাঁর নাড়ির টান রয়েছে ভারতবর্ষে। পদমর্যাদার আসনে বসলে অনেকেই ভুলে যান তাঁর অতীতকে। অনেকে ভুলে গেলেও আয়ারল্যান্ডের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী তা ভোলেননি। আয়ারল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী লিও ভারাদকর সপরিবারে ঘুরতে এলেন তাঁর জন্মস্থান মহারাষ্ট্রের সিন্ধুদুর্গ জেলার মালভান তহশিলের ভারাদ গ্রামে।

ভারত সফরে তিনি এসেছিলেন তাঁর একান্ত ব্যক্তিগত কারণে। তাঁর কাজের মাঝেও সময় বের করে গ্রামের বাড়িতে ঘুরতে এসেছেন, এতেই আপ্লুত গ্রামবাসীরা। মুম্বই থেকে প্রায় ৫০০ কিমি দূরে অবস্থিত লিও ভারাদকরের গ্রাম।

গ্রামের মানুষ ভারতীয় বংশোদ্ভূত আয়ারল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রীকে সম্মান জানাতে গ্রামের মন্দিরে যান। একটি সাক্ষাত্‍কারে লিও ভারাদকর জানিয়েছেন, “মা-বাবা, বোনরা এবং তাঁদের স্বামীদের সঙ্গে আমি ও আমার স্ত্রী এসেছি। নাতি-নাতনিরাও এসেছে। এক দারুণ পারিবারিক সময় কাটাতে পারছি আমরা সকলে। এখন আমার ঠাকুরদার বাড়িতে একসঙ্গে তিন পুরুষ রয়েছি।”
বহুদিন পর নিজের গ্রামের বাড়িতে উৎফুল্ল লিও ভারাদকর। ১৯৬০ সালে লিও ভারাদকরের বাবা যুক্তরাজ্যে পাড়ি দেন। তাঁর বাবা পেশায় একজন চিকিৎসক ছিলেন এবং মা ছিলেন একজন আইরিশ নার্স। লিও ভারাদকার নিজেও একজন নামজাদা চিকিৎসক।২০১৭ সালে ভারতীয় বংশোদ্ভূত লিও ভারাদকর আয়ারল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী হিসাবে শপথগ্রহণ করেন। মাত্র ২২ বছর বয়সে তিনি রাজনীতিতে যোগ দেন। আর্থ-সামাজিক নানা বিষয়ে তার দৃষ্টিভঙ্গির কারণে ভারাদকারকে একজন মধ্য-ডান রাজনীতিবিদ হিসাবেই গণ্য করা হয়।

আয়ারল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী হবার আগে তিনি পরিবহন, পর্যটন ও ক্রীড়া, স্বাস্থ্য এবং সমাজকল্যাণ বিষয়ক মন্ত্রী হিসাবে গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি।

বলা হয় নাড়ির টান নাকি ছেঁড়া যায় না। সেই নাড়ির টানকে তিনিও অস্বীকার করতে পারেননি। আর সেই কারণেই আয়ারল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী ঘুরে এলেন তাঁর গ্রামের বাড়িতে। তবে আবার সরকারি সফরে নিজের রাজ্য তথা গ্রামে আসার ইচ্ছার কথাও জানিয়েছেন লিও ভারাদকর।

সংবাদ সূত্র : কলকাতার মিডিয়া

আপনার মতামত দিন:


প্রিয় মুখ এর জনপ্রিয়