Ameen Qudir

Published:
2019-04-29 19:53:40 BdST

জীবনে চলার পথে'র পাতায় পাতায় হেদায়েত স্যার লিখেছেন জীবনের জয়গান এবং তাঁর অমর জীবন


 


ডেস্ক
_____________________________

বাংলাদেশের মনোরোগ চিকিৎসার জীবন্ত কিংবদন্তি মনোরোগ বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক ডা. হেদায়েতুল ইসলাম । 'জীবনে চলার পথে'র পাতায় পাতায় হেদায়েত স্যার লিখেছেন জীবনের জয়গান এবং তাঁর অমর জীবন। 'জীবনে চলার পথে' হল স্যারের অমর জীবন কথা। তারই আত্মজীবনী।
আত্নজীবনী গ্রন্থ “জীবনে চলার পথে” প্রকাশনা উপলক্ষে ২৭ এপ্রিল বাংলা একাডেমীর শামসুর রাহমান হলে মনোজ্ঞ এক সম্মাননা সভার আয়োজন হয়।
আসর ছিল আলোকদীপ্ত। বর্তমান বাংলাদেশের আলোকময় ব্যক্তিত্ব এই অনন্য অনুষ্ঠানে অংশ নেন।
শ্রোতা , শুখানুধ্যায়ী ও বিশিষ্ট জনে অনুষ্ঠান স্থল ছিল পরিপূর্ণ।
বাংলা একাডেমীর প্রাক্তন মহাপরিচালক শামসুজ্জামান খান এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ‍ছিলেন জাতীয় অধ্যাপক ড. আনিসুজ্জামান।

 

প্রধান অতিথি জাতীয় অধ্যাপক ড. আনিসুজ্জামান বলেন, জীবনে চলার পথে বইটিতে বাংলাদেশের ইতিহাসের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সময়ের চিত্র ফুটে উঠেছে। মানুষের সেবা দানের কাজে অধ্যাপক ডা. হেদায়েতুল ইসলাম বাংলাদেশের অগ্রনী জন। তার বইটি জীবন্ত ইতিহাস ও সময়ের অতি দরকারি দলিল।
অধ্যাপক শামসুজ্জামান খান বলেন,
বইটি পূর্ব বাংলার মুসলমানদের সামজিক জীবনের প্রামাণ্য দলিল।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের সাবেক পরিচালক অধ্যাপক নজরুল ইসলাম, বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সাইকিয়াট্রিস্ট (বিএপি) এর সভাপতি অধ্যাপক ডা. ওয়াজিউল আলম চৌধুরী, জাতীয় মানসিক স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটের পরিচালক ও জনপ্রিয় কথাসাহিত্যিক অধ্যাপক ডা. মোহিত কামাল এবং বঙ্গবন্ধু মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের মনোরোগবিদ্যা বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. সালাহ্উদ্দিন কাউসার বিপ্লব।
শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন প্রকাশনী সংস্থা ‘একাডেমিক প্রেস এন্ড পাবলির্শাস লাইব্রেরির ব্যবস্থাপনা পরিচালক আহমদ সারওয়ার দৌলা।

এ আয়োজনে সবাই হেদায়েত স্যারের অনন্য জীবন নিয়ে আলোচনা করেন। অধ্যাপক নজরুল ইসলাম বলেন, তাঁর বড় ভাই অধ্যাপক ডা. হেদায়েতুল ইসলাম এর জীবন অনেক বৈচিত্রপূর্ণ এবং র্দীঘ। বইটি স্বল্পর্দৈঘ্য হলেও এটি পাঠ করলে লেখকের জীবনের অনেক ঘটনা জানা যাবে। তিনি মুক্তিযুদ্ধের সময় পাবনা মানসিক হাসপাতালে যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধাদের চিকিৎসা করা সহ জাতীয় মানসিক স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউট প্রতিষ্ঠা এবং আরো চিকিৎসা কেন্দ্র ও দাতা প্রতিষ্ঠান স্থাপন করেছেন।

অধ্যাপক ডা. ওয়াজিউল আলম চৌধুরী বলেন, কুসংস্কারাচ্ছন্ন তৃতীয় বিশ্বের একটি দেশ বাংলাদেশ। এই রাষ্ট্র ও পশ্চাদপদ মানসিক স্বাস্থ্য সেবা দেওয়ার মত কঠিন কাজ করেছেন অধ্যাপক ডা. হেদায়েতুল ইসলাম। মনোরোগ চিকিৎসায় সংশ্লিষ্ট সকলের কাছে অনুকরণীয় আর্দশ হিসেবে অধিষ্ঠিত হয়েছেন তিনি । জীবনে চলার পথে-বইটি সমগ্র চিকিৎসক সমাজের জন্য একটি প্রামাণ্য দলিল।

কথাসাহিত্যিক অধ্যাপক ডা. মোহিত কামাল বলেন, ডা. হেদায়েতুল ইসলাম কে আলোর পথের যাত্রী । তিনি আমাদের মনোএরাগ বিদ্যা ও চিকিৎসার আলোর উৎস। আমরা সেই আলোকিত পথের অনুসারী। তিনি দিশারী।

অধ্যাপক ডা. সালাহ্উদ্দিন কাউসার বিপ্লব বলেন, আমরা হেদায়েত স্যারকে নানা অনুকরণীয় রুপে চিনলেও এই বইটি তাকে আরও নতুনভাবে চিনতে সাহায্য করবে। বাংলাদেশে সাইকয়াট্রিস্ট সংকটে দূরীকরণে নিজের পরিবারে আরো চারজন সাইকয়াট্রিস্ট নিয়ে অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করছেন তিনি। সাইকয়াট্রির সকল ছাত্রছাত্রীদের বইটি পড়া উচিত ।

আপনার মতামত দিন:


প্রিয় মুখ এর জনপ্রিয়