Ameen Qudir

Published:
2019-03-24 20:59:53 BdST

কৃষকের মেয়ে যেভাবে আইএমএফ’র শীর্ষ অর্থনীতিবিদ ও হার্ভার্ডের অধ্যাপক


 


ডেস্ক /সংবাদ সংস্থা
______________________

বাবা কৃষিকাজ করে জীবিকা নির্বাহ করেন আর মা গৃহিনী। অথচ এই মেয়েটিই কিনা হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপিকা। ভাবা যায়! শুধু তাই নয়। কলকাতায় জন্ম নেয়া মেয়ে গীতা গোপীনাথ  দায়িত্ব নিয়েছেন আইএমএফ’র প্রধান অর্থনীতিবিদ হিসেবে।

৪৬ বছর বয়সি গীতা গোপীনাথ পড়াশুনা শেষ করেছেন দিল্লি এবং যুক্তরাষ্ট্রে। ২০০১ সালে যুক্তরাষ্ট্রের প্রিন্সটন ইউনিভার্সিটি থেকে তিনি অর্থনীতিতে পিএইচডি করেন। হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে যোগ দেওয়ার ৫ বছর পর ২০১০ সালে সেখানে চুক্তিভিত্তিক প্রফেসর হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।
জন্ম ৮ই ডিসেম্বর ১৯৭ ১। তিনি হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে জন জ্বানস্ট্রা আন্তর্জাতিক গবেষণা ও অর্থনীতির অধ্যাপক। এর সঙ্গে তিনি জাতীয় ব্যুরো অফ ইকোনমিক রিসার্চ এ আন্তর্জাতিক অর্থনীতি অ্যান্ড ব্যাষ্টিক অর্থনীতি প্রোগ্রামের সহ-পরিচালক এবং কেরালার মুখ্যমন্ত্রীর অর্থনৈতিক উপদেষ্টা হিসেবে কাজ করেছেন।

গোপীনাথ অক্টোবর, ২০১৮ সালে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের প্রধান অর্থনীতিবিদ নিযুক্ত হয়েছেন।তিনি গবেষণা করেছেন মূলতঃ আন্তর্জাতিক অর্থ ও ব্যাষ্টিক অর্থনীতি নিয়ে।

গোপীনাথ ভারতের কলকাতায় জন্মেছেন। পরে তাঁর স্কুলজীবন কেটেছে মহীশূরের নির্মলা কনভেন্ট স্কুলে। তিনি টি ভি গোপীনাথ এবং ভিসি বিজয়লক্ষ্মীর দুই কন্যার মধ্যে ছোট। তাঁর বাবা এবং মা দুজনেই কেরালার কন্নুরের মানুষ। তাঁর মা, ভিসি বিজয়লক্ষ্মী, ভেদিয়ারা চন্দ্রোথু পরিবারের মেয়ে, যেটি থিরুভিতামকুর/কোলাথিরির একটি উপ-শাখা। এটি মূলতঃ এসেছে তিরুবনন্তপুরম জেলা এবং কন্নুর জেলা থেকে। এ. কে. গোপালনের সঙ্গে তাঁর বাবা টি ভি গোপীনাথ সম্পর্কযুক্ত।

তিনি দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ের লেডি শ্রী রাম কলেজ ফর উইমেন থেকে ১৯৯২ সালে বি.এ. ডিগ্রী এবং ১৯৯৪ সালে দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়েরই দিল্লি স্কুল অফ ইকোনমিক্স থেকে অর্থনীতিতে এম.এ. ডিগ্রী লাভ করেন। তিনি এছাড়াও ১৯৯৬ সালে ওয়াশিংটন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এম.এ. ডিগ্রী লাভ করেন। ২০০১ সালে তিনি প্রিন্সটন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পিএইচ.ডি. অর্জন করেন। প্রিন্সটন-এ ডক্টরেট গবেষণাকালে তিনি প্রিন্সটন এর উড্রো উইলসন ফেলোশিপ রিসার্চ পুরস্কার পেয়েছিলেন।

বর্তমান নিয়োগ এবং কাজ
২০১৮ সালের অক্টোবরে গীতা গোপীনাথ আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের প্রধান অর্থনীতিবিদ নিযুক্ত হন। গীতা গোপীনাথ হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে জন জ্বানস্ট্রা আন্তর্জাতিক গবেষণা ও অর্থনীতির অধ্যাপক। তিনি জাতীয় ব্যুরো অফ ইকোনমিক রিসার্চএ আন্তর্জাতিক অর্থনীতি এবং ব্যাষ্টিক অর্থনীতি প্রোগ্রামের সহ-পরিচালক, ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংক অফ বোস্টনে পরিদর্শী অধ্যাপক, ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংক অফ নিউ ইয়র্কের অর্থনৈতিক পরামর্শদাতা প্যানেলের সদস্য, ভারতের কেরালার মুখ্যমন্ত্রীর অর্থনৈতিক উপদেষ্টা, আমেরিকান ইকোনমিক রিভিউ এর সহ-সম্পাদক, বর্তমান হ্যান্ডবুক অফ ইন্টারন্যাশনাল ইকোনমিক্স এর সহ সম্পাদক, এবং রিভিউ অফ ইকোনমিক স্টাডিজ এর সম্পাদক।

২০১৮ সালের অক্টোবরে, আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আই এম এফ) পরিচালন অধিকর্তা ক্রিস্টিন লাগার্ড গীতা গোপীনাথকে আইএমএফের গবেষণা বিভাগের অর্থনৈতিক পরামর্শদাতা ও পরিচালক নিযুক্ত করেন। ২০১৮ সালে তিনি আমেরিকান একাডেমি অব আর্টস অ্যান্ড সায়েন্সেস এর একজন সহকর্মী নির্বাচিত হন। ২০১৭ সালে তিনি, ওয়াশিংটন বিশ্ববিদ্যালয়ের বিশিষ্ট প্রাক্তন শিক্ষার্থী পুরস্কার পান। ২০১৪ সালে তিনি আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের ৪৫ জন শীর্ষ অর্থনীতিবিদদের মধ্যে ২৫ তম হিসাবে নির্বাচিত হন এবং ২০১১ সালে ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরাম থেকে বিশ্বের তরুণ নেতা নির্বাচিত হন।

গোপীনাথের স্বামী ইকবাল সিং ধালিওয়াল ম্যাসাচুসেট্‌স ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজির আব্দুল লতিফ জামিল পভার্টি অ্যাকশান ল্যাব এর অর্থনীতি বিভাগের নির্বাহী পরিচালক। রোহিল নামে তাঁদের একটি ছেলে আছে।


তিনিই প্রথম নারী হিসাবে দায়িত্বে নিযুক্ত হলেন সে তো পু রানা খবর। এ পদে ভারতীয়দের মধ্য দ্বিতীয়। তার নিয়োগের ফলে আইএমএফ, বিশ্বব্যাংক ও অর্গানাইজেশন ফর কো-অপারেশন ডেভেলপমেন্ট এই তিন প্রতিষ্ঠানেরই মুখ্য অর্থনীতিবিদ হচ্ছেন নারী। গীতা গোপীনাথ ২০১৪ সালে বিশ্বের ৪৫ বছরের কম বয়সী ২৫ জন প্রথম সারির অর্থনীতিবিদ হিসেবে আইএমএফ’র স্বীকৃতি পান।

 

আপনার মতামত দিন:


প্রিয় মুখ এর জনপ্রিয়