Ameen Qudir

Published:
2018-09-07 07:42:17 BdST

আমার প্রিয় শিক্ষকবৃন্দ : সবার কাছে চিরকাল ঋণী থাকব


 

 

ডা. মাকসুদা খানম অনু
______________________________

 

"Love to all my students on happy teachers day" প্রফেসর শুভাগত চৌধুরী স্যার তাঁর সব ছাত্রছাত্রীদেরকে ভালবাসা জানিয়েছেন ।
আমি স্যারের সরাসরি ছাত্র নই তবে আমি স্যারের কাছে ফিজিওলজি পরীক্ষা দিয়েছি ।স্যার শেবাচিমে External হয়ে গিয়েছিলেন ।স্যার সম্পর্কে শুনেছি স্যার শুধু কঠিন কঠিন Biochemistry ধরেন।পরীক্ষা দিতে গিয়ে স্যারের মিষ্টি ব্যবহার এবং খুব সহজ প্রশ্ন দিয়ে পরীক্ষা শুরু করার পর আমার ভয় কেটে গিয়েছিল।
আজও স্যারের প্রতিটা লেখা আমি মনোযোগ দিয়ে পড়ি।মেডিক্যাল সায়েন্সেরও যে আলাদা সাহিত্য আছে তা স্যারের লেখা না পড়লে বোঝা যাবে না ।স্যার মানুষের কথা ভাবেন।স্যারের লেখা মানুষকে শিখায় স্বাস্থ্য সচেতন হতে ।স্যার আপনার মতো শিক্ষক শুধু আমাদেরকে জ্ঞান ই দান করেন না।মানবিক হতে শিখিয়েছেন।মানুষকে ভালবাসতে শিখিয়েছেন।আপনাকে আমার সশ্রদ্ধ সালাম ।।

 

সেই প্রাইমারি হতে যত শিক্ষকের কাছে আমরা পড়েছি
সকল শিক্ষকদের কাছে আমরা সবাই ঋণী।এ ঋণ কোনও দিনও শোধ হওয়ার নয়।কোনও প্রতিদান কোনওদিনই দেয়া যায় না ।
আমার কালাইয়া প্রাইমারি স্কুলের হাফিজ স্যার আজও আমার মনের গহীনে আছেন ।আমার সুবল স্যার আমাকে শুধু পড়াশোনা শেখাননি।কবিতা আবৃত্তি, রচনা প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণসহ সব extra curricular এ অংশগ্রহণ আমি স্যারের কাছ হতে শিখেছি ।আমার ধীরেন স্যার আমার হৃদয়ের গহীনে থেকে এখনও আমাকে অনুপ্রেরণা দান করেন ।আমার শমসের স্যারের সেই উক্তি -তুমি পারবে আমাকেসহ স্যারের অগণিত ছাত্রছাত্রীদেরকে আত্মপ্রত্যয়ী হতে শিখিয়েছে ।স্যার যখন আজ বার্ধক্যজনিত অসুস্থতার
কারণে আমাকে চিনতে পারেন না আমি কষ্ট পাই।
আমার আক্তার আপা,রাজিয়া আপা শিউলি আপা,
পারু আপা ,বাণীদি,শিবাণীদি,ঝর্নাদি,বিরাজবাবু স্যার সহ আরও যত স্যার আপারা ছিলেন কার অবদান কে আমি কম করে দেখব?
কলেজের জয়নাল স্যার, বুলবুল স্যার, আলাউদ্দিন চোকদার স্যার, বোটানির মান্নান স্যার সহ সব স্যারের জ্ঞানের আলোতে আলোকিত আমরা ।

মেডিক্যাল কলেজের প্রিন্সিপাল হাবিবুর রহমান আনসারি স্যার প্রথম ক্লাশে বলেছিলেন -আমি কাউকে ফেল করালে খুব কষ্ট পাই।তাই তোমাদের কে আমার যেন ফেল করাতে না হয়।মালেক স্যারের ভালবাসা শেবাচিমের তখনকার প্রতিটা ছাত্রছাত্রীই অনুভব করেছে ।পরীক্ষক হিসেবে মেডিসিনের করিম মোল্লা স্যার ছিলেন একজন হৃদয়বান পরীক্ষক।রশিদ ই মাহবুব স্যারের ভালবাসা সবসময় ছিল তাঁর ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য ।প্রফেসর আমিনুল ইসলাম স্যার কে খুব অল্প কয়েকদিন পেয়েছি।স্যারের ব্যবহার ছিল বড় ই মধুর ।সব স্যারের কথা বলে শেষ করা যাবে না ।প্রফেসর আনোয়ার উল আজিম স্যারের ভালবাসা আজও মনে হয় ।সারাজীবনের সব শিক্ষকরা আমাদের চিরকালের পথ প্রর্দশক।শুধু ই গ্রহণ করেছি।
কবি গুরুর সেই কথা -গ্রহণ করেছ যতো ঋণী করেছ আমায়।
আমাদের সারা জীবনের সব শিক্ষকদেরকাছে আমরা
চিরকাল ঋণীই থাকতে চাই ।সব শিক্ষকদেরকে আবার ও কোটি কোটি সালাম ।

________________________________

 

ডা. মাকসুদা খানম অনু । কবি ও সুলেখক।

আপনার মতামত দিন:


প্রিয় মুখ এর জনপ্রিয়