Ameen Qudir

Published:
2016-11-20 10:45:04 BdST

হুইল চেয়ারে লাকী আখন্দের গান ও কান্না


ডা. অঞ্জলি
______________________

লাকী আখন্দকে দেখে চোখের পানি আর ধরে রাখতে পারি নি।
আমাদের শৈশবের, যৌবনের গানের স্বপ্ন পুরুষ।
আমাকে ডেকোনা , ফেরানো যাবে না--ওই নীল যমুনা--কি অনিন্দ সুন্দর গানের বানী। কী স্বর্গীয় সুর।
তার ভাই হ্যাপি আখন্দকে যখন দেখেছি, মনে হত , বিশ্বসঙ্গীতের কোন লিজেন্ডকে দেখছি।
লাকী আখন্দকে প্রথম দেখেছিলাম ঢাকা মেডিকেলে গানের অনুষ্ঠানে।
মনে হয়েছিল, যেন কোন গানের দেবতার মুখ দেখছি। গান শুনছি।
১৯ নভেম্বর আবার দেখলাম গানদেবতাকে। দেবতা এখন আর হাঁটতে পারেন না।
কিন্তু দেবতার কন্ঠে সুর, দরদ অক্ষুন্ন। কোন চেঞ্জ নেই। তিনি গাইলেন হুইল চেয়ারে বসেই। তার চার পাশে তখন বাংলাদেশের গানের নক্ষত্ররা। তারা সবাই লাকীর কথা সুরে গান করেই হয়েছেন গানতারকা। লাকী আখন্দ গাইছিলেন । তার চেয়ে বলা ভাল তিনি গানের সুরে কাঁদছিলেন। সুরদেবী তার কান্না শুনে নিশ্চয়ই আবেগ ধরে রাখতে পারেন নি। তাকে এই মহান মুহুর্তে ঘিরে ছিলেন, ফাহমিদা নবী, সামিনা চৌধুরী ও শম্পা রেজা ।

 

‘আগে যদি জানতাম/ তবে মন ফিরে চাইতাম’—হুইলচেয়ারে বসেই গাইলেন লাকী । টপ টপ করে জল ঝরতে দেখা গেল তার। আলাউদ্দীন আলী ও শাম্মী আখতার,সামিনা চৌধুরী, ফেরদৌসী রহমান, খুরশীদ আলম, রফিকুল আলম, আবিদা সুলতানা, কনকচাঁপা, ফেরদৌস আরা, ফাহমিদা নবী, শম্পা রেজা, সুজিত মোস্তফা, এস আই টুটুল, অদিতি মহসিন, ইমন সাহা, কোনাল--সকলের চোখ সজল । এ এক অবিস্মরণীয় মুহুর্ত। হাজারো দর্শক আমরা যারা ছিলাম সবাই তখন কাঁদছি। কিছুতেই নিজেদের আবেগ ধরে রাখতে পারি নি।

 

শনিবার এক পাঁচতারকা হোটেলে ছিল আয়োজন।
মিলনায়তনভর্তি দর্শক, সেখানে তখন স্বর্গের পরিবেশ। স্বর্গ যেন ধরায় এসে লাকীকে ঘিরে দিয়েছে ধরা। তারকার মিলনমেলায় সবাইকে কাঁদিয়েছেন শিল্পী লাকী আখান্দ্।


‘স্বাধীনতা তোমাকে নিয়ে’ গানটিও গেয়ে শোনান তিনি। তাঁর সঙ্গে কণ্ঠ মেলান মিলনায়তনে উপস্থিত আরও কজন শিল্পী। গানটির স্মৃতিচারণা করতে গিয়ে লাকী বলেন, ‘একদিন আমি শহীদ মিনারের পাশ দিয়ে হেঁটে যাচ্ছিলাম। ভাবলাম, আমি তো প্রেমের গানসহ অনেক ধরনের গান গেয়েছি, সুর করেছি—স্বাধীনতা নিয়েও আমার কাজ করা উচিত। স্বাধীনতা নিয়ে বেশ কিছু কাজ করলাম।’
অনুষ্ঠানে অধ্যাপক আবদুল্লাহ আবু সায়ীদ বলেন, ‘শিল্পীরা ভিখারি নন, তাঁরা যেন মর্যাদা নিয়ে বাঁচতে পারেন। শিল্পীদের মর্যাদা অক্ষুণ্ন থাকলে তাঁদের কারও কাছে হাত পাততে হবে না।

 

  

 

লাকী আখন্দের জন্য আমরা সবাই কল্যান প্রার্থনা করি। ঈশ্বর যেন দ্রুত তাকে সুস্থ করে আমাদের মাঝে ফিরিয়ে দেন।

 


_______________________


লেখক ডা. অঞ্জলি । চিকিৎসক , ঢাকা মেডিকেল কলেজ।

ছবি _ সাজিদ হোসেন। প্রখ্যাত স্থিরচিত্রগ্রাহক।

আপনার মতামত দিন:


প্রিয় মুখ এর জনপ্রিয়