SAHA ANTAR

Published:
2022-09-29 20:56:18 BdST

‘বাচ্চাটিকে কেন ফেলে রেখেছেন! দ্রুত চিকিৎসা করুন’, কান্নায় ভেঙে পড়লেন আমলা রওশন


 

 

সংবাদ সংস্থা


বাস দুর্ঘটনার খবর পেয়ে আহতদের দেখতে হাসপাতালে ছুটে গিয়েছিলেন আমলা রওশন জেকব। হাসপাতালের বিছানায় শুয়ে তখন আহতরা কাতরাচ্ছিলেন। রওশনের চোখ আটকে যায় বিছানায় শুয়ে থাকা একটি বাচ্চার দিকে। বছর দশেকের সেই বাচ্চাটির মা পাশে বসে অঝোরে কেঁদে যাচ্ছিলেন। আর যন্ত্রণায় কাতরাচ্ছিল বাচ্চাটি।

বাচ্চাটির শয্যার দিকে এগিয়ে যান রওশন। তাঁকে দেখে শিশুটির মা আর নিজেকে ধরে রাখতে পারেননি। বার বার হাতজোড় করে কাকুতি-মিনতি করতে দেখা যায় তাঁকে— ‘আমার ছেলেকে বাঁচান ম্যাডাম।’ এক মায়ের এমন আর্তিতে আবেগপ্রবণ হয়ে পড়েন রওশন। ওই ওয়ার্ডে চিকিৎসার দায়িত্বে কে রয়েছেন তা জানতে চান। এর পরই তাঁকে বলতে শোনা যায়, “এখনও শিশুটিকে ফেলে রাখা হয়েছে কেন? কেনই বা চিকিৎসা শুরু হল না?” এর পরই নির্দেশ দিয়ে তাঁকে বলতে শোনা যায়, “এখনই ওর চিকিৎসার ব্যবস্থা করুন।” এ কথা বলতে বলতে রওশনের চোখ ভিজে গিয়েছিল। শাড়ির আঁচল দিয়ে বার বার চোখ মুছতে দেখা যায় তাঁকে। হাসপাতালে আহত শিশুকে দেখে আমলার সেই কান্নার ভিডিয়ো এখন ভাইরাল।


প্রসঙ্গত, বুধবার উত্তরপ্রদেশের লখিমপুর খেরিতে ৭৩০ নম্বর জাতীয় সড়কে যাত্রিবাহী বাসের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয় একটি ট্রাকের। সেই দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয়েছে অন্ততপক্ষে ১০ জনের। আহত হয়েছেন ৪১ জনের। তাঁদের মধ্যে ১২ জনকে লখনউয়ের ট্রমা সেন্টারে ভর্তি করানো হয়েছে। বাকিদের চিকিৎসা চলছে জেলা হাসপাতালে। দুর্ঘটনার খবর পেয়েই হাসপাতালে আহতদের দেখতে গিয়েছিলেন লখনউয়ের ডিভিশনাল কমিশনার রওশন। তখনই আহত এক শিশুর অবস্থা দেখে কেঁদে ফেলেন তিনি।

রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মু এই দুর্ঘটনায় দুঃখপ্রকাশ করেছেন। নিহতদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন। আহতদের দ্রুত চিকিৎসার নির্দেশও দিয়েছেন তিনি। সমবেদনা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীও। নিহতদের পরিবারকে দু’লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ এবং আহতদের ৫০ হাজার টাকা দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছেন তিনি।

আপনার মতামত দিন:


ক্লিনিক-হাসপাতাল এর জনপ্রিয়