SAHA ANTOR

Published:
2020-06-23 09:34:14 BdST

'এতো রোগী, চিকিৎসক এমনকি পুলিশ কেন মারা যাবেন?’ঢাকায় চীনা কর্মকর্তার প্রশ্ন



শওগাত আলী সাগর
__________________

 

’এতো রোগী, চিকিৎসক এমনকি পুলিশ কর্মকর্তা কেন মারা যাবেন?’- ঢাকায় চীনা দূতাবাসের ডেপুটি চিফ অব মিশন হুয়ালাং ইয়ানের প্রশ্ন এটি। ঢাকার কূটনৈতিক সংবাদাতাদের সঙ্গে বাংলাদেশে সফররত চীনা বিশেষজ্ঞদলের ভার্চ্যূয়াল সংবাদ ব্রিফিং এ চীনা কূটনীতিক এই প্রশ্নটি তুলেন।
চীনা এই কূটনীতিক বলেন, চীনের উহানে করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্খাব ঘটার পর চীন সরকার স্বাস্থসেবীদের নিয়ে ৪০ সদস্যের একটি জাতীয় দল গঠন করে তাদের উহানে পাঠায়। এই টিমটি উহানে সরেজমিনে সফর করেছে কিন্তু তাদের একজনও ভাইরাসে আক্রান্ত হয়নি। কিন্তু বাংলাদেশে অনেক চিকিৎসক আক্রান্ত হয়েছেন। তার মানে হচ্ছে এখানে যথাযথ ভাবে ‘ব্যাক্তিগত সুরক্ষা এবং চিকিৎসা প্রোটোকল’ (PPE & Medical protocole) যথাযথভাবে অনুসরণ করা হচ্ছে না।
তথ্যসূত্র: ডেইলি স্টার

@

‘বাংলাদেশ হেলথ ওয়াচ’ নামের একটি ‘নাগরিক’ সংগঠন জরীপ করে জানিয়েছে , করোনাভাইরাসে আক্রান্ত বা উপসর্গ নিয়ে আসা রোগীদের সেবায় নিয়োজিত সম্মুখসারির স্বাস্থ্যসেবাদানকারীদের ২৬ শতাংশ মে মাস পর্যন্ত ব্যক্তিগত সুরক্ষা সামগ্রী বা পিপিই পাননি। বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা সেবা দিচ্ছেন এমন ৬০ জনকে (দ্বিতীয় পর্যায়ে ৪০ জন) টেলিফোন করে পা্ওয়া তথ্যের ভিত্তিতে এই তথ্য তারা প্রকাশ করেছেন বলে পত্রিকার খবরে উল্লেখ করা হয়েছে।
জরীপের তথ্য অনুসারে, ৭৪ শতাংশ স্বাস্থ্যসেবাদানকারীই পিপিই বা ব্যক্তিগত সুরক্ষা সামগ্রী পেয়েছেন। এই সংখ্যাটা কিন্তু একেবারেই কম না। বিশ্বের সব দেশেই প্রথম কয়েক মাস পিপিইর সংকটে ভুগেছে এবং স্বাস্থ্যসেবাদানকারীদের প্রয়োজন অনুসারে পিপিই সরবরাহ করতে পারেনি। ওই সব দেশের রোগীর সংখ্যা বাংলাদেশের চেয়ে অনেক বেশি ছিলো। তবে ওই সব দেশে স্বাস্থ্যসেবায় কোনো ব্যত্যয় ঘটেনি।
৭৪ শতাংশ স্বাস্থ্যসেবাদানকারীর হাতে ব্যক্তিগত সুরক্ষা সামগ্রী পেঁছে দিতে পারাটা কম নয় কিন্তু। বিশ্বের বিভিন্ন দেশের অভিজ্ঞতা থেকে আমরা জানি, ক্রিটিক্যাল কেয়ার ইউনিটের বাইরে গ্লাভস, মাস্ককেই ব্যক্তিগত সুরক্ষার জন্য গুরুত্বপূর্ণ হিসেবে বিবেচনা করা হয়।
মজার ব্যাপার হচ্ছে, ৭৪ শতাংশ স্বাস্থ্যসেবাদানকারী পিপিই পেয়েছেন- এটা কিন্তু মিডিয়ায় শিরোনাম হয়নি, শিরোনাম হয়েছে ২৬ শতাংশ পায়নি সেটা। আমরা চাইবো ১০০ ভাগের কাছেই ব্যক্তিগত সুরক্ষা সামগ্রী পৌঁছুবে এবং নাগরিকরা ১০০ ভাগ স্বাস্থ্যসেবা পাবেন।

আপনার মতামত দিন:


ক্লিনিক-হাসপাতাল এর জনপ্রিয়