Ameen Qudir

Published:
2019-10-22 10:03:55 BdST

যমদূত ভোর রাতেই আসে


 

ডাঃ মোঃ শরিফুল ইসলাম (সুজন)
__________

ওয়ার্ডবয় এসে বলে, স্যার একটু আসতে হব, সঙ্গে থাকে অতঙ্কিত-দ্বিধাগ্রস্থ রোগীর লোকজন, আমাদের বুঝা শেষ, কর্ম সারা, ডেথ ডিক্লিয়ার করতে যেতে হবে।

যখন ওয়ার্ডের করিডোরে ঢুকি, এক দৃষ্টিতে রোগীর পেটের দিকে তাকিয়ে থাকি, পেট উঠা-নামা করছে কি না দেখার জন্য, টর্চ চাই - চোখের মনি বিষ্ফরিত হয়ে wide dilated হয়ে গেছে কি না দেখার জন্য

এরপর শুধুই ফরমালিটি - হাতে বা গলায় পাল্স দেখা, লোক দেখানো স্টেথো দিয়ে হৃদকম্পন আছে কি না খোঁজা।
মৃত লোকের বিপি দেখার আদিক্ষেতা দেখাই না।

এর পর শোডাউনের পালা। একটা কিছু তো করে দেখাতে হবে যে আমরা কি করছি, আমি যখন ইন্টার্ণ ছিলাম ২০০১ সালে, তখনও বাজারে দেশী ব্রান্ডের হাইড্রোকর্টসন আসে নি, তাই ওরাডেক্সন দিতাম, শুধু আমি না, আমার স্বর্গীয় মাতা মরহুমা ডাঃ শামসুন নাহার বেগম যখন ১৯৭২ সালে ইন্টার্ণ ছিলেন বা তারও আগে আমার পিতা মরহুম অধ্যাপক প্রফেসর ডাঃ মোঃ মোয়েদুল ইসলাম ১৯৫৮ সালে যখন ইন্টার্ণ ছিলেন, তখন তারাও মৃতপ্রায় বা মৃত রোগীকে শান্তনামূলক ওরাডেক্সন দিতেন, এটা আমাদের ফ্যামিলি ট্যাডিশন না, ন্যাশনাল ট্রাডিশন।

আচ্ছা, কেউ কি মনে করে বলতে পারেন, স্টেরয়েড যমদূত তাড়াতে পারে বা মৃতকে জীবিত করতে পারে বা এর কোন cardiac positive inotopic effect আছে, কোথাও কি এমনটি লেখা আছে?

ইনজেকশন দেবার পর দু'রকম ইফেক্ট হতে পারে।

একদল বলেন, স্যার-ম্যাডাম-আপারা (nurse) অনেক চেষ্টা করল, হায়াত না থাকলে কি করব?

আরেকদল ঘাড় ট্যারা রোগীর এ্যাটেন্ডেন্ট অছেন, যারা ঘোলা পানিতে মাছ শিকার করতে চান, তারা শুরু করেন ব্লেমিং গেম, sister ইনজেকশন দিয়ে আমার রোগী মেরে ফেলল।

আরে ভাই, আল্লার মাল আল্লাহ্ নিয়ে গেছে, সেখানে ডাক্তার-নার্স কি করবে?

মূল প্রসঙ্গে যাবার আগে ভোররাতে যমদূত আসার রহস্যের সমাধান করি, রোগীর লোকেরা সারা দিন ব্যস্ত-উৎকণ্ঠিত থেকে রাতে গভীর ঘুমে আচ্ছন্ন থাকেন, রোগীরা রাতে বিভিন্ন জন বিভন্ন সময়ে মারা যান এ্যাটেন্ডেন্টদের ঘুমের অন্তরালে, nurse রা ভোর-রাতে রোগীদের ঔষধ দিতে যেয়ে একে একে মৃত রোগী আবিষ্কার করেন। ডাক্তার-নার্স তো সব সময় রোগীর পাশে দাড়িয়ে বা বসে থাকেন না, সব রোগীর সঙ্গে কার্ডয়াক মনিটরও লাগানো থাকে না, রোগীর এ্যাটেন্ডেন্ট না জানালে আমরা বুঝব কি করে, রোগী খারাপ হচ্ছে?

Basically যেসব ল্যান্ডমার্কের কথা বললাম
- পেট উঠা-নামা না করা
- চোখের মনি বিষ্ফরিত হওয়া
- হাতে বা গলায় পাল্স না থাকা
- হৃদকম্পন না থাকা

এগুলো রোগীর cardio-resp arrest রিফ্লেক্ট করে,
মৃত না, আমাদের সামান্য তরিকামাফিক সহযোগীতা তাদের পূণঃজন্ম দিতে পারে,
আপাত মৃত দেহে নবপ্রাণের সঞ্চার করতে পারে।

অর্থাৎ, শ্বাস-প্রশ্বাস বা হৃদযন্ত্র বন্ধ যাওয়াই মৃত্যু নয়

তবু কথা থেকে যায়, তবু কথা রয়
যেন, শেষ হয়েও হইলনা শেষ।

পুনঃজন্মের এই শেষ চেষ্টার জন্য আজ থেকে ৪৩ বছর আগে American Heart Association ১৯৭৪ সালে Laypeople বা আমজনতার জন্য
- Basic Life Support এবং skilled people এর জন্য
- Advanced Life support চালু করে মূলত

- cardiac arrest
- choking &/or resp arrest
- drowning এর রোগীদের মৃত দেহে নবপ্রাণের সঞ্চার করার জন্য।

★Chest compression এর জন্য
- দুই হাত কিভাবে মুষ্টিবদ্ধ হবে,
- কবজি ৯০*
- কনুই কোনরূপ ভাজ ছাড়াই স্ট্রেট ১৮০* এবং
- কবজি-কনুই-ঘাড় একই লাইন বরাবরে
- স্টারনামের নীচের অর্ধাকাংশে
- প্রতি মিনিটে ১২০ বার চাপ দিয়ে
- প্রতি চাপে বুকটা ১/৩ (এক তৃতীয়াংশ) বা ২.৫" (৫ সেমি) compression এবং
- প্রতি compression এর পর পর বুকটা পরিপূর্ণভাবে সম্প্রসারিত হবার সুযোগ ও পর্যাপ্ত সময় দেওয়া
- last but not the least, chest compression দেবার আগে রোগীকে কোন শক্ত বোর্ড অথবা মেঝেতে শুয়ানো

★এই ৯ টি তরিকা সঠিকভাবে পালন করা কর্তব্য
শুধু আজরাঈলের মত বুকের উপর উঠে চাপাচাপি করলেই তো হবে না

দ্বিতীয়তঃ জ্ঞান হারালে আমাদের জিহবার উপর নিয়ন্ত্রন থাকে না, সে তার টোন হারিয়ে নেতিয়ে পরে airway বন্ধ করে দেয়। airway secure করার জন্য Head tilt / chin lift or Jaw thrust এর মত সামান্য-সহজ কিন্তু জীবন রক্ষাকারী পদ্ধতি সঙ্গে intubation করা শেখা আমাদের basic ও নৈতিক দায়িত্ব।

প্রতি ১৮ সেকেন্ডে ৩০ বার chest compression ও ৪ সেকেন্ডে ২ বার rescue breathing এবং এভাবে এক একটি করে প্রতি ৫ সাইকেল পর পর carotid pulse দেখা যদি কাউকে হাতে কলমে ধরে না শেখানো হয়, তবে সে কিভাবে শিখবে, কেউ মায়ের পেট থেকেও শিখে বের হয় না, আবার আসমান থেকে শেখানোর জন্য ফেরেস্তাও নাযিল হয় না।
শেখানোর তরিকা হল spoon feeding.

যদি পাল্স ফিরে না আসে

Inj. Atropine (0.6 mg) 2 ample ও
Inj. Adrenalin (1 mg) - 9 ml N/S এর সঙ্গে মিশিয়ে পুষ

★তবে বিশেষভাবে উল্লখ্য যে,
এই তরিকায় স্টেরয়েডের কোন ভুমিকা নেই।

Heart এ sympathetic and parasympathetic balance করে চলে, একজন আরেকজনের উপর মাতব্বরী করে, কাজ করতে বাধা দেয়।

Atropine parasympatheticকে over activity করতে বাঁধা দেয়, ফলে bradycardia হতে পারে না এবং sympathetic over active হবার সুযোগ পায় ও হার্ট সচল হতে সাহায্য করে।

আর Adrenalin ডাইরেক্ট কাজ করে heart এ

এর পর যদি heart beat ফিরে আসে, তবে সে (heart) পাগলা ঘোড়ার মত একই জায়গায় থেকে লাফাতে থাকে, এক পা'ও এগুতে বা পেছাতে পারে না, তেমনি হার্ট কাঁপতে থাকে কিন্তু কোন force of contraction থাকে না, VF or VT (ventricular fibrillation or ventricular tachycardia) অবস্থা বিরাজ করে। এই লাগামহীন ঘোড়াকে শান্ত করতে DC shock লাগে
- AED (Automated external defibrillator)
যা আমাদের সরকারী কোন হাসপাতালে আছে কি না বা থাকলেও আমরা তার ব্যবহার জানি কি না সন্দেহ, অথচ

বাঁচার অধিকার আপনার-আমার সকলের আছে, উপজেলা হেল্থ কম্পেক্স, সদর হাসপাতাল, জেলা হাসপাতাল, মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, বিশেষায়িত হাসপাতাল যেখানেই হোক

কিন্তু বর্তমান অবস্থার পরিপেক্ষিতে আপনি নিশ্চিন্ত থাকুন, আমাদের মরার আগেই মরতে হবে, আমাদের কেউ বাঁচাতে আসবে না, কেননা, কিভাবে বাঁচাতে হয়, তা আমরা আমাদের প্রজন্মকে শিখাই নি, নিজেরা জানি না বলেই। আর যারা জানি, তারা কোষ্ঠ কাঠিণ্যের মত মুখ এটে (বন্ধ করে) বসে থাকি।

প্রতিটি হাসপাতালে Code team থাকার কথা, যা মৃত্যু পথযাত্রীকে বাঁচাতে সাহায্য করবে, সেটা উপজেলাতে হোক আর খোঁদ রাজধানীতে, আমাদের আছে কি বা করার কোন পরিকল্পনার কথা কি শুনেছেন?

যখন কারো শ্বাস বন্ধ হয়, তখন তার নাকের উপর আমাদের কান নিয়ে সে শ্বাস নিচ্ছে কি না শুনতে হয় এবং চোখ রাখতে হয় রোগীর পেটের দিকে, বুক-পেট উঠা-নামা করছে কি না দেখার জন্য ১০ সেকেন্ড ধরে, আপনি হলফ করে বলেন তো, এর আগে ইহজগতে কেউ কোনদিন আপনাকে এই কথা বলেছে কি না?

PEA বা Pulseless electricsl activity সম্পর্কে আমরা কি কিছু জানি!

CPR এর ড্রাগ
- Adrenalin
- Amiodarone
- Atropine
- Bicarbonate
- Calcium
- Potassium

আমাদের কোন ওয়ার্ডের crash cart এ এই ঔষধগুলি আছে বা আদৌ কি আমাদের কোন ক্রাশ কার্ট আছে, যার ব্যবহার দুনিয়াতে ১৯৬২ সালে শুরু হয়েছে? আসলে আমরা হয়েছি কবিরাজের মত স্টরয়েডের ডাক্তার, যা সর্ব রোগের মহাঔষধ মনে করি, মৃত্যু পথযাত্রীকে দাও ওরাডেক্সন বা হাইড্রোকর্টস। আজ পর্যন্ত এই ঔষধ দিয়ে কেউ ফিরেছে কি? তবুও আমরা অনাদি-অনন্তকাল ধরে দিয়েই যাচ্ছি।

হার্ট বন্ধ হবার জন্য 6H ও 5T জানা দরকার

6H
- hypoxia
- hypovolemia
- hypo/hyper-kalemia
- hypo/hyper-thermia
- hydrogen ion (acidosis)
- hypoglycemia

5T
- trauma
- toxic poison
- tension pneumothorax
- tamponade (cardiac)
- thromboembolism

পরিশেষে বলি, কতক্ষণ CPR continue করবঃ
- যতক্ষণ না রোগীর পাল্স ফিরে না আসে
- ত্রাণকর্তা rescuer অন্য ত্রাণকর্তা দ্বারা অব্যাহতিপ্রাপ্ত না হওয়া পর্যন্ত
- ত্রাণকর্তা শারীরিকভাবে প্রচন্ড ক্লান্ত হলে
- ডাক্তার কতৃক মৃত ঘোষিত হলে

আমাকে বাঁচতে হবে, সঙ্গে আমাদের পরিবার-পরিজন, আত্মীয়-স্বজন, বন্ধু-বান্ধব, পাড়া-প্রতিবেশী সবাইকে বাঁচতে সাহায্য করতে হবে,

আর বাঁচতে হলে জানতে হবে।

ভাল থাকুন।
______________________

লেখক ডাঃ মোঃ শরিফুল ইসলাম (সুজন)

শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ, বগুড়া
এম, বি, বি, এস ২০০১
৪র্থ ব্যাচ
এফ, সি, পি, এস (নিউরো-সার্জারী)
০১৭১৫৫৪৬৪৬৮

আপনার মতামত দিন:


ক্লিনিক-হাসপাতাল এর জনপ্রিয়