Ameen Qudir

Published:
2019-07-05 12:37:57 BdST

এনেস্থেসিয়া চিকিৎসক না রেখে অস্ত্রোপচার করতো রোগী মারার কথিত 'সার্জন'


ক্লিনিক মালিক আমির হোসেন বাবলু ও কথিত সার্জন সাদ্দাম হোসেনকে কারাগারে নেয়া হয়



সংবাদদাতা / ডেস্ক
______________________



পাবনার চাটমোহরে বুধবার দুপুরে পৌর শহরের স্টার মোড় এলাকায় ‘চাটমোহর ইসলামিক হাসপাতাল’ নামে একটি ক্লিনিক সিলগালা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। ইসলামিক হাসপাতালটি ইতিমধ্যেই এলাকায় মানুষ মারার ডাক্তারের হাসপাতাল হিসেবে কুখ্যাতি পেয়েছে।

এছাড়া অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে অপারেশন, এনেস্থেসিয়া চিকিৎসক না রেখে রোগীর অস্ত্রোপচার করে প্রতারণা করাসহ নানা অনিয়মের অভিযোগে ক্লিনিক মালিক, কথিত সার্জন এবং ওই ক্লিনিকের ডিএমএফ চিকিৎসককে লক্ষাধিক টাকা জরিমানা করেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. ইকতেখারুল ইসলাম।
বুধবার দুপুরে পৌর শহরের নারিকেল পাড়া এলাকায় ‘চাটমোহর ইসলামিক হাসপাতাল’ নামে একটি বেসরকারি ক্লিনিকে এনেস্থেসিয়া চিকিৎসক, নার্স ছাড়াই অপারেশন হচ্ছে এমন গোপন সংবাদ জানতে পেরে অভিযান চালান নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. ইকতেখারুল ইসলাম। এ সময় অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে অস্ত্রোপচার, এনেস্থেসিয়া চিকিৎসক ছাড়াই অপারেশন, নার্স না থাকাসহ নানা অনিয়মের সত্যতা পান।

পরে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে ক্লিনিক মালিক আমির হোসেন বাবলুকে ১ লাখ টাকা জরিমানা অনাদায়ে ৩ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড এবং তার ক্লিনিকটি সিলাগালা করে দেয়া হয়।

এছাড়া এনেস্থেসিয়া চিকিৎসক সঙ্গে না রেখে অস্ত্রোপচার করা, সনদপত্র দেখাতে না পারায় কথিত সার্জন বনপাড়া এলাকার সাদ্দাম হোসেনকে ৫০ হাজার টাকা অনাদায়ে ১ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড এবং ওই ক্লিনিকের ডিএমএফ চিকিৎসক আলহাজ উদ্দিনকে ২ হাজার টাকা জরিমানা করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট।

অভিযুক্তরা তাৎক্ষণিক জরিমানার টাকা পরিশোধ না করায় পুলিশ তাদের থানায় নিয়ে যায়।

এ সময় চাটমোহর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. স ম বায়েজীদ-উল ইসলাম, থানার এসআই রবিউল ইসলাম ও সঙ্গীয় ফোর্স উপস্থিত ছিলেন।

আপনার মতামত দিন:


ক্লিনিক-হাসপাতাল এর জনপ্রিয়