Ameen Qudir

Published:
2019-06-18 12:31:22 BdST

ডাক্তারদের আত্মরক্ষা আন্দোলনের জেরে হাসপাতালগুলো এবার পুলিশি সুরক্ষা পেল


 

 

ছবি: সংবাদ প্রতিদিন

ডেস্ক/ সংবাদ প্রতিদিন _____________________

ডাক্তারদের নজিরবিহীন আত্মরক্ষা আন্দোলনের জেরে হাসপাতাল গুলো এবার পুলিশি সুরক্ষা পেল। কলকাতার সরকারি হাসপাতালগুলির নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকবেন কলকাতা পুলিশের ডিসি পদমর্যাদার একজন আইপিএস কর্তা। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশ অনুযায়ী এই সিদ্ধান্ত নিলেন লালবাজারের পুলিশ কর্তারা। এর জন্য ডিসি স্তরে নতুন পদ তৈরি করা হবে। নোডাল অফিসার হিসাবে ওই আইপিএস কর্তা স্বাস্থ্য দপ্তর, চিকিৎসক ও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে সমন্বয় বজায় রেখে নিরাপত্তার দিকগুলি দেখভাল করবেন। এছাড়াও সোমবার নবান্নে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও এনআরএস-এর আন্দোলনকারী জুনিয়র ডাক্তারদের সঙ্গে বৈঠকে উঠে আসা নিরাপত্তা বিষয়ক নানা দিক কার্যকর করার জন্য এদিন সন্ধ্যার মধ্যেই সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেন লালবাজারের পুলিশকর্তারা। পাশাপাশি মঙ্গলবার লালবাজারে এই বিষয়ে একটি উচ্চপর্যায়ের বৈঠক ডেকেছেন কলকাতার পুলিশ কমিশনার অনুজ শর্মা। এই বৈঠকে স্বাস্থ্য দপ্তরের কর্তাদেরও থাকার সম্ভাবনা রয়েছে। এই বৈঠকের পরই হাসপাতালগুলির পুলিশি নিরাপত্তার বিষয়গুলি ঘোষণা করবেন পুলিশ কমিশনার অনুজ শর্মা।

নবান্নে মুখ্যমন্ত্রী-ডাক্তারদের জরুরি বৈঠকের পরই এদিন বিকেলে লালবাজারে ফিরে আসেন পুলিশ কমিশনার অনুজ শর্মা-সহ অন্যান্য কর্তারা। লালবাজারে ফিরে এসেই তিনি হাসপাতালের নিরাপত্তার বিষয়গুলি নিয়ে ফের জরুরি বৈঠকে বসেন। এই বৈঠকে তিনি ডেকে নেন কলকাতা পুলিশের অতিরিক্ত নগরপাল (সদর) জাভেদ শামিম, অতিরিক্ত নগরপাল (ট্রাফিক) সুপ্রতিম সরকার, যুগ্ম নগরপাল (অপরাধদমন) প্রবীণ ত্রিপাঠী-সহ অন্যান্য আইপিএস কর্তাদের। লালবাজারেও এ বিষয়ে দীর্ঘক্ষণ বৈঠক করেন পুলিশ কমিশনার। সেই বৈঠকেই হাসপাতাল সুরক্ষার নানা বিষয় নিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। পুলিশ কমিশনারের এই জরুরি বৈঠক চলে সন্ধ্যা পর্যন্ত।

বৈঠক শেষ হতে লালবাজারের এক কর্তা জানিয়েছেন, শহরের হাসপাতালগুলির সুরক্ষার জন্য এবার এই প্রথম নোডাল অফিসার হিসাবে রাখা হবে ডিসি পদমর্যাদার এক অফিসারকে। যিনি শুধুমাত্র হাসপাতাল সুরক্ষার কাজেই নিযুক্ত থাকবেন। পাশাপাশি আন্দোলনকারী জুনিয়র ডাক্তারদের প্রস্তাব অনুযায়ী শুধুমাত্র হাসপাতালের জন্য এদিনই লালবাজারের টোল ফ্রি নম্বর পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে স্বাস্থ্য দফতরে। পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে ই-মেল আইডিও। সেইসঙ্গে সোশ্যাল মিডিয়ার ব্যবস্থাও করা হয়েছে এদিন।

ডিসি পদমর্যাদার নোডাল অফিসারের পাশাপাশি হাসপাতালগুলির সুরক্ষার দায়িত্বপ্রাপ্ত আউটপোস্টেও বড়সড় রদবদল করা হবে। এতদিন পর্যন্ত ওই আউটপোস্টগুলির দায়িত্ব থাকতেন ওসিরা। এবার ওসিদের পরিবর্তে আউটপোস্টের দায়িত্বে থাকবেন অতিরিক্ত কমিশনার পদমর্যাদার অফিসাররা। হাসপাতালগুলিতে সিসিটিভির ব্যবস্থা আরও ভাল করার চেষ্টা চালাচ্ছেন লালবাজারের পুলিশ কর্তারা। হাসপাতালের এই সিসিটিভির লিংক থাকবে আউটপোস্ট ও সংশ্লিষ্ট থানাগুলিতে। লালবাজারের ওই পুলিশ কর্তা জানিয়েছেন, মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশ অনুযায়ী হাসপাতাল সুরক্ষার যাবতীয় কাজ অত্যন্ত দ্রুততার সঙ্গে সেরে ফেলা হবে।
সংবাদ তথ্য সৌজন্য : সংবাদ প্রতিদিন/ সুপ্রিয় বন্দোপাধ্যায়

আপনার মতামত দিন:


ক্লিনিক-হাসপাতাল এর জনপ্রিয়