Ameen Qudir

Published:
2019-09-26 19:27:20 BdST

রাঙামাটি মেডিক্যাল কলেজ শিক্ষার্থীদের এখন একটাই দাবি : স্থায়ী ক্যাম্পাস চাই


 

 

ডা. সুদর্শন সাহা
___________________

রাঙামাটি মেডিক্যাল কলেজ শিক্ষার্থীদের এখন একটাই দাবি : স্থায়ী ক্যাম্পাস চাই। কলেজ প্রতিষ্ঠার পর ৫ বছর হল, কোন স্থায়ী ঠিকানা মেলে নি। এ নিয়ে শিক্ষার্থীরা ব্যাপক বিক্ষুব্ধ। নানা দরোজায় ধর্ণা দিয়েও তাদের নিজস্ব ঠিকানা মেলে নি। তাই এবার তারা নিয়েছে শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি।
স্থায়ী ক্যাম্পাসের কার্যক্রম দ্রুত বাস্তবায়নের দাবিতে সর্বস্তরের শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে বুধবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯। বিক্ষোভ সমাবেশ থেকে স্থায়ী ক্যাম্পাসের কার্যক্রম দ্রুত বাস্তবায়নের কাজ শুরু না হলে আরও কঠোর কর্মসূচি দেওয়ার হুঁশিয়ারি দেন শিক্ষার্থীরা। সকালে ঘণ্টাব্যাপী অস্থায়ী ক্যাম্পাসে এই বিক্ষোভে পাঁচটি ব্যাচে মোট ২৫০ জন শিক্ষার্থী অংশ নেন।


রাঙামাটি মেডিক্যাল কলেজের প্রথম ব্যাচের স্নেহাশিষ চক্রবর্তী ও তৃতীয় ব্যাচের শিক্ষার্থী বৈশাখী চাকমা বলেন, প্রধানমন্ত্রীর স্বপ্নের মেডিক্যাল কলেজের কিছু জটিলতা ও দীর্ঘসূত্রিতা তৈরি হয়েছে এবং সঙ্গে সঙ্গে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কারণে সরকার প্রধানের স্বপ্ন নষ্টের পথে। আমাদের মেডিক্যাল কলেজে পাঁচটি ব্যাচে মোট ২৫০ জন শিক্ষার্থী আছে কিন্তু দুটি ক্লাস রুমে ভাগাভাগি করে ক্লাস করতে হচ্ছে। রাঙামাটি মেডিক্যাল কলেজের সঙ্গে আরও যে কয়টি মেডিক্যাল কলেজ শুরু হয়েছিল সেখানে সবাই স্থায়ী ক্যাম্পাসে ক্লাস করছেন, তাহলে আমরা এখনও কেন অস্থায়ী ক্যাম্পাসে? তাই দ্রুত সময়ের মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর স্বপ্নের রাঙামাটি মেডিক্যাল কলেজের স্থায়ী ক্যাম্পাসের কার্যক্রম দ্রুত বাস্তবায়নের দাবি করছি।


রাঙামাটি মেডিকেল কলেজের তন্ময় চৌধুরী
(সেশনঃ ২০১৬-২০১৭ ;চতুর্থ বর্ষ) তার ক্ষুব্ধ বঞ্চিত মনের কথা লেখেন এভাবে:
২০১৪ সালে স্থাপিত কলেজ।
সমসাময়িক মেডিকেল কলেজগুলো যেখানে পার্মানেন্ট ক্যাম্পাসে ক্লাস করার দ্বারপ্রান্তে সেখানে আমরা একটু কানাকড়িও দেখি নাই....
৫ বছর...শুধু শুনে এসেছি একনেকে পাস হওয়ার সব বিভ্রান্তিকর সমাচার।
৫ বছর..যেখানে অন্যান্য মেডিকেলের বন্ধুবৎসলবৃন্দ ওয়ার্ডে একপ্রান্ত থেকে অন্যপ্রান্তে হেঁটে হেঁটেই পায়ের চামড়া খসিয়ে ফেলে সেখানে শিক্ষার্থী হয়ে আমাদের মাঠে নামতে হচ্ছে।
এক মাস্টারপ্ল্যান দিতেই সময় লেগেছে দেড় বছর!
৫টি বছর অনেক না পাওয়ার ইতিহাস....যেখানে অন্যরা গ্যালারিতে ক্লাস করে সেখানে আমাদের ডিসেকশন রুমে ক্লাস করতে হয়...এ দায় কার!!! ব্যাচ যেখানে ৫টা... ক্লাসরুম সেখানে ২টা...
কেন আমরাই বঞ্চিত??? ভর্তি পরীক্ষা দিয়েই ত এসেছি এ ক্যাম্পাসে...ইতিহাস কখনো কাউকে ক্ষমা করে না...
আমাদের প্রাণের এ ক্যাম্পাস আজ তাই সরব এই অন্যায়ের বিরুদ্ধে!!

আপনার মতামত দিন:


ক্যাম্পাস এর জনপ্রিয়