Ameen Qudir

Published:
2019-09-11 12:50:47 BdST

মেডিক্যাল ছাত্র ছাত্রীদের যে বিষয়গুলো জানতে হবে :ডা. শুভাগত'র শুভ পরামর্শ


 

অধ্যাপক ডা. শুভাগত চৌধুরী
উপমহাদেশের প্রখ্যাত চিকিৎসক ও লেখক


_________________________

 

এম বি বি এস কোর্স ৫ বছর ব্যাপী , যে কোনও কোর্সের চেয়ে দীর্ঘ , প্রয়োজন অনেক শ্রম , অফুরন্ত এনার্জি আর দায় বদ্ধতা । ছাত্রদের জন্য ইন টে লেক চুয়াল চ্যালেঞ্জ কেবল নয় ,তাদের শিখতে হয় পারস্পরিক ভাবের আদান প্রদান , সম্পর্ক উন্নয়ন , কৌশল , গুরুতর ব্যধির জ্ঞান নিতে হয় আর এথিকাল ইস্যু গুলো
এটি পেশাদারী ডিগ্রি , কর্ম মুখী শিক্ষা , প্রায়োগিক আর ক্লিনিকাল বিষয়ে শিক্ষা , এবং ডাক্তারি করার জন্য পেশাদারী আর ব্যক্তিগত গুনাগুন অর্জন ঘটে।
ছাত্রদের আর কিছু কৌশল জানতে হয় যেমন সূক্ষ্ম মূল্যায়ন ,পর্যবেক্ষণ , শ্রবণ , যুক্তি বিন্যাস , আর সিদ্ধান্ত গ্রহনের ক্ষমতা । ডাক্তার হলে এসব আয় ত্ব করা জরুরী
লিখিত আদান প্রদান যোগাযোগ । এসাইন মেন ট সম্পূর্ণ করা ,
রোগীর ইতিহাস নেয়া , মেডিক্যাল রিপোর্ট সম্পূর্ণ করা ।
লিখিত আর ডিজিটাল নথি অবহিত রাখে আর ভবিষ্যতে আইনি সমস্যা থেকে বাঁচায়
কম্পু টার ব্যবহার জানা অবশ্য উচিত ।
মৌখিক আদান প্রদান
ভাল শ্রবণ ক্ষমতা অর্জন , রোগীর চিকিৎসা সম্বন্ধে অন্য চিকিৎসা স্টাফ দের সাথে আলোচনা করে , শুনে জানা , রোগীর স্বজনের কাছে , রোগীর কাছে রোগ নির্ণয় , চিকিৎসা , রোগ ভবিষস্য নিয়ে তাদের বোধগম্য ভাষায় বলা , জানানো আর সম মর্মী দৃষ্টি ভঙ্গী গ্রহণ করা ।
টিমওয়ার্ক হিসাবে কাজ করতে শে খা
একটি মালটি ডি সিপ্লিনারি হেলথ টিমে কাজ করতে গিয়ে নিজের ভূমিকা আর অন্যদের ভুমিকা বোঝা
নেতৃত্ব দিতে শেখা
জুনিয়ররা একে শ্র দ্ধা করে । অন্যদের পরিচা লিত করা , গাই ড্যান্স দেওয়া , দায়িত্ব নিতে শেখান ।
প্রোজেক্ট আর এসাই ন মেন ট করার মাধ্যমে কম্পু টার লিটা রে সি বাড়ানো ।
টাইম ম্যানেজমেন্ট জানা জরুরী । অনেক বিষয় অথচ সব শেখার সময় কম । অগ্রা ধিকার ভিত্তিতে কাজ করতে হবে । কাজ আর কাজের ভার দুটোর মধ্যে অগ্রাধিকার বিবেচনা করতে হবে ।
চাপের অধিনে কাজ করা শিখতে হবে ।
প্রকৃত শিক্ষা নিতে হবে রোগী দেখে , তাদের সাথে কথা বলে , তাদের পরীক্ষা করে । দিনে অন্তত ৩ জন রোগীর সাথে কথা বলা উচিৎ ।
ছাত্র ত্ব হল সঠিক কমুনি কেশন স্কিল , ক্লিনিক্যাল ট্রেনিং এদের কখনও এড়ানো জাবেনা ।
ছাত্র ছাত্রিদের স্ট্রেস বেশি হলে একে মোকাবেলা করতে সাহায্য করাও মেডিক্যাল কলেজের দা য়ি ত্ব
স্মল গ্রুপ শিক্ষা , শিক্ষকের সাপোর্ট ,কউন্সেলিং সার্ভিস শিক্ষকরা দিতে পারেন
ছাত্র ছাত্রদের মধ্যে সম্প্রীতি , একে অপরের যুক্তি গ্রহন , মতানৈক্য হলেও বিবাদ না করা , পরস্পর মিল মিশ , একসঙ্গে কাজ করা , সমঝোতা করে চলা দরকার
অনিশ্চিত কিছুকে মানিয়ে চলা , পরিবর্তন শীল পরিবেশের সঙ্গে খাপ খাও য়ান , ভিন্ন কিছু হলে একে মানিয়ে নেয়া শিখতে হবে ।
কাজ আর জীবনের ভারসাম্য করে চলা শিখতে হবে ।work life balance .
পরিবর্তন গ্রহন করতে শেখা একটি আর্ট
নিজের উপস্থিতি আর উপস্থাপনা উন্নত করতে হবে ।
চিকিৎসা পেশার ইমোশনাল প্রভাব অনুধাবন করতে হবে ।
সব সময় আপডেট থাকতে হবে , নতুন জ্ঞান , প্রযুক্তি আর দক্ষতা অর্জন করতে হবে ।
মেডিক্যাল কলেজ অনবরত ঘোষণা দেওয়া আর যেন তেন ভাবে প্রতিষ্ঠা করার আগে ভাবা উচিত ছাত্রদের এভাবে পারদর্শী করারা মত শিক্ষক , যন্ত্র , স্থাপনা , হাসপাতাল , রোগী আছে কি ? তা না হলে ভাল ডাক্তার করার স্লোগান ফাঁকা বুলি হবে , ডাক্তারদের দোষ দেওয়া যাবেনা কারন উপযুক্ত শিক্ষা না পেলে সে কি করে তার দায়িত্ব পালন করবে ? সুদৃশ্য দালান মানে মেডিক্যাল কলেজ নয় দালান মানে হাসপাতাল নয় । ভেতরের স্থাপনা বেশি জরুরী , বহিরঙ্গের রূপ দেখে মোহিত হওয়া যাবেনা ।বাহিরের রূপ না দেখে অন্তরের গুন দেখাই ত জরুরী ।

আপনার মতামত দিন:


ক্যাম্পাস এর জনপ্রিয়