Ameen Qudir

Published:
2020-04-09 13:07:22 BdST

বিএসএমএমইউ-তে ডাক্তাররা করোনাকালে জীবন বাজি রেখে যেভাবে কাজ করে যাচ্ছেন


কাজ শেষে সবাই ডিসপোজাল রুমে যাচ্ছেন


বিএসএমএমইউ সংবাদদাতা
_________________


বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় : বিএসএমএমইউ-তে ডাক্তার, নার্স এবং স্বাস্থ্যকর্মীরা জীবন বাজি রেখে করোনা কালে কাজ করে যাচ্ছেন। করোনাকালে আতঙ্কের মুখে রোগীর ঢল কম। কিন্তু ডাক্তাররা বসে নেই। বিএসএমএমইউ উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়ার দক্ষ নেতৃত্ব ও অনুপ্রেরণায় তারা বিভিন্ন প্রতিকূলতাকে তোয়াক্কা করছেন না। বরং রোগীর কাছে সেবা পৌঁছে দিচ্ছেন দক্ষতার সঙ্গে।

চিকিৎসক ফুল প্রটেকশন PPE পরিধান করে চিকিৎসা দিচ্ছেন। রোগী ৬ ফুট দূরত্বে বসেন।


আজ ডা. তানভীর ইসলাম জানাচ্ছেন ফিভার ক্লিনিকের কথা । তিনি নানা ছবিও সরবরাহ করেছেন কর্মকান্ডের। তিনি জানান ,
বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের "Fever Clinic"। আমরা আপ্রান চেষ্টা করছি সঠিক SOP মেইন্টেইন করে ক্লিনিকটি চালাতে। এই পোস্টের উদ্দেশ্য একটি Respiratory Triage কিভাবে পরিচালনা করা যায় তার একটি চিত্র তুলে ধরা।বেতার ভবনে আমরা এই ফিভার ক্লিনিক স্থাপন করেছি যেন সাধারন হাস্পাতালের গন্ডির বাইরে রেখে রোগিদের নিরাপদ ট্রায়াজ করা সম্ভব হয়।এক্ষেত্রে বলা রাখা ভালো, আমরা সাধারন জ্ব্রর শর্দি কাশির রোগীদের টেলিমেডিসিনের মাধ্যমে বাসায় চিকিৎসা নিতে পরামর্শ দিচ্ছি। BSMMU এখন একটি কোভিড পরিক্ষা কেন্দ্র আর তাই সঠিক রোগীরা যেন এই কেন্দ্রে আসে সেই চেষ্টা আমরা টেলিমেডিসিনের মাধ্যমে করছি। আপনাদের যেকোন বিজ্ঞানসম্মত উপদেশ আমাদের সমৃদ্ধ করবে।

মার্কিং এ দাড়িয়ে থাকা রোগিরা


  বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্মানিত ট্রেজারার ও বক্ষব্যাধি বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক মো: আতিকুর রহমান স্যারের সাথে আমি, ডা: শামীম আহমেদ এবং ডা: নাজমুল হাসান ফিভার ক্লিনিকে অবস্থানকালে কিছু ছবি তুলেছিলাম, আপনাদের সাথে শেয়ার করার নিমিত্তে।ভাইরোলজির চিকিৎসক ও কর্মকর্তারা ভবনটির দ্বিতীয় তলায় পরীক্ষার কাজ করেন,নিরাপত্তার খাতিরে সেখানকার চিত্র তুলিনি।ফিভার ক্লিনিকে কর্মরত সকল চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের প্রাণঢালা শুভেচ্ছা ও ভালোবাসা, আপনারাই আমাদের আইডল।

ফিভার ক্লিনিকের বাইরে ওয়েটিং কিউ

ফিভার ক্লিনিকের ভেতরে তিন ফুট দুরত্বের ব্যবধান, মার্রকিং দেওয়া আছে



আপনার মতামত দিন:


বিএসএমএমইউ এর জনপ্রিয়