Ameen Qudir

Published:
2019-10-24 13:37:06 BdST

রেকর্ড সংখ্যক মানসিক স্বাস্থ্য পেশাজীবীকে নিয়ে উন্নয়ন কর্মশালা হল বিএসএমএমইউতে


 

সংবাদদাতা
____________________

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় বিএসএমএমইউতে মানসিক স্বাস্থ্য পেশাজীবীদের নিয়ে বিশাল উন্নয়ন কর্মশালা হল ২৩ অক্টোবর ২০১৯ এ। বাংলাদেশে এ পর্যন্ত কোন স্বাস্থ্য কর্মশালায় দেশ বিদেশের বিশেষজ্ঞ অংশগ্রহনকারীদের বিবেচনায় এটা বৃহত্তম আয়োজন। উপমহাদেশের রাষ্ট্র বাংলাদেশ ভারত শ্রীলঙ্কা নেপাল ভুটান এবং বৃটেনসহ নানারাষ্ট্রের ৬৫০ জন মানসিক স্বাস্থ্য পেশাজীবি এতে অংশ নেন। নিসামা, নিউক্যাসেল ইউনিভার্সিটি, ব্রিটিশ কাউন্সিল এবং মনোরোগবিদ্যা বিভাগ বিএসএমএমইউ ছিল এই বিশাল কর্মযজ্ঞের যৌথ আয়োজক ।

ভিন্ন ভিন্ন ছয়টি সেশন হয় সারাদিনে । উপস্থিত ছিলেন বিএসএমএমইউর উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া, উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মো. শহীদুল্লাহ সিকদার, বাংলাদেশে নিযুক্ত ডেপুটি ব্রিটিশ হাইকমিশনার কানবার হোসেইন-বোর, ব্রিটিশ কাউন্সিলের ডেপুটি ডিরেক্টর এন্ড্রু নিউটন,বাংলাদেশ ভারত শ্রীলঙ্কা নেপাল ভুটান ,যুক্তরাজ্যের মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ক পেশাজীবিরা।


এই কমনওয়েলথভুক্ত রাষ্ট্র সমুহের যোগে গঠিত নর্থ ইস্ট ইংল্যান্ড সাউথ এশিয়া মেন্টাল হেলথ অ্যালায়েন্স NEESAMA (নিসামা) । বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের শহিদ মিলন হল সহ অন্যান্য হলে Continuing Professional Development (CPD) সমুহ অনুষ্ঠিত হয়।
অনুষ্ঠানে উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া সিপিডি আয়োজনের জন্য নিসামাকে অভিনন্দন জানান। এই আয়োজন বাংলাদেশের মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ক সচেতনতা সৃষ্টিতে ভূমিকা রাখবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

মানসকি স্বাস্থ্যসেবা সংশ্লিষ্টদের জন্য সকাল এবং বিকাল দুই পর্বে বঙ্গবন্ধু মেডিকেলের মূল হল, ডা. মিলন হল এবং মিল্টন হলে একযোগে তিনটি করে মোট ছয়টি সেশন অনুষ্ঠিত হয়। অনলাইনের মাধ্যমে রেজিষ্ট্রেশনের মাধ্যমে ‍এসব সেশনে অংশ নেন আগ্রহীরা।
Suicide ‍& Self Harm শীর্ষক সেশনটি পরিচালনা করেন যুক্তরাষ্ট্রের জ্যাকি রজার্স এবং পাকিস্তানের শাবহাত হাক্কানী। Education for mental health professionals শীর্ষক সেশনটিপরিচালনা করেন ভারতের ডা. শেখর শেষাদ্রী এবং বাংলাদেশের এম এস আই মল্লিক। Depression across the lifespan শীর্ষক সেশনটি পরিচালনা করেন যুক্তরাষ্ট্রের হামিশ ম্যাক অ্যালিস্টার উইলিয়াম এবং এডি শর্মা।

Geriatric Mental Health বার্ধক্য প্রবীণ মানসিক স্বাস্থ্য নিয়ে পেপার উপস্থাপন করেন বিএসএমএমইউর মনোরোগ বিদ্যা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ডা. সুলতানা এলগিন।


People living in disadvantaged situations শীর্ষক সেশনটি পরিচালনা করেন বাংলাদেশের নায়লা খান এবং ভারতের শেখর শেষাদ্রী। Dementia শীর্ষক সেশনটি পরিচালনা করেন যুক্তরাষ্ট্রের স্টেলা মারিয়া প্যাডিক এবং রিচার্ড ওয়াকার। Substance misuse শীর্ষক সেশনটি পরিচালনা করেন যুক্তরাষ্ট্রের ক্রিস্টোফার স্মার্ট এবং বাংলাদেশের হেলাল উদ্দিন আহমেদ।


অনুষ্ঠানে বিভিন্ন দেশের মনোরোগ শিক্ষক বিশেষজ্ঞগন, মনোরোগ স্বাস্থ্যপেশাজীবিগন আলোচনায় অংশ নেন।

সমগ্র আয়োজনের সমন্বয়ক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের মনোরোগবিদ্যা বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. সালাহ্‌উদ্দিন কাউসার বিপ্লব, নিউক্যাসেল ইউনির্ভাসিটির সাইকোলজি এ্যান্ড মেন্টাল হেলথ বিভাগের অধ্যাপক জ্যাকি রজার্স এবং নিউক্যাসেল ইউনির্ভাসিটির ক্লিনিক্যাল সিনিয়র লেকচারার ডা. আদিত্য শর্মা।

অংশ গ্রহণকারীদের একাংশের সঙ্গে বাংলাদেশের অন্যতম পথিকৃৎ মনেরোগ বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক ডা. ঝুনু শামসুন নাহার

অধ্যাপক ডা. সালাহ্‌উদ্দিন কাউসার বিপ্লব এক বক্তব্যে বলেন,
অনুষ্ঠানটি সফল করার জন্য সবাইকে অসংখ্য ধন্যবাদ। বিশেষ করে রেসিডেন্টদের কথা বলতেই হয়। না বল্লেই নয়।

অধ্যাপক ডা. সালাহ্‌উদ্দিন কাউসার বিপ্লব সুন্দর আয়োজন সফল করার জন্য বিএসএমএমইউ কর্তৃপক্ষ, নিসামা কর্তৃপক্ষ, বিভাগীয় শিক্ষক, বৃটিশ কাউন্সিল, শিক্ষার্থী , রেসিডেন্ট, কর্মকর্তা কর্মী সবাইকে আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান।
তার নেতৃত্বে গত কিছু দিন ধরে বিভাগীয় শিক্ষার্থী ও অন্যান্যরা নিরলস পরিশ্রম করেন। যার ফল এই অনন্য সুন্দর আয়োজন। বিএসএমএমইউর উপাচার্যসহ সকলেই এই দারুণ আয়োজনের প্রশংসা করেন।

 

আপনার মতামত দিন:


বিএসএমএমইউ এর জনপ্রিয়