Ameen Qudir

Published:
2019-04-30 10:38:50 BdST

বিএসএমএমইউতে বিশ্বমানের ইমার্জেন্সী সেবা চালু হচ্ছে জুন মাসে


 

 


বিএসএমএমইউ সংবাদদাতা
________________________

আজ মঙ্গলবার ৩০ এপ্রিল বিশ্ববিদ্যালয়টির ২১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী এবং ২২তম বিশ্ববিদ্যালয় দিবস পালিত হচ্ছে যথা মর্যাদায় । এ দিন উপলক্ষে গতকাল আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে জানিয়েছেন , আসছে জুন মাসে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালে জরুরি বিভাগ চালু হবে বলে উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া।

জানা যায়, শত ডাক্তার হয়রানির মাঝেও ডাক্তারদের জনসেবা মুখী আন্তরিক কার্যক্রম চলছেই। বিএসএমএমইউর এই জরুরি বিভাগ সেবা হবে দেশের সেরা ইমার্জেন্সী সেবা। বিশ্ব মানের সেবা যাতে বিএসএমএমইউর মাধ্যমে দেশের মানুষ পায়, সেভাবেই সকল প্রস্তুতি নিয়ে কাজ শুরু হচ্ছে। এজন্য মেয়াদী প্রস্তুতিও নেয়া হয়।


২৯ এপ্রিল বিএসএমএমইউ’র ডা. মিল্টন হলে ২২তম বিশ্ববিদ্যালয় দিবস উপলক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ তথ্য দেন।

সংবাদ সম্মেলনে উপাচার্য বলেন, এ হাসপাতালে জরুরি বিভাগের দাবি অনেকদিনের। ইতোমধ্যে আমাদের সব প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। সব মেশিন কেনা হয়ে গেছে। আমরা শুধু আটকে আছি দু’টো কারণে। প্রথমত, আমাদের নার্স সংকট রয়েছে। সরকার যে নতুন ১০ হাজার নার্স নিয়োগ দিয়েছে, সেখানে আমাদের হাসপাতালে কর্মরত প্রায় ৪৫০ জন নার্স চলে গেছেন। তবে আমাদের ৩৪৭ জন নার্স নিয়োগ দিতে আর মাত্র দুই সপ্তাহ সময় লাগবে। দ্বিতীয়ত, হাসপাতালের মূল গেট মেট্রোরেলের কার্যক্রমের জন্য আটকে আছে। এটাও ঈদের আগেই শেষ হবে বলে আমাদের জানানো হয়েছে।

এছাড়া বিএসএমএমইউতে ক্যাডাভেরিক ট্রান্সপ্ল্যান্ট (মৃত ব্যক্তির অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ প্রতিস্থাপন) প্রক্রিয়া দ্রুত চালু করা হবে জানিয়ে উপাচার্য আরও বলেন, খুব শিগগির বিএসএমএমইউতে ক্যাডাভেরিক ট্রান্সপ্ল্যান্ট প্রক্রিয়া চালু হবে। এ প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে। এছাড়া আগামী তিন মাসের মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা অনুসারে বিশ্ববিদ্যালয়কে আরও বেশি গবেষণাধর্মী ও সেবামুখী করতে ইনস্টিটিউশনাল প্রাকটিস ব্যবস্থা সম্প্রসারণ করা হবে। এছাড়া আজ বিশ্ববিদ্যালয়ের বি ব্লকের নিচতলায় অর্থ, হিসাব ও অডিট দফতরের অটোমেশন (ডিজিটালাইজেশন) কার্যক্রম উদ্বোধন করা হয়েছে।

এ বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ডা. একে মাহবুবুল হক বলেন, রোগীদের সুবিধার্থে বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষায় ভোগান্তি কমাতে ওয়ান সেন্টার সার্ভিস চালু করা হচ্ছে। এ প্রক্রিয়া শুরু হবে রেডিওলজি বিভাগ থেকে। এ প্রক্রিয়ায় মেডিকেল টেস্ট করাতে দুই লাইনে দাঁড়াতে হবে না। এক লাইনেই টাকা জমা দিয়ে টেস্টের স্লিপ নিতে পারবে। এছাড়া রিপোর্ট সংগ্রহের স্থান একই স্থানে থাকবে না, আলাদা স্থানে থাকবে। যেনো সমস্যার সৃষ্টি না হয়। ঈদের পরই এ সেবা শুরু হবে বলেও জানান হাসপাতাল পরিচালক।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মো. শহীদুল্লাহ সিকদার, উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ডা. সাহানা আখতার রহমান, উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মুহাম্মদ রফিকুল আলম, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ আতিকুর রহমান প্রমুখ।

 

আপনার মতামত দিন:


বিএসএমএমইউ এর জনপ্রিয়