Ameen Qudir

Published:
2019-03-22 22:38:47 BdST

বিএসএমএমইউ সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতালের কাজ চলছে জোর কদমে


 

বিএসএমএমইউ সংবাদদাতা
______________________

 

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতালের নির্মাণকাজ নির্ধারিত সময়ে শেষ হবে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা। স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক বৃহস্পতিবার হাসপাতালের নির্মাণ কার্যক্রম পরিদর্শন শেষে সংশ্লিষ্টদের কাছে থেকে অবহিত হয়ে এ কথা বলেন তিনি।

এ সময় সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতাল প্রকল্পের কার্যক্রমের অগ্রগতি সম্পর্কে মন্ত্রীকে অবহিত করেন প্রকল্প পরিচালক অধ্যাপক ডা. জুলফিকার রহমান খান।

সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতাল কার্যক্রমের অগ্রগতিতে স্বাস্থ্যমন্ত্রী সন্তোষ প্রকাশ করে জাহিদ মালেক বলেন, হাসপাতালের কার্যক্রম সুন্দরভাবে এগিয়ে চলছে। নির্ধারিত সময়ের মধ্যেই এর নির্মাণকাজ সমাপ্ত হবে বলে আশা করা যায়।

এসময় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়াসহ উপ-উপাচার্যগণ ও অন্যান্য শিক্ষক, চিকিৎসক ও হাসপাতালের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের শীর্ষ একাধিক কর্মকর্তা জানান, বিশ্ববিদ্যালয়ের উত্তর দিকে ১২ বিঘা জমির ওপর এ হাসপাতাল নির্মাণ করা হবে। এই বিশেষায়িত হাসপাতালে বিশেষায়িত ব্যবস্থায় বিভিন্ন ধরনের চিকিৎসাসেবা প্রদান এবং গবেষণা করা হবে। সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতালে থাকবে লিভার গল ব্লাডার ও প্যানক্রিস সেন্টার, অরগান ট্রান্সপ্লান্ট সেন্টার, ক্যান্সার সেন্টার, ম্যাটারনাল এবং চাইল্ড হেলথ কেয়ার সেন্টার, ডেন্টাল সেন্টার, কার্ডিও ভাসকুলার/নিউরোসার্জারি সেন্টার, এনড্রোক্রানোলজি ডায়াবেটিস সেন্টার, রেসপাইরেটরি সেন্টার, জেরিআট্রিক (বয়স্কদের চিকিৎসা) সেন্টার, জয়েন্ট/স্পাইন কর্ড সেন্টার, হার্ট সেন্টার, বার্ন ইনজুরি সেন্টার, হেলথ স্ক্রিনিং সেন্টার, ইমারজেন্সি মেডিক্যাল সেন্টার, এমবুলেটরি সার্জারি সেন্টার, কিডনি মেশিন সেন্টার (হিমোডায়ালাইসিস সেন্টার) প্রভৃতি।

এই বিশেষায়িত হাসপাতালটি একটি পূর্ণাঙ্গ গবেষণা কেন্দ্র হবে এবং এখানে সবধরনের গবেষণা উপযোগী আধুনিক যন্ত্রপাতি থাকবে। বর্তমানে যেসব পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য বিদেশে যেতে হয় এই হাসপাতাল নির্মিত হলে দেশেই সেসব পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা সম্ভব হবে। দেশে উন্নততর চিকিৎসাবিদ্যা নিশ্চিত করতে চিকিৎসকদের জন্য অত্যাধুনিক পোস্ট গ্রাজুয়েট ট্রেনিংয়ের ব্যবস্থা, বায়োমেডিকেল রিসার্চ এবং জনগণের জন্য উচ্চমানসম্পন্ন স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করার লক্ষ্যেই বিএসএমএমইউ কর্তৃপক্ষ এই হাসপাতাল নির্মাণের উদ্যোগ নিয়েছে।

এ হাসাপাতালটি চালু হলে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা, চিকিৎসা ও গবেষণা কার্যক্রম আরও গতিশীল ও উন্নত হবে। দেশের রোগীদের বিদেশে গিয়ে চিকিৎসা নেয়ার প্রবণতা হ্রাস পাবে; সর্বোপরি সাশ্রয়ী খরচে বা স্বল্প ব্যয়ে দেশেই উন্নত চিকিৎসাসেবা রোগীদেকে প্রদান করা সম্ভব হবে।

উল্লেখ্য, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিশেষ গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনা করে বাংলার আপামর জনসাধারণ যাতে দেশেই সুলভে সর্বোচ্চ মাত্রার স্বাস্থ্যসেবা পেতে পারেন সে লক্ষ্যেই একনেক সভায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতাল নামের প্রকল্পটি অনুমোদন দেন।

আপনার মতামত দিন:


বিএসএমএমইউ এর জনপ্রিয়