Ameen Qudir

Published:
2018-02-04 16:48:05 BdST

হাথুরু কোন প্লেয়ারটিকে বের করে এনেছে বলবেন?


 

ডা. মোরশেদ হাসান

____________________________

গরীবের কথা বাসি হলে ফলে অথবা গরিব দেরিতে বুঝে তার দামি হীরাটিকে। ২০১৯ সালে বিশ্বকাপ ক্রিকেট। বলতে গেলে দোরগোড়ায়। ওয়ান ডে ক্রিকেটে ওয়ান ডাউনের সমাধান অনেক আগেই হয়ে যেত মিমিকে জায়গা করে দিলে।

নাকি এখনও কেউ বলবেন মমিনুল ওয়ান ডে খেলতে পারে না। বলেন, তবে একটু আড়ালে গিয়ে বলেন। জনসমক্ষে বললে হেনস্থা হওয়ার সমূহ সম্ভাবনা আছে।

হাতুরু ছিল কমপ্লিট জুয়াড়ি। এর হাত ধরে কিছু চমক-সাফল্য পাওয়া যেতে পারে। তবে এ ধরনের লোক যে কাজটিতে পারঙ্গম তা হচ্ছে দীর্ঘমেয়াদী ক্ষতি করে দেওয়া। হাতুরু বাংলাদেশ ক্রিকেটের দীর্ঘমেয়াদী ক্ষতিই করছিল। ভাগ্য ভালো এ ধরনের জুয়াড়ির হাত থেকে উদ্ধার পাওয়া গেছে। হাতুরুর সময়ের সাফল্যের নিয়ামক হাতুরু নয়। এর কারণ অনেক। শুধু হাতুরুকে ক্রেডিট দিয়ে ভাসিয়ে দেবে না অন্তত ক্রিকেটাভিজ্ঞ কেউ।

প্লেয়ার বের করে আনা বড় কথা। হাতুরু কোন প্লেয়ারটিকে বের করে এনেছে বলবেন? বরং সবচেয়ে মেধাবী ব্যাটসম্যানটিকে প্রথমে টেস্ট ব্যাটসম্যানের তকমা দিয়ে ওয়ান ডে থেকে বাদ দেওয়া, টেস্টে আট নাম্বারে ব্যাটিং দেওয়া, সবশেষে ছুঁড়ে ফেলে দেওয়া -- এর চেয়ে বড় শত্রু আর কিছু লাগে?

সৌম্যরা ঠিক সময়ে পরিপূর্ণ হয়ে টিমে আসবে। পরিপক্ব হয়ে আসাটাই ভালো। নইলে পক্ষান্তরে সে প্লেয়ারটিরই ক্ষতি করা হয়।
একটা প্লেয়ার অন্যদের ছাড়িয়ে নিজেকে বিশেষভাবে পরিচিত করায় যখন দেখবেন সে কথা বলে শুধু তার হাতিয়ারটি দিয়ে। এত এত বঞ্চনার মুখেও মিমিকে মুখ খুলতে কেউ দ্যাখেনি। মিমি তার ব্যাট দিয়েই তার সমস্ত যন্ত্রণার জবাব দিয়ে গেছে।

মিমি ও মিমির মতো প্লেয়ারদের পরিচর্যা করুন। ফল পাবে কিন্তু দেশ। আর সেটিই কিন্তু মুখ্য।

লেখায় ক্রিকেট নিয়ে সবকিছু আনা গেল না; বরং অনেক কিছুই বাদ গেল। আজ নাহয় শুধু মিমির প্রশস্তিগাথাই গাই।

______________________

 

Image may contain: 1 person

লেখক ডা. মোরশেদ হাসান ।
Works at Medical College, Assistant Professor.
Past: Works at Ministry of Health, Maldives and ICDDR,B

আপনার মতামত দিন:


খেলা এর জনপ্রিয়