Ameen Qudir

Published:
2019-09-23 12:46:33 BdST

বাংলাদেশের মেডিক্যাল শিক্ষার কারিকুলাম নিয়ে জরুরি কিছু কথা


অধ্যাপক ডা. শুভাগত চৌধুরী
উপমহাদেশের প্রখ্যাত শিক্ষাবিদ চিকিৎসক ও লেখক

___________________________

আমাদের দেশে মেডিক্যাল শিক্ষার মধ্যে আছে জাতীয় কারিকুলাম আর অভিন্ন উদ্দেশ্য আর লক্ষ্য ।
এতে অসুবিধা হলে ছাত্রদের কোনও বিকল্প নাই বিলেতে বিভিন্ন বিশ্ব বিদ্যালয়ে আছে প্রাতিষ্ঠানিক কারিকুলাম যা পড়ে ছাত্ররা ভবিষ্যতে কি হবে তা নির্ধারণ করে আর তা প্রতিযোগিতা মূলক হওয়ায় প্রতিটি মেডিক্যাল স্কুল নিজ গরজে মান ঠিক রাখে তা না হলে ঝরে পড়বে । বিলেতে জি এম সি কারিকুলামের মুল নির্দেশিকা নির্ধারণ করলেও জাতীয় কারিকুলাম চাপিয়ে দেয়না ।
থাইল্যান্ডে দেখলাম চুলালমকর বিশ্ব বিদ্যালয় , মাহিদল বিশ্ববিদ্যালয় , সিরিরাজ হসপিটাল এদের নিজস্ব প্রাতিষ্ঠানিক কারিকুলাম যেমন সিরিরাজে আন্ডার গ্রা জুয়েট পড়ায় থাই ভাষায় তারা তৈরি করে কমুনিটি বেস ড ডাক্তার আবার মাহিদল পড়ায় ইংরেজি ভাষায় কারণ তারা তৈরি করে বিদেশে কাজ করতে পারে।
আর পড়তে পারে এমন গ্রাজুয়েট , (মাহিদল আমেরিকার রকে ফেলার ফাউন ডে শনের সাথে যুক্ত ) শিক্ষার্থীরা পছন্দ করতে পারে প্রতিষ্ঠান । ভারতে এ আই এম এস আর অন্য মেডিক্যাল কলেজের কারিকুলামের সাথে পার্থক্য রয়েছে । প্রাতিষ্ঠানিক অবজেক্টিভ অনুযায়ী কারিকুলাম প্রণীত হয় এতে পরস্পর প্রতিযোগিতা বাড়ে নিজ গরজে মান ঠিক থাকে । বিলেতে দেখলাম সেন্ট এন্দ্রুস মেডিক্যালে যেভাবে পড়ায় স্কটল্যান্ডের ডান্ডি বিশ্ব বিদ্যালয়ে সে রকম না এদের নাইন ওয়েলস হাসপাতালেও শিক্ষা আলাদা , যেমন এ ডি ন বরাতে একরকম অক্সফোর্ডে এক রকম । ।
General Medical Council of GB set standards, and expected outcomes of medical education ,and training in the UK . From under graduate to Post graduate ,they regulate all the stages of doctors professional development including training for qualified doctors for qualified doctors who specialise .সেখানে জি এম সি আর ব্রিটিশ মেডিক্যাল এসো সিয়াসন ঘনিষ্ঠ সহযোগিতার মাধ্যমে কাজ করে , আমাদের দেশে এরকম হলে শিক্ষার এত দুর্দশা হতোনা ।আমাদের দেশে ডাক্তারদের ক্যারিয়ার প্ল্যানিং নাই , ভবিষ্যৎ লক্ষ্য নির্দেশ করা নাই কেউ গ্রামে পড়ে থাকলো বছরের পর বছর আর যাদের প্রতিপত্তি , প্রভাব আ তদ্বির আছে , অর্থ বল আছে তারা সুবিধা ভোগ করে । কোনও দেশে অর্থাৎ উন্নত সভ্য দেশে এমন বিপরিত চিত্র ব্যক্তি বিশেষে নাই , আইনের ব্যতিক্রমও নাই । আর ডাক্তারদের নিজের কারনে যতটা না তার চেয়ে বেশি অন্যদের কারনে নিজেদের দুর্ভোগ পোহাতে হয় জনগনের নিগ্রহ পেতে হয় । এজন্য অনেকের মধ্যে হতাশা নেমে আসে । মেডিক্যাল কলেজ মানসম্পন্ন রাখা আর বজায় রাখা আর মান ঠিক না থাকলে বন্ধ করা কর্তৃপক্ষের দায়িত্ব তারা যদি তা সঠিক আর নির্মোহ ভাবে পালন করেন তাহলে নিম্ন মানের কলেজে পড়ে অসম্পূর্ণ বিদ্যা নিয়ে ডাক্তার রা পেশায় যদি সঠিক মান না রাখতে পারেন তাহলে দায় কই শুধু ডাক্তারের ? এমন শিক্ষার মান আর কারিকুলাম করলেন যে ডাক্তাররা আন্তরজাতিক পরিমণ্ডলে যোগ্য স্থান পেলনা এর দায় কার ? আমরা বলতে পারি কিন্তু আমরা ত কর্তা নই যে বাস্তনায়ন করব । এর জন্য কর্তারা আছেন ।
যুক্ত রাজ্যে চিকিৎসা শিক্ষা ব্যাপক আর বিভিন্ন (wide and diverse) আন্ডার গ্রাজুয়েট কোর্স ৪-৬ বছরের । আন্ডার গ্রা জুয়েট শেষ করার পর নতুন ডাক্তারদের দুই বছর ফাউন ডে শন ট্রেনিং করতে হয় স্পে শিয়া লিটি বেছে নেওয়ার আগে । ফাউন ডে শন ট্রেনিং করার সময় তাদের একটি সুসংঘটিত প্রোগ্রাম (Structured program ) থাকে লেখাপড়া আর প্রায় গিক অভিজ্ঞতা অর্জন করার জন্য যাতে স্পেশিয়ালিস্ট ট্রেনিং সম্পন্ন হয় । এই ট্রেনিং কাল সফল ভাবে শেষ করার পর ডাক্তার দের সামনে বিকল্প থাকে চিকিৎসা ক্ষেত্রে বিশেষ স্পেশিয়ালি টিতে পড়ার যাতে সেই স্পেশিয়ালি টিতে প্রাকটিস করার যোগ্যতা আর দক্ষতা অর্জন করা যায় ।

আপনার মতামত দিন:


মেডিক্যাল ক্যাম্প এর জনপ্রিয়