|

স্বাস্থ্য ইস্যু নিয়ে রাজনীতি


Published: 2016-12-28 12:22:48 BdST, Updated: 2017-06-22 22:36:53 BdST

 

ডা. বাহারুল আলম

_________________________

‘রাজনীতি’ - চিকিৎসকদের হেয় করার লক্ষবস্তুতে পরিণত করার মধ্য দিয়ে যে “স্বাস্থ্য ইস্যু”কে সামনে এনেছে – তা মোকাবেলা করাই হবে বিএমএ-র কঠিন চ্যালেঞ্জ ।


“স্বাস্থ্য ইস্যু নিয়ে রাজনীতি”-- এ বিষয় নিয়ে বিএমএ-র কাজ করার কোন বিকল্প নাই, এটিই প্রধানতম কাজ। সংকট হল, সমকালীন যে রাজনীতি স্বাস্থ্য ইস্যুকে সামনে এনেছে সেই রাজনীতিই অতীতের কোন এক সময়ে চিকিৎসকদের কব্জা/কুক্ষিগত করার জন্য সেবক থেকে চাকর শ্রেণীতে নিয়ে এসেছে। চিকিৎসকদের রাষ্ট্রীয় শ্রেণীচ্যুতি না ঘটলে বা বিএমএ শ্রেণীচ্যুতি না ঘটাতে পারলে রাজনীতিকে শিক্ষা দেওয়া যাবে না । আগামী দিনে বিএমএ ও রাজনীতির মধ্যে দ্বন্দ্ব একটাই , কে হারবে কে জিতবে? রাজনীতি না বিএমএ ? রাষ্ট্রের এই কুক্ষিগত অবস্থা থেকে চিকিৎসকদের মুক্ত করে আনার চ্যালেঞ্জই হবে বিএমএ-র মোকাবেলার অন্যতম বিষয়। একক ও পরবর্তীতে সম্মিলিত চিকিৎসকদের মনোজাগতিক/মনস্তাত্ত্বিক ‘চিকিৎসক’ হওয়ার উপলব্ধি ও বিশ্বাসের উপর নির্ভর করছে রাজনীতির সাথে বিএমএ-র চ্যালেঞ্জের ফলাফল।

আমাদের প্রিয় ভালবাসার রাজনীতি আমাদেরকে (চিকিৎসকদের) বন্দী করে ফেলেছে। ‘চিকিৎসক পেশাজীবী’ না বানিয়ে আমলাদের অধীনে তাদেরকে অত্যাচার নির্যাতন ও শোষণের খোরাক বানিয়েছে । “জনগণের চিকিৎসক না হয়ে রাষ্ট্র-নির্ভর ঔপনিবেশিক আমলাদের শ্রেণি চিকিৎসকে’ রূপান্তরিত করেছে। এ অধঃপতন আমরা না ঠেকিয়ে রাজনীতির প্রতি আবেগ ও ভালবাসায় স্বেচ্ছায় নিজেকে সমর্পণ করেছি রাজনীতির যূপকাষ্ঠে।

সেই যূপকাষ্ঠে চিকিৎসকরা প্রতিনিয়ত বলী হচ্ছে/হবে- এটাই স্বাভাবিক।


________________________________

লেখক
ডা. বাহারুল আলম । প্রখ্যাত পেশাজীবী নেতা। লোকসেবী চিকিৎসক। সুবক্তা। সুলেখক।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।