SAHA ANTAR

Published:
2020-12-31 12:50:47 BdST

দুটি ভালবাসার কাহিনি : এক চিকিৎসকের অভিজ্ঞতা থেকে


 

ডা.শামছুল আলম

--------------------------------

আমাদের জীবনে, "তারপর" বলে একটা শব্দ আছে I

মানুষের সব গল্পে আমরা এই শব্দটা ব্যবহার করে থাকি I

দুইটা গল্প বলি I
সত্যি গল্প I

একসময় দেখবেন, এই "তারপর" শব্দটাকে খুব জরুরি মনে হবে I

প্রথম গল্প

ছেলেটার বয়স ২৮, ইঞ্জিনিয়ার I আর মেয়েটা ২৫ স্কুল টিচার I
দুইবছর সম্পর্কের পর বিয়ে করবে ঠিক করেছে I সেইদিন তারা একটু বিয়ের মার্কেটিং করতে বড় শহরে গিয়েছিলো I সেই সাথে একটু লং ড্রাইভ I ফেরার পথে ছেলেটাই ড্রাইভ করছিলো I পাশের সিটে মেয়েটা I হাইওয়েতে ১১০ কি .মি বেগে গাড়ি চলছে I আর দুজন মিলে গল্প করছে I বিয়ের প্রিপারেশন ,গেস্টের তালিকা ,হানিমুন এইসব নিয়েই কথা হচ্ছিলো I হঠাৎ মেয়েটার ইচ্ছে হলো নতুন কেনা নেকলেসটা আবার একটু দেখবে I বাক্স খুলে নিজে দেখলো এবং ছেলেটার দিকে তাকিয়ে বললো , "খুব সুন্দর তাইনা ?”

ছেলেটা শুধু এক মূহুর্তের জন্য বামে ফিরে তাকিয়ে বললো ,"আসলেই তাই “I

তারপর দৃষ্টি ফিরিয়েই ছেলেটা দেখে সামনের গাড়িটা হঠাৎ অনেক স্লো হয়ে গেছে I যখন বুঝলো গাড়িটা শক্ত ব্রেক করেও থামানো যাবে না , দ্রুত ডানে ঘুরিয়ে ওভারটেক করার চেষ্টা করেছিলো সে I কিন্তু গাড়িটা আর নিয়ন্ত্রণে রাখা যায়নি I

গল্পের এতটুকু পড়ার পর আমাদের মনে একটাই প্রশ্নই এসেছে I
সেটি হলো, তারপর ?

আমাদের খুব জানতে ইচ্ছে করছে, তারপর ছেলেটার আর মেয়েটার কি হলো ?

মেয়েটা বেঁচে গিয়েছিলো কিন্তু ছেলেটা ..

না ,মরেনি I কিন্তু বড় ধরণের ব্রেন ইনজুরির জন্য কমপ্লিট প্যারালাইসিস হয়ে যায় I জীবন বলতে এখন শুধু একটু শ্বাস -প্রশ্বাস I নড়াচড়ার আর কোনো শক্তি নেই I কথাও বলতে পারে না I চোখের দৃষ্টিটাও কেমন নির্লিপ্ত I কোনো ভাষা নেই I

ছয় বছর আগের ঘটনা I এখনো ছেলেটা একই রকম I গল্পটা সত্যি I জীবন দুইটা সত্যি I আমি নিজেই এই ছেলেটা আর মেয়েটাকে নিজের চোখে দেখেছি I অস্ট্রেলিয়ার একটা ছোট শহরের হাসপাতালে যখন ডাক্তার হিসাবে কাজ করতাম তখন তাদের সাথে আমার পরিচয় I
এখনো মেয়েটা অপেক্ষায় আছে I একদিন তার সঙ্গী উঠে দাঁড়াবে I হাসবে I কথা বলবে I

দ্বিতীয় গল্প

দোতালা বাড়ির নীচতলায় ভদ্রলোক একাই থাকতেন I ক্যান্সারে আক্রান্ত উনার স্ত্রী মারা গিয়েছেন প্রায় দুই বছর হলো I রাতে এমনিতেই উনার খুব একটা ঘুম হয়না I একদিন রাতে উপর তলায় বাচ্চাদের চিৎকার ও কান্না শুনে উনার ঘুম ভেঙে গিয়েছিলো I নিজের একমাত্র ছেলেকেই উপরে থাকতে দিয়েছিলেন I
আটাশ বছরের ছেলে, বউ আর দুই মেয়েকে নিয়ে সেখানে থাকে I

কান্নার শব্দ শুনে তিনি সিঁড়ি বেয়ে উপরে উঠে দেখতে গেলেন I

গিয়ে দেখেন, উনার ছেলে ড্রয়িং রুমে সিলিং ফ্যানের সাথে গলায় দড়ি দিয়ে ঝুলছে I

ভয়ে ও আতঙ্কে ছোট মেয়ে দুইটা কান্না করছে I
ঘরে ছেলের বউ নেই I

তারপর ?

এই "তারপর' শব্দটা এখন সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপুর্ণ I

ভদ্রলোক কে যখন এই প্রশ্ন করা হলো,
তখন উনি বললেন,

"তারপর আর কি ?
এই ঘটনা পনের বছর আগের I
এমন দৃশ্য যে মানুষকে দেখতে হয় তার বেঁচে থাকাটা আরো বেশি প্রয়োজন I
আমি নিজ হাতেই ছেলের গলার রশি খুলে নীচে নামালাম I ছোট দুইটা নাতনিকে বুকে জড়িয়ে নিলাম I
ছেলের বউ আর ফিরে আসেনি বলে, বাচ্চা দুইটাকে নিজে একাই বড় করলাম” I

এই গল্প দুইটা কষ্টের ও দুঃখের হতে পারে I
কিন্তু গল্পের শেষের দিকে মিশে আছে মানুষের গভীর ভালোবাসা , ত্যাগ ও বীরত্বের কাহিনী I

২০২০ সালে আমাদের অনেকের গল্পে কষ্ট আছে, বেদনা আছে I
কিন্তু তারপর ?

তারপর শুধু জীবনে সুখ আর শান্তি খুঁজে বেড়ালেই হবে না বরং
নতুন বছরে এই গল্পের মানুষ দুইটার মত আমাদেরকে আরো বেশি গভীর ভালোবাসা ও মমতা নিয়ে আসতে হবে I

আমাদের নতুন বছর হউক, মায়ার বছর I
ভালোবাসা ও ত্যাগের বছর I

"হ্যাপি নিউ ইয়ার"

শামছুল আলম
৩১ /১২ /২০২০

আপনার মতামত দিন:


মেডিক্যাল ক্যাম্প এর জনপ্রিয়