DR. RAZIB DEY SaRKAR

Published:
2020-09-07 20:38:56 BdST

"সেই ভেড়াগুলোর পক্ষ থেকে সংশ্লিষ্ট সবাইকে প্রণোদনাময় ধন্যবাদ জানাই"



ডা. রাজীব দে সরকার
______________________

সবিনয় ধন্যবাদ জ্ঞাপন।
করোনা মহামারীতে "লক্ষ লক্ষ টাকা" প্রণোদনা পেয়ে যাওয়া চিকিৎসকদের পক্ষ থেকে বাংলাদেশের মানুষকে ধন্যবাদ জানাই।
"টাকা না দিলে কাজে যাবো না"
"করোনার ভয়ে চিকিৎসকরা পালিয়ে গেছে"
"কোথাও ডাক্তার খুঁজে পাচ্ছেন না রোগীরা" এই সব নিউজের দেশের মানুষকে ধন্যবাদ জানাই।
"স্যার আপনেরা তো ম্যালা টাকা পাইলেন। এখন কী করবেন এই টাকা লইয়া?"
"দোস্ত তোমরা তো কয়েক লক্ষ টাকা পাইলা। পার্টি দিবা কবে?"
এই ডায়ালগ শোনা চিকিৎসক সমাজের পক্ষ থেকে নত মস্তকে আপনাদের ধন্যবাদ জানাই।
সরকার বাহাদুর যেদিন ঘোষণা দিলেন, করোনা রোগীদের সেবা প্রদান করা চিকিৎসক, সেবিকা ও সকল স্বাস্থ্য কর্মীদের প্রণোদনা দেওয়া হবে, সেই খবর ঢাক-ঢোল পিটিয়ে সারা দেশকে জানানো অকুতোভয় গণমাধ্যমকে ধন্যবাদ জানাই।
আবার সরকার বাহাদুর যেদিন কোন কারন ছাড়াই প্রণোদনার আদেশ স্থগিত করে দিলেন, সেদিন সেই খবর জনগণের কান পর্যন্ত "না পৌছে দিয়ে" মুখে কুলুপ এঁটে থাকা আপোষহীন গণমাধ্যমকে ধন্যবাদ জানাই।
করোনা রোগীদের চিকিৎসা সেবায় কোনভাবে জড়িত না থেকেও সরকারের যে সকল দপ্তর/বিভাগ করোনা্র প্রণোদনা পেয়ে গেছেন, আপনাদের কর্মনৈপুণ্যকে ধন্যবাদ জানাই। আপনাদের পেশাজীবী নেতাদেরও ধন্যবাদ জানাই।
১৭ কোটি করোনা যোদ্ধার দেশের সবাইকে আমাদের নতঃশির কৃতজ্ঞতা।
সাধারণ জনগণকে অন্ধ করে রাখার একটা রাজনৈতিক থিওরী পড়েছিলাম। আমাদের জনগণকে অবশ্য অন্ধ করে রাখতে হয় না। তারা অন্ধ থাকতেই পছন্দ করেন।
অন্ধ হয়ে থাকলেই
প্রলয় বন্ধ হয়ে থাকে না।
অনেক কঠিন কথা হয়ে যাচ্ছে।
এর থেকে বরং একটা গল্প বলি। বোধ হয় ঈশপের গল্প, অনেক আগে শুনেছিলাম।
অনেক কাল আগে একজন অন্ধ দার্শনিক ছিলেন। তিনি যে কোন কিছু স্পর্শ করে বলে দিতে পারতেন সেটা কী জিনিস।
তো এক মেষবালক তার এই ক্ষমতা পরীক্ষা করার ইচ্ছা পোষণ করলো।
সে অন্ধের হাতে তার খামার থেকে একটা বুড়ো বয়সের "ভেড়া" তুলে দিলো। অন্ধ দার্শনিক কিছুক্ষণ হাতিয়ে বলে দিলেন - এটা একটা ভেড়া।
এরপরে ঐ বালক অন্ধের হাতে আরেকটা কচি বয়সের বাচ্চা ভেড়া তুলে দিলো। অন্ধ দার্শনিক কিছুক্ষণ হাতিয়ে বলে দিলেন - এটা একটা ভেড়া।
এরপর মেষবালক অন্ধ দার্শনিক এর হাতে তুলে দিলো একটা ছোট্ট নেকড়ে। অন্ধ দার্শনিক নেকড়ের পিঠে হাত বোলালেন, মুখে হাত বোলালেন, পায়ের নখে হাত বোলালেন আর শেষে আস্তে করে এটাকে কোল থেকে নামিয়ে দিলেন।
এবং মৌনতা ভেঙ্গে বললেন, আমি জানি না এটা কি। তবে এতোটুকু জানি, এটাকে খোলা ছেড়ে রাখলে ভেড়াগুলোর সর্বনাশ হয়ে যাবে।
গল্প শেষ।
ঐ ভেড়াগুলোর পক্ষ থেকে সংশ্লিষ্ট সবাইকে #প্রণোদনাময়_ধন্যবাদ জানাই।

__________________________

ডা. রাজীব দে সরকার
চিকিৎসক কলামিস্ট লেখক

আপনার মতামত দিন:


মেডিক্যাল ক্যাম্প এর জনপ্রিয়