Ameen Qudir

Published:
2020-04-06 16:22:34 BdST

অর্থমন্ত্রীর কাছে ডা. ফয়সল ইকবাল চৌধুরীর খোলা চিঠি



ডা. ফয়সল ইকবাল চৌধুরী
চট্টগ্রাম বিএমএর সাধারণ সম্পাদক ও
জনপ্রিয় পেশাজীবি নেতা
_______________________

মাননীয় অর্থমন্ত্রী,
করোনা পরবর্তী বেঁচে থাকলে জিডিপি ৮, বা অর্থনীতি কত শক্তিশালী হবে তা চিন্তা করা যেত, কিভাব মহাদুর্যোগ মোকাবেলা করব, যারা এই যুদ্ধে সন্মুখযোদ্ধা সেই স্বাস্থ্যসেবার সাথে জড়িত সুইপার থেকে চিকিৎসক দের একটা ধন্যবাদ পর্যন্ত নাই, যেখানে সকল সরকারি বেসরকারি কর্মকর্তা কর্মচারিরা ২৫ মার্চ থেকে সাধারন ছুটি ভোগ করছেন সেখানে নিজেরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে চিকিৎসা সেবা কর্মী আর নিরাপত্তা বাহিনীর সকল সদস্য দিনরাত জাতিকে সেবা দিয়ে যাচ্ছেন, তারা কি একটা ধন্যবাদ পাওয়ার যোগ্যতা ও রাখে না?
যেখানে ভারতের প্রধান মন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির চিকিৎসা সেবা য় জড়িত দের জন্য ৫০ লক্ষ টাকার বীমা ঘোষনা করেছেন, যেখানে দিল্লীর মুখ্যমন্ত্রী কেজরিওয়াল চিকিৎসা সেবায় নিয়োজিত সুইপার থেকে চিকিৎসকদের পাঁচতারকা হোটেলে থাকা খাওযার ব্যবস্হা করেছেন, সেখানে আমাদের দেশে করোনা চিকিৎসা সেবায় নিয়োজিত আমরা কোন ঝুঁকি ভাতা,বা বীমার দাবী করি নাই , অথচ যারা ঘরে বসে পরিবার পরিজন নিয়ে সাধারন ছুটি কাটাচ্ছেন তাদের অনেকেই প্রনোদনা চান,অনেকে ভয়ে হাসপাতালে আসেন না নিউজ কাভার করতে ওনারা ও প্রনোদনা চান এডভোকেট ভাইয়েরা ও প্রনোদনা চান । সত্যি বিচিত্র এই জাতি? আমরা কোন প্রনোদনা চাই না, কিন্তু চট্টগ্রামের করোনা চিকিৎসা সেবায় নিয়োজিত যে সকল চিকিৎসক, নার্স ওয়ার্ডবয়, সুইপার যারা পরিবার পরিজন ছেড়ে ২১ দিনের জন্য হাসপাতাল, ও লোাকপ্রশাসন কেন্দ্রে অবস্হান করছেন বা ভবিষ্যতে করবেন তাদের খাওয়া দাওয়ার কি ব্যবস্হা করেছেন, চট্টগ্রাম সহ সারাদেশের করোনা চিকিৎসা সেবায় নিয়োজিত চিকিৎসা সেবা কর্মীরা এভাবে পরিবার পরিজন ছেড়ে হাসপাতাল আর কোয়ারান্টাইন এর নির্ধারিত স্হানে অবস্হান কালীন সময়ে তাদের জন্য ৭২ হাজার ৫০০ কোটি টাকার যে প্রনোদনার কথা মাননীয অর্থমন্ত্রী ঘোষনা করেছেন তা থেকে কত টাকা বরাদ্ব রেখেছেন? আমার চট্টগ্রামের করোনা চিকিৎসা সেবা প্রদানকারী ১৭ জনের টীমের জন্য কিছুই মেলেনি শুনেছি,। তাদের খাওয়া দাওয়ার জন্য বিভাগীয় করোনা প্রতিরোধ কমিটি থেকেও কিছু মেলেনি, । যতটুকু জানতে পেরেছি আমার সেই স্বাস্হ্যসেবা কর্মীদের জন্য জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক মহোদয় হাসপাতালে রোগীদের জন্য রান্না করার বাবুর্চি দিয়ে রান্না করিয়ে মোটা চালের ভাত এর খাওয়ার ব্যবস্হা করেছেন কিন্তু সকালের কোন নাস্তার ব্যবস্হা করা হয় নাই, আমরা ভারতীয় দের মত পাঁচতারকা হোটেলে থাকা বা খাওয়া চাই না, নুন্যতম সুযোগ সুবিধার ব্যবস্হা চাই? প্রনোদনা কি শুধু লুটেরাদের জন্য? যারা করোনা যুদ্বে জীবনবাজি রেখে সন্মুখযোদ্বা, ও নিরাপত্তার কাজে নিয়োজিত তাদের জন্য কি বরাদ্দ রেখেছেন? এই যুদ্বে কোন চিকিৎসক বা চিকিৎসা সেবা কর্মী, বা নিরাপত্তায় নিয়োজিত নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্য কর্তব্যরত অবস্হায় করোনা ভাইরাস আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু বরন করলে তার পরিবার বা তার জন্য কি কিছুই থাকবে না? বড্ডই হতাশ হলাম মাননীয় অর্থমন্ত্রী আপনাদের র এই প্রনোদনা তেলা মাথায় তেল দেয়া ছাড়া আর কি?
আমরা চিকিৎসা সেবায় নিয়োজিত সকল সেবা কর্মীদের যথাযথ সন্মান ও সুরক্ষা চাই? আগে করোনা যুদ্বে জয়ী হতে এই মূহুর্তে যত বরাদ্দ লাগে সেটার ব্যবস্হা করে বাঁচতে দিন তারপর জিডিপি বা অর্থনীতির চাকার কথা চিন্তা করা যাবে।
১৯৭১সালে যুদ্ধ পরবর্তী বিধ্বস্হ এই দেশ জাতির জনক বঙ্গবন্ধু র নেতৃত্বে যেভাবে আমরা পূনর্গঠন করেছি, করোনা যুদ্বে জয়ী হয়ে বেঁচে থাকলে ইনশাআল্লাহ জননেত্রী শেখহাসিনার নেতৃত্বে জিডিপি ৮ কেন ৯ এ ও উন্নীত হতে পারে।
সবাই ঘরে থাকুন, সুস্হ থাকুন, নিরাপদে থাকুন, চিকিৎসককে সঠিক তথ্য দিন, কোন কিছু গোপন করবেন না, আপনাদের সহযোগিতায় ইনশাআল্লাহ আমরা করোনা যুদ্বে জয়ী হবোই।
জয়বাংলা
জয়বঙ্গবন্ধু।

আপনার মতামত দিন:


মেডিক্যাল ক্যাম্প এর জনপ্রিয়