Ameen Qudir

Published:
2019-10-06 10:43:35 BdST

ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে সিওমেক ডাক্তার গুরুতর আহত : বিক্ষুব্ধ সিলেটবাসী



ডেস্ক
___________________


ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে গুরুতর আহত হয়েছেন সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ (সিওমেক) হাসপাতালের ইন্টার্ন চিকিৎসক আফসারা তাসনিম মম। ৪ অক্টোবর ২০১৯ রাত সোয়া ৯টার দিকে সিলেট রেলস্টেশন এলাকায় ঘটনা ঘটে।
এক লোক তাকে আহত অবস্থায় ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে জরুরি ভিত্তিতে তার অস্ত্রোপচার হয়। এ ঘটনায় বিক্ষুব্ধ সিলেটের সাধারণ মানুষ সহ ডাক্তাররা। তাদের মতে, এই ঘটনা সিলেটের জন্য কলঙ্ক। আইন শৃঙ্খলা এত শোচনীয় কেন! সিলেট শহর কি আর শিক্ষার্থীদের জন্য নিরাপদ নয়! অনেকের মতে, সিলেটকে কলঙ্কিত করতে জঙ্গী ছিনতাইকারীরা এ ঘটনা ঘটায়।

তার স্বামী চট্টগ্রাম মেরিন সিটি মেডিকেল কলেজ অ্যান্ড হাসপাতালের ফিজিওলজি ডিপার্টমেন্টের লেকচারার ডা. তানভীর চৌধুরী । তিনি এবং স্বজনরা মিডিয়াকে জানান, তাসনিম মমর মুখ ও দুই হাত জখম হয়েছে। তবে অপারেশনের পর তার অবস্থা কিছুটা ভালো। বর্তমানে আশঙ্কামুক্ত।

মমর বাড়ি চট্টগ্রামের মীরসরাইয়ে। তিনি সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজের ৫২তম ব্যাচের শির্ক্ষাথী।
স্বজন ও সহশিক্ষার্থীরা জানান, ‘ একজন বান্ধবীকে গাড়িতে তুলে দিয়ে হলে ফেরার পথে ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে মারাত্মকভাবে আহত হয় মম। প্রচুর রক্তক্ষরণে ভেইন কলাপ্স হয়ে যাচ্ছে তার। অপারেশন থিয়েটারে জরুরি ভিত্তিতে জেনারেল সার্জারি, অর্থোপেডিক সার্জারি ও নাক কান গলা বিভাগের স্যারদের তত্ত্বাবধানে তার অস্ত্রোপচার হয়েছে।

ফেসবুকে সহমর্মীরা লেখেন, মানুষ কতটা নৃশংস, জানোয়ারে পরিণত হলে আরেকজন মানুষকে এভাবে আঘাত করতে পারে তা মমর অবস্থা না দেখলে বুঝতাম না।
গোপালগঞ্জ মুকসুদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার ডা. নাজিরুম মুবিন ফেসবুকে নিজের টাইমলাইনে লিখেন, ‘সিলেট শহর নাকি ডিজিটাল শহর। প্রতি মোড়ে মোড়ে সিসিটিভি ক্যামেরা। শহরের প্রতিটি নাগরিককে নাকি ট্রেস করা সম্ভব। এরপরেও দুই দিন পর পর একই জায়গায় ছিনতাই হয়। নিরপরাধ মানুষ আহত হয়, নিহত হয়।’
তিনি আরও বলেন, ‘২০১৭ এর মার্চে একই জায়গায় মাহিদ মারা গেল ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে। আজ আবার ৫২ ব্যাচের এক মেয়ে গুরুতর আহত৷
সিলেট শহর এমন ছিল না জানিয়ে তিনি বলেন, ‘একসময়ে ছিনতাই কি এই শহরের মানুষ জানতো না। রাত দশটা এগারোটার সময় মহিলারা গহনা গায়ে কোনো অনুষ্ঠান শেষে বাসায় ফিরেছে। কোন ভয় ছিলো না৷আর এখন..., এই শহরটাও নষ্ট হয়ে গেলো।’

আপনার মতামত দিন:


মেডিক্যাল ক্যাম্প এর জনপ্রিয়