Ameen Qudir

Published:
2019-04-15 12:59:06 BdST

প্রধানমন্ত্রী তাতে কি! প্রিয় গ্যালারিতে আবারও সেই বিনম্র ছাত্রটি কয়েক সারি পেছনেই বসলেন


 

ডাক্তার প্রতিদিন ডেস্ক
________________________


উপমহাদেশের একটি রাষ্ট্রের ক্ষমতাধর প্রধানমন্ত্রী তিনি। তাতে কি! ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজের শিক্ষার্থী গ্যালারিতে বর্ষশুরুর দিনে তিনি ছিলেন মেধাবী সজ্জন সুবোধ ছাত্রদেরই একজন। গ্যালারিতে সামনে বসার জন্য কোন রকম গরিমা দেখান নি। ১৪ এপ্রিল প্রধানমন্ত্রী ডা. লোটে শেরিং বরাবরের মত গ্যালারিতে বসলেন কয়েক সারি পরেই। অনন্য বিনয় তার। অনন্য তার ব্যাক্তিত্বের বিনম্র গরিমা।
তিন দশক পর পুরোনো বন্ধুদের দেখে আবেগে আপ্লুত হলেন ভুটানের প্রধানমন্ত্রী ডা. লোটে শেরিং। ময়মনসিংহে নিজের সেই পরম প্রিয় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজের ক্যাম্পাসে তিনি অনেক বছর পর ফিরে বন্ধু, সহপাঠী আর শিক্ষকদের ভালোবাসায় সিক্ত হলেন তিনি।

 


বন্ধু-সহপাঠীদের মাঝে সস্ত্রীক লোটে শেরিং-----------------

ময়মনসিংহ মেডিকেলের তার সান্নিধ্য ধন্য প্রাক্তন শিক্ষার্থী ডা. অসিত মজুমদার এক লেখায় জানান, বন্ধু ডা. লোটে শেরিং, ভুটানের প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশে চারদিনের রাষ্ট্রীয় সফরে বাংলাদেশে অবস্থানের তৃতীয় দিনে আজ রবিবার ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজে ডা. লোটে শেরিং এর ম- ২৮ তম ব্যাচের এক সম্মীলন ঘটে। দীর্ঘ দিনের প্রতীক্ষা, উচ্ছ্বাস, আবেগ আর ভালবাসা দিয়ে আমরা তাঁকে বরণ করি। আমাদের সঙ্গে বন্ধূত্বপূর্ণ পরিবেশে একান্ত আলাপ আলাপচারিতায় ডা. লোটে শেরিং বলেন আমাদের আগে ভাল মানুষ হতে হবে।

বন্ধু ডা. লোটে শেরিং আমাদের সঙ্গে ছিলেন সাত বছর। দীর্ঘ বিশ বছরের ব্যবধানেও তাঁর আবেগ অনুভূতি এতটুকু কমেনি। এত রাষ্ট্রীয় প্রটোকলের মাঝেও সবার সঙ্গে চোখে চোখে বা কারও সঙ্গে হ্যান্ডশেক করে নিজের অনুভূতি প্রকাশ করেন। ডা. লোটে শেরিং ছাত্রজীবনের সেই গ্যালারীতে পুরনো বন্ধুদের সঙ্গে একসাথে আগেরমত বসে স্মৃতি রোমন্থন করেন।

আপনার মতামত দিন:


মেডিক্যাল ক্যাম্প এর জনপ্রিয়