ডেস্ক

Published:
2021-04-30 09:07:36 BdST

ইউরোপ-আমেরিকার জীবন ছেড়ে স্বরূপকাঠির পল্লীতে বসে বিশ্বজুড়ে কাজ করছেন যে উদ্যোক্তা


 

ডেস্ক 
-----------------------------------

বাংলাদেশের জীবনানন্দ শিল্পাচার্য, কেউ জানে না তাঁর বিচিত্র সব সাফল্যের কথা।
নাজমুল আমিন। বাংলা দেশের নিভৃতচারী শিল্পাচার্য, যেমন লোকশিল্পে, তেমনি জীবন যাপন শিল্পে।
একজন চিত্রশিল্পী হিসেবে অদ্ভুত ভাবে তিনি স্বশিক্ষিত। নিজেই এঁকে এঁকে বরেণ্য শিল্পী। অন্তর্জাতিক অসংখ্য প্রকাশনার তিনি নন্দিত চিত্রকর,প্রচ্ছদ কার।
সাফল্যের যে সোনালী সময়ে সবাই টাকা পয়সা সম্পদ গুটিয়ে পাড়ি দেয় প্রবাসে, ইউরোপ আমেরিকায়, তখন তিনি রাজধানী ঢাকার বিশাল অট্টালিকার জীবন ছেড়ে পাড়ি দেন নিজ গ্রাম স্বরুপকাঠিতে।
ভ্রমণ জন্নাত স্বরূপকাঠিতে গড়ে তোলেন স্বপ্নের শিল্প গ্রাম। নিজ স্বর্গ। প্রান্তিক স্বরুপকাঠির পাখি ডাকা, জলে ও শিশিরের আজান ভরা শিল্প বাড়ি থেকে যোগাযোগ রক্ষা করছেন সারা বিশ্বর সঙ্গে। কাজ করছেন বিশ্ব জুড়ে।
অবিশ্বাস্য হলেও সত্য।
এভাবেই ভেতরে ভেতরে বদলে যাচ্ছে বাংলাদেশ।
ধর্মচক্র ধারী দুশ্চরিত্র আল্লামা মামুনুল হক, বিজনেস টাইকুন যৌনবীরদের কদর্য কুৎসিত মলময়জীবনের প্রোপাগাণ্ডার আড়ালে নাজমুল আমিনরা বদলাচ্ছেন বাংলাদেশকে।
সেসব খবর আগামীর গার্ডিয়ান পত্রিকার জন্য তোলা থাক।

নাজমুল আমিন। শিল্প সংগ্রাহক। দুই বাংলা সহ ভারতবর্ষের মধ্যে অন্যতম শীর্ষ এন্টিক গ্রামোফোন রেকর্ড সংগ্রাহক তিনি।
এন্টিক রেকর্ডের কথা শুনলেই ছুটে যান তিনি। শুনতে, দেখতে, কিংবা সংগ্রহ করতে। তা ভারতবর্ষের যে মুল্লুকের হোক। যে দামেরই হোক।

এমন নানা বিচিত্র শখ, শিল্প কাজকর্ম, অন্তর্জাল সওদাগরি বেসাতি তিনি করে চলেছেন স্বরূপকাঠির স্বগ্রামে বাস করেই।

ও হ্যা, এই শিল্পী রাজর্ষীর পরিবার ও স্বরূপকাঠিতে। সন্তানরা ভিনদেশের বরফ কুঁচি নয়, বড় হচ্ছে জীবনানন্দ দাশের রূপসী বাংলা র মুখ প্রতি দিন দেখে।

অদ্ভুত জীবন দার্শনিক শিল্পী নাজমুল আমিনের আজ জন্মদিন।
তার সঙ্গীতশিল্পী জীবনসঙ্গী রোখসানা আমিন এ লগ্নে লিখেছেন, আমার সুখে যে সুখি, আমার দুঃখে যে দুখি হতো সবসময়। যে আমাকে প্রতিটা পদক্ষেপে সাহস যুগিয়েছে ভালো ভাবে বাঁচার জন্য। যার কাছে আমি আমার মনের কথা খুব সহজেই বলতে পারি। চৌদ্দটা বছর একসাথে কাটিয়েছি সেই প্রিয় মানুষটির সাথে। আজ তার জন্মদিন। এই জন্মদিনে আমার একটাই চাওয়া। সবসময় যেন প্রিয় মানুষটির প্রিয় হয়ে থাকতে পারি। এভাবেই যেন জীবনের বাকিটা পথ হাসি আনন্দে কাটাতে পারি। শুভ জন্মদিন প্রিয়।

আপনার মতামত দিন:


মানুষের জন্য এর জনপ্রিয়