Dr. Aminul Islam

Published:
2020-12-31 13:49:43 BdST

নতুন বছরের প্রেসক্রিপশন : বাদ দিন পিএনপিসি


 

অধ্যাপক ডা শুভাগত চৌধুরী 

-------------------------------------

২০২১ সালে কেবল পজিটিভ চিন্তা

আমাদের মগজে নেতিবাচক আর ইতিবাচক দুই ধরনের ভাবনা কাজ করে , নেতিবাচকের জীবন শক্তি বেশি এজন্য আমরা হুমকির অতি মুল্যায়ণ করি আর নিজের শক্তি আর একে অতিক্রম করার ক্ষমতার অবমূল্যায়ন করি। বাদ দিন পিএনপিসি ( পরনিন্দা, পরচর্চা)। 
১। দুর্বিপাকের বিধ্বংসী প্রভাবের চেয়ে একে অতিক্রম করার যৌথ প্রয়াস কে মনে করি । মনে করি এই দুর্যোগ কিভাবে পৃথিবীর সব মানুষ কে একত্র করল , একে অপরকে সাহায্য করার প্রয়াস , স্বেচ্ছা সেবী কাজ ,ডাক্তার স্বাস্থ্য কর্মী , প্রথম সারির অন্যান্য করোনা যোদ্ধাদের নিজের স্বার্থ ত্যাগ করে সেবা দান, সঙ্ঘবদ্ধ নিঃস্বার্থ কর্মের দৃষ্টান্ত স্থাপন , বৈজ্ঞানিক গবেষণা র দ্রুতি , প্রযুক্তির নব কল্যাণ কর রুপে আগমন ।
২। দুঃসময় কে জীবনের এক পরীক্ষা আর সুযোগ মনে করি ।
এই দুঃসময়কে কি কোন ভাবে নিজেদের সুবিধা হিসাবে দেখতে পারি? আছে কোন ইতিবাচক কিছু? ঘুরে দাঁড়াব কি ভাবে? জীবনের ঘর বন্দী একাকী সময়কে কি আত্ম প্রতিফলনের কাল হিসাবে দেখতে পারি / এই সময় কি ব্যয় করতে পারি আগামী বছরের অঙ্গিকার ভাবার কাল হিসাবে ? ২০২০ সালের শিক্ষাকে কি কাজে লাগাতে পারি ২০২১ সালের কর্ম স্থির করার উৎস হিসাবে ? কি কি সুযোগ আমরা দেখি ?
৩। কৃতজ্ঞতা প্রকাশ চর্চা করুন।
জীবনের বড় ক্যানভাসে ছবি আঁকি অন্যরকম , ভয় , আতংক , উদ্বেগের সীমা ছাড়িয়ে দেখি। জীবন খাতার গত বছরের প্রতি পাতা উল্টিয়ে দেখি ।
প্যান ডে মিক জীবনের চিরাচরিত কিছু কাজ করা থেকে বিরত করেছিলো , মনে করুন সেই সব মানুষদের যারা দুঃসময়ে পাশে এসে দাড়িয়ে ছিল , তাদের প্রতি কৃতজ্ঞ তা প্রকাশ করুন। আপনার বিষণ্ণ কাল আর ভয়ংকর বিপদের কাল ছাপিয়ে অঝোর ধারে পড়ুক কৃতজ্ঞ তার শান্তি বারি ।
৪। ২০২০ হোকজীবন শিক্ষার বছর , দুঃখ ভোগের কাল নয় ।
ভাবি সে সময় কি কি শিক্ষা দিয়েছিলো এসব শিক্ষা সামনে চলার পথে বাধা না হয়ে সামনে এগোনোর পথে পা ফেলার সিঁড়ি হোক । ২০২০ সালের দুর্বিপাক কে ঘটনা হিসাবে দেখি নিজের দুর্ভোগ হিসাবে কেন ? এতো সবার জন্য এসেছিলো /?
৫। সুযোগ খুজুন। \সব নেতিবাচক না ভেবে সুযোগ খুজুন ভাল কিছু করার একটি নতুন উদ্ভাবনের , এক সৃজন শী কর্মের । নিতে পারেন ছোট ছোট ঝুঁকি ।
৬। পরিস্থিতির জন্য সব কেন বন্ধ হবে।
কেন হবেনা অফিসে পদোন্নতি , নেতিবাচক ভাবনা জীবনের প্রতি পুরো দৃষ্টি ভঙ্গী পাল্টে দেবে কেন? ক্যারিয়ারের অগ্রসর কেন থামবে ? হয়ত এই দুর্বিপাকে বন্ধ হয়ে ছিল কিছু কাল কিন্তু এতো স্থায়ী নয় আর সাফল্যের ত রয়েছে নানা পথ।
৭। নজর দিন সমাধানের দিকে সমস্যার দিকে নয়।
মনের নেতিবাচক প্রশ্রয় সমাস্যর দিকে মন নিবদ্ধ করবে কিন্তু চাইতে হবে সমাধানের দিকে , মগজ খেলিয়ে দেখতে হবে অসংখ্য সম্ভাবনা ওআইড এঙ্গল লেন্স দিয়ে দেখুন অনেক সম্ভাবনা।
৮। চর্চা করুন ইতিবাচক আত্ম কথন ।
দুঃসময়ে আপনার সব চেয়ে ভাল বন্ধুর প্রতি যেমন সদয় হবেন তেমনি সদয় হবেন নিজের প্রতি। নিজের শক্তি আর বিজয় উদযাপন করুন। নিজেকে নিদারুন প্রহার করা থেকে বিরত থাকুন, সমালোচনাকে সহানুভূতির পরশ দিন। আপনার ভেতরের শক্তির বিবেচনা হোক স্মরণ করার বিষয় আর এদের কাজে লাগানো ।
৯। একাকীত্ব আর নির্জনতা হোক চর্চার বিষয় ।
একাকীত্ব আত্মাকে দেয় শান্তি। প্রতিদিনের ইদুর দৌড় থেকে মনকে বের করে এনে দিনপাত কে দেখুন পাখির চোখে , কোলাহল ত বারন হল শান্তির পরশে। দিনে একাকি নির্জনে থাকুন অন্তত ৫ মিনিট । ধ্যান করুন। প্রার্থনা করুন। ইয়গা করুন। প্রকৃতির দিকে তাকান। আপনার চেয়ে বৃহৎ কিছু কল্পনা করুন ।
১০। নতুন দিন হোক শুরু ।
প্রতি ক্ষয় আর হানির মধ্যে লুকিয়ে থাকে অর্জনের ছিটে ফোটা । পড়ে গেলেন কয়েক বার কিন্তু এর পর একবার উঠে দাঁড়াবেন বটে । একজন বিখ্যাত বেস বল খেলোয়াড় বলেছিলেন , It is hard to beat a person who never gives up "
২০২১ সালে আমরা নিয়ে যাব ইতিবাচক দৃষ্টি ভঙ্গী । মনে রাখুন কংক্রিটের ফাক দিয়ে গজিয়ে উঠে ঘাস। আমরা নিজেরা স্থিতিস্থাপক বন্ধনীর মত , আমরা বাকিয়ে যাই ভাঙ্গিনা , আমরা প্রসারিত হয়ে আবার ফিরে আসি আগের স্থানে, আমরা ঘুরে দাড়াই ।।আমরা করব জয়।

আপনার মতামত দিন:


মানুষের জন্য এর জনপ্রিয়