Dr. SAYEED ENAM

Published:
2020-12-13 19:25:39 BdST

একজন সাইকিয়াট্রিস্ট এর মেডিসিন এ নোবেল জয়



ডা. সাঈদ এনাম

________________________

সিফিলিস রোগীদের এক পর্যায়ে ব্রেইনে ইনফেকশন হয় এবং নিউরো-সিফিলিস দেখা দেয়। এই নিউরো-সিফিলিসের প্রভাবে রোগীর কিছু মানসিক উপসর্গ তীব্র হয়ে উঠে। তাদের মধ্যে ডিপ্রেশন, এনজাইটি, উত্তেজনা, একা একা কথা বলা, ভয়ভীতি, ভুলে যাওয়া মারাত্মক হয়ে উঠে।
তখনকার সময়ে এ সমস্থ মানসিক সিমটম চিকিৎসায় কার্যকরী কোন চিকিৎসা ছিলোনা।
তাদের কে মানসিক হাসপাতালে রেখে প্রচলিত চিকিৎসা দেওয়া হতো।
একদিন এক নিউরো-সিফিলিস রোগীর প্রচন্ড জ্বর হয় এবং তিন চারদিন স্থায়ী। রোগীদের জ্বর নেমে গেলে সাইকিয়াট্রিস্ট জুলিয়াস ওয়াগনার লক্ষ্য করলেন তার মানসিক রোগের উপসর্গ গুলো ও কমে গেছে।

জ্বরের প্রভাবে মানসিক রোগের উপসর্গ নিরাময় হয় এই বিষয়ের উপর তিনি গবেষণা শুরু করেন। এক পর্যায়ে তিনি রোগিদের মানসিক উপসর্গ নিরাময়ে তাদের শরীরে ইচ্চাকৃত ভাবে জ্বর উৎপাদনকারী ম্যালেরিয়া রোগের জীবানু প্রবেশ করিয়ে দিতে থাকেন।

এতে দেখা যেতো রোগীর ম্যালেরিয়া জ্বর হতো এবং জ্বরের পর তাদের মানসিক সিমটম গুলো থাকতো না।

তিনি তার এই উদ্ভাবিত পদ্ধতির নাম দেন ম্যালেরিয়া থেরাপি বা পাইরোথেরাপী।

কালক্রমে নিউরো-সিফিলিস এর জন্যে সৃষ্ট মানসিক উপসর্গ নিরাময়ে এমনকি ব্রেইনের অন্যান্য সমস্যায় সৃষ্ট মানসিক রোগের চিকিৎসায় সাইকিয়াট্রিস্ট ডা. জুলিয়াস ওয়াগনার এর ম্যালেরিয়া থেরাপি ইউরোপ আমেরিকায় ব্যাপক জনপ্রিয় হয়ে উঠে।

পাইরোথেরাপীর জন্যে ১৯২৭ সালে মেডিসিন এ নোবেল পুরষ্কার পান সাইকিয়াট্রিস্ট ডা. জুলিয়াস ওয়াগনার।

ডা. সাঈদ এনাম
সহকারী অধ্যাপক সাইকিয়াট্রি

আপনার মতামত দিন:


মানুষের জন্য এর জনপ্রিয়