রাতুল সেন

Published:
2020-05-14 16:35:31 BdST

করোনা শাসনেও অবাক নাম ভিয়েতনাম



লেখক: মীর মোনাজ হক
____________________________


সারা পৃথিতে যখন ৪৩ লক্ষ মানুষ কোভিড-১৯ রোগে আক্রান্ত ও প্রায় তিন লক্ষ মানুষ করোনা মহামারী তে মৃত্যু হয়, ভিয়েতনাম তখন পৃথিবীর প্রথম কোভিডশূন্য দেশ হিসেবে ঘোষনা দেয়। মোট ২৮৮ জন আক্রান্ত হলেও একজনেরও মৃত্যু হয়নি দেশটিতে, আজ শেষ ১২ জন পজিটিভ আক্রান্ত মানুষও সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরলো।

চীনের সাথে গা ঘেঁষাঘেঁষি করে টনকিন উপসাগর আর ১১০০ কিলোমিটার স্থলসীমান্ত ভাগ করে নেওয়া সাড়ে ন'কোটি মানুষের দেশে লকডাউন উঠে যাচ্ছে আজ থেকে।

সব মিলিয়ে ২৮৮ জন কোভিড পজিটিভ রোগী বাড়ি গেছেন সুস্থ হয়ে—একজনও মারা যাননি। একটা রিপোর্টও লুকাতে হয়নি সরকারের। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৮৮ বছরের বৃদ্ধাও।

একজন ডাক্তার স্বাস্থ্যকর্মীও মারা যাননি চিকিৎসা-সরঞ্জামের অভাবে। একটা লোকও খিদের জ্বালায় মরেনি, রাস্তায় চালের জন্য দাঙ্গা হয়নি, সরকারি দল ত্রান-সামগী দানের নামে লুটপাট করেনি।

১৯৯৭ সালে আমি ৪ সপ্তাহ হলিডে কাটিয়েছি ভিয়েতনামে। একটা কর্মঠ সুশৃঙ্খল জতি। হ্যানয়ে দেখেছি প্রতিদিন ভোরবেলা প্রায় সকল নগরবাসী জগিং অথবা যোগব্যায়াম করেন পার্কে বা জলাশয় এর পার্শে এবং সাইকেলে চলাফেরা করেন, প্রতিটি শহরেই একই দৃশ্য উত্তর থেকে দক্ষিণে লম্বা পথ পাড়ি দিয়েছি বাসে চড়ে প্রতিদিন রাত্রে, আর দিনে এক একটি নতুন শহরে ঘুড়েছি, এমনকি সায়গন (হো-চি-মিন সিটি) শহরেও হাজার হাজার মানুষ সকালে যোগব্যায়াম করে। সম্ভবত, এই যোগব্যায়ামই তাদেরকে সুস্থ রেখেছে।

ভিয়েতনামের জনগন স্বল্প ক্ষমতায়, নিজেদের সাধ্যমত স্বাস্থ্য-পরিকাঠামো নিয়ে লড়াই করে নিজেদেরকে সুস্থ রেখেও চার লাখ PPE তৈরি করে পাঠিয়েছে সেই আমেরিকায়, যারা ১৯৬৫ থেকে ১৯৭৫ রোজ সকালে ন্যাপাম বোমা ফেলে হত্যা করতো বৃদ্ধ ও শিশুদেরকে। বেশি দিনের আগের কথা নয় মাত্র ৪৫ বছর আগের কাহিনী। আমাদের মুক্তিযুদ্ধর ও ৫ বছর পরে শেষ মার্কিন সৈন্যকে তাড়িয়েছে দেশ থেকে। কাজেকাজেই এই দেশটার কথা আর একবার লিখতেই হয়, কারণ আমরা বাঙ্গালিরা পারিনি স্বাধিনতার মুল্য ধরে রাখতে, লুটপাট করতে করতে বাঙ্গালি দের নৈতিক স্খলন এতো নিচে নেমেছে যে করোনা মহামারীর ত্রান সামগ্রী চুরি করতেও ক্ষমতাসীন দলের লোকেরা লজ্জাবোধ করেনা।

তাই আজ ভিয়েতনামের জন্যেই বিজয়ের স্লোগান দিতে হয় - জয় ভিয়েতনামের জয়!"

AD..

 

আপনার মতামত দিন:


মানুষের জন্য এর জনপ্রিয়