Ameen Qudir

Published:
2020-02-14 17:47:13 BdST

১৪ ফেব্রুয়ারির অগ্নিঝরা বিপ্লবী ইতিহাসের কথা স্মরণ করলেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক


ডেস্ক
______________________

১৪ ফেব্রুয়ারির অগ্নিঝরা বিপ্লবী ইতিহাসের কথা স্মরণ করলেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক গৌতম রায়। তিনি জানান, স্বৈরাচার এরশাদবিরোধী আন্দোলনের ধারাবাহিকতায় ছাত্র সংগ্রাম পরিষদ ১৪ ফেব্রুয়ারি বিক্ষোভ কর্মসূচি ঘোষণা দেয়। ছাত্রজনতার মিছিল যখন সচিবালয়ের দিকে স্মারকলিপি পেশ করতে যায়, তখন পুলিশের গুলিতে নিহত হন জাফর, জয়নাল, দিপালী, কাঞ্চন, আইয়ুব, ফারুক প্রমুখ। সরকারি প্রেসনোটে ১ জনের মৃত্যুর কথা বলা হলেও প্রত্যক্ষদর্শীরা অন্তত ১০ জনের মৃত্যুর কথা জানান। আহত অগুনতি, গ্রেফতার অগুনতি। সংঘর্ষ হয় পরেরদিনও। আরও মারা যায়।
এখানে গৌতম রায়ের পুরো লেখা প্রকাশ হল।
১৪ ফেব্রুয়ারি ভালোবাসা দিবস।

কে কাকে কোন দিন ভালোবাসবেন, তা প্রত্যেকের নিজস্ব বিষয়। তাই ১৪ ফেব্রুয়ারিতেও ভালোবাসতে কোনো বিধিনিষেধ নেই। শুধু তিনটি মিনিট ব্যয় করে নিচের কয়েকটা লাইন আপনাকে পড়তে অনুরোধ জানাই।

১৯৮২ সালের ২৩ সেপ্টেম্বর থেকে ১৯৮৩ সালের ২৯ জানুয়ারি পর্যন্ত তৎকালীন স্বৈরশাসক এরশাদের শিক্ষামন্ত্রী ড. আবদুল মজিদ খান দেশের শিক্ষাব্যবস্থা নিয়ে কিছু প্রস্তাব পেশ করেন, যেগুলোর অন্যতম হচ্ছে শিক্ষাকে সংকুচিত করা। প্রতিবাদে ছাত্রজনতা নেমে আসে রাস্তায়, আন্দোলনের পর আন্দোলনে ভীত এরশাদ সরকার গণগ্রেফতার ও নিপীড়নের পথ বেছে নেয়। আন্দোলনের ধারাবাহিকতায় ছাত্র সংগ্রাম পরিষদ ১৪ ফেব্রুয়ারি বিক্ষোভ কর্মসূচি ঘোষণা দেয়। ছাত্রজনতার মিছিল যখন সচিবালয়ের দিকে স্মারকলিপি পেশ করতে যায়, তখন পুলিশের গুলিতে নিহত হন জাফর, জয়নাল, দিপালী, কাঞ্চন, আইয়ুব, ফারুক প্রমুখ। সরকারি প্রেসনোটে ১ জনের মৃত্যুর কথা বলা হলেও প্রত্যক্ষদর্শীরা অন্তত ১০ জনের মৃত্যুর কথা জানান। আহত অগুনতি, গ্রেফতার অগুনতি। সংঘর্ষ হয় পরেরদিনও। আরও মারা যায়। ২৭ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত সারা দেশের সমস্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকে। শেষ পর্যন্ত গণআন্দোলনের চাপে এরশাদ সরকার শিক্ষা নিয়ে ওই অবস্থান থেকে সরে আসতে বাধ্য হয়।

আমি শুধু এটুকুই ভাবতে পারি, যদি ওই উত্তাল সময়গুলোতে প্রতিবাদ না হতো, যদি আমাকে বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ে টাকা দিয়ে পড়তে হতো, যদি উচ্চশিক্ষার পথ সংকুচিত হতো - আজকে আমি যেখানে, সেখানে আসতে পারতাম না কখনওই। আমি আজকে যতোটুকু এসেছি, সেখানে আমার পিতামাতার অবদান যতোটুকু, একজন কৃষক-শ্রমিকের অবদান যতোটুকু, ওই সময়ে শিক্ষার অধিকার আদায় করতে গিয়ে যারা মারা গেছেন, তাঁদের অবদানও ততোটুকুই। সবার সম্মিলিত প্রয়াসে আজ আমি এখানে।

তাই, আজ ভালোবাসা দিবসে আমার প্রথম ভালোবাসা তাদের প্রতি, যাদের কারণে আমি উচ্চশিক্ষা নিতে পেরেছি। ১৪ ফেব্রুয়ারিতে তাদেরকে বাদ দিয়ে ভালোবাসার ব্যবসা করা আমার কাছে বেহায়াপনা মনে হয়।

সবার প্রতি ভালোবাসা। শুভ ফাগুন।

আপনার মতামত দিন:


মানুষের জন্য এর জনপ্রিয়