Ameen Qudir

Published:
2019-10-31 18:55:35 BdST

ট্র্যাফিক জ্যামে আটকে থাকলে শরীরের কি কি ক্ষতি, জানাচ্ছেন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক


 

অধ্যাপক ডা. শুভাগত চৌধুরী
বাংলাদেশের স্বাস্থ্যসাহিত্যের পথিকৃৎ
____________________________

ট্র্যাফিক জ্যামে আটকে আছেন অনেক ক্ষণ
গন্তব্যে পৌঁছানো যাচ্ছেনা সময়মত , হার্টের রোগী অপেক্ষায় কবে পৌঁছাবে ইমারজেন্সি জীবন বাঁচবে কি ? ভাবছেন সঙ্গীরা , পরীক্ষায় বসতে দেরি হচ্ছে , জরুরী মিটিং ? কি হবে ?
একজন চিকিৎসা বিজ্ঞানী বলেন , ট্র্যাফিক জ্যাম কেবল দেরি করিয়ে দিচ্ছেনা , ক্ষতি করছে স্বাস্থ্যের । এতে স্ট্রেস বাড়ে , ভায় লেন্স করার প্রবনতা বাড়ায় , সামাজিক সম্পর্ক ভেঙে দেয় , বিবাহ বিচ্ছেদের মত ঘটনা ঘটে বলে শোনা যায় , আত্মাকে শুষে নেয় ।
হার্ট এটা ক , স্ট্রোকের রোগী বিলম্বে হাসপাতালে পৌঁছানো র জন্য রোগীর বিশাল ক্ষতি হয় ,অনেকসময় সময় হয় প্রান নাশ
আর একটি গবেষণায় দেখা গেছে এতে হৃদ স্বাস্থ্যের অনেক ক্ষতি হয় । বাড়ে রক্ত চাপ , ধমনী হয় স্ফীত । আরেকটি গবেষণায় দেখা গেল যত সময় ট্র্যাফিক জ্যামে আটকে থাকবেন , স্থূল হবার সম্ভাবনা তত বাড়বে । দীর্ঘ উড়াল ভ্রমনের ফলাফল হয় তাই হতে পারে ডিপ ভেন থ্রম্বসিস আর পায়ের গুলে ব্যথা । হতে পারে বিরক্তিকর ক্লান্তি , ক্রোধ , এমনকি বিষণ্ণতা
কি করবেন /
ধৈর্য ধরুন কারন এটি আপনার নিয়ন্ত্রনের বাইরে , একে উপেক্ষা করুন , গান শুনুন , মন খুব খারাপ হলে কথা বলুন কারো সাথে , করুন ব্রিদিং এক্সারসাইজ , মনকে এ থেকে সরিয়ে এনে থাকুন শান্ত ২ নিজের সাথে যুক্ত হন , ধ্যান ক্রুন । যদি যাত্রী হন তাহলে গভীর শ্বাস নিন , নিজের সাথে যুক্ত হন । ধ্যান করুন । মন শিথিল হবে । রক্ত চাপ নেমে আসবে ।
৩। ভাল দেহ ভঙ্গীতে থাকুন । ভাল ড্রাই ভিং ভঙ্গীতে থাকলে ঘাড় আর গলার দৃঢ় হওয়া প্রতিরোধ হবে , পায়ে ব্যথা কম হবে ।
৪। সজল থাকুন আর ক্ষুধা মুক্ত থাকুন ।
৫। নতুন কিছু শিখুন । ক্যসে টে সেমিনার , বক্তৃতা , ম টি ভে শোনাল স্পিচ শুনুন । ডা উন লোড করতে পারেন প্রয়োজনে ।
৬। যতদূর সম্ভব নড়ুন , চুড়ুন । হাত পা মোচড়ান , নমনীয় করুন , টান করুন , ছুড়ুন ।
৭। অন্য কেউ ড্রাই ভিং জানলে তাকে দিতে পারেন ড্রাইভ করতে কিছু ক্ষণের জন্য ।
৮। বহনযোগ্য টয় লেটের কথা ভাবতে পারেন ।
দীর্ঘ সময় একই অবস্থানে বসে থাকতে থাকতে মুত্র থলীর উপর নিয়ন্ত্রন হতে পারে কঠিন , বয়স্কদের জন্য , জাকার্তায় ট্র্যাফিক জ্যামে ৩-৪ ঘণ্টা বসে থাকতে হয় সে জন্য সেখানে কারে পোর্টে বল টয়লেট ব্যবহার করে ।
______________________

লেখকের নোটস:
লেখাটি লিখলাম আমার একজন প্রিয় ছাত্রী অধ্যাপক খাদিজা বেগম খুদুর অনু রোধে অনুপ্রাণিত হয়ে , Khadiza Begum Khudu

আপনার মতামত দিন:


মানুষের জন্য এর জনপ্রিয়