Ameen Qudir

Published:
2019-08-22 09:27:55 BdST

'প্রফেসর ডা. কাজী দীন মোহাম্মদ যেমন কিংবদন্তি চিকিৎসক:তেমনি দক্ষ স্বাস্থ্য প্রশাসকও'


 

ডেস্ক
________________________

বাংলাদেশের প্রখ্যাত চিকিৎসক, উপমহাদেশ খ্যাত চিকিৎসাবিদ প্রফেসর ডা. কাজী দীন মোহাম্মদ তাঁর আপনকর্মেই সর্বজনপ্রিয়। তাঁর সেই জনপ্রিয়তার প্রমাণ মিলল বাংলাদেশের স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেকের বয়ানেও । সম্প্রতি এক অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, আমাদের ইনস্টিটিউট অব নিউরোসায়েন্স পরিচালক প্রফেসর ডা. কাজী দীন মোহাম্মদ একজন আত্মপ্রত্যয়ী পরিশ্রমী ব্যক্তিত্ব। তাঁর কাছে সবার শেখার আছে। দক্ষ ও যোগ্য নেতৃত্বর পাশাপাশি যথেষ্ট পরিশ্রম করেন তিনি ।

মন্ত্রী বলেন, যেকোনো প্রতিষ্ঠানের অগ্রগতির জন্য নেতৃত্ব একটা গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। ভালো নেতৃত্ব থাকলে, কমিটেড নেতৃত্ব থাকলে সবকিছুই ভালো হবে।

২০ আগস্ট ২০১৯ রাজধানীর আগারগাঁওয়ের নিউরোসায়েন্স হাসপাতালের অডিটোরিয়াম হলে জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা সভায় মন্ত্রী এসব কথা বলেন। স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ ও নিউরোসায়েন্স হাসপাতালের যৌথ আয়োজনে শোকসভায় সভাপতিত্ব করেন ইনস্টিটিউট অব নিউরোসায়েন্স পরিচালক প্রফেসর ডা. কাজী দীন মোহাম্মদ।

বর্তমানে বাংলাদেশ কলেজ অব ফিজিশিয়ানস অ্যান্ড সার্জনস (বিসিপিএস)-এর বর্তমান সভাপতি অধ্যাপক ডা. কাজী দীন মুহাম্মদ ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরোসায়েন্সের প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক। তিনি দীর্ঘদিন ধরে ঢাকা মেডিকেল কলেজের নিউরোলজি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ছিলেন। ২০০৮ সাল থেকে ২০১৪ সাল পর্যন্ত তিনি ঢাকা মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। তিনি মেডিসিনে এফসিপিএস এবং নিউরোলজি (স্নায়ুবিদ্যা) বিষয়ে এম. ডি ডিগ্রি অর্জন করেন। প্রায় তিন দশক ধরে মেডিসিন ও নিউরোলজির বিভিন্ন জটিল রোগের ওপর উচ্চতর অভিজ্ঞতা অর্জন করেন কিংবদন্তি এ চিকিৎসক।

সভায় বক্তব্য দেন স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের সভাপতি অধ্যাপক ইকবাল আর্সলান, স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক এম এ আজিজ, অধ্যাপক ডা. বদরুল আলম, ডা. জহিরুল হক চৌধুরী প্রমুখ।

স্বাস্থ্যসেবায় বঙ্গবন্ধু ও শেখ হাসিনার স্বপ্নপূরণের আহ্বান জানিয়ে অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, আমাদের ডাক্তাররা খুব ভালো কাজ করছেন। আমরা তাদের ধন্যবাদ জানাই। তাদের আন্তরিকভাবে ধন্যবাদ জানাই। অনেক ডাক্তার ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন। তারা সেবা দিতে গিয়ে নিজেরা মৃত্যুবরণ করেছেন। ডেঙ্গু কিছুটা কমে আসছে।

আপনার মতামত দিন:


মানুষের জন্য এর জনপ্রিয়