|

বাস্তবের ফেলুদা কে ! গোমর ফাঁস সত্যজিৎপুত্রের


Published: 2016-12-01 01:59:48 BdST, Updated: 2017-03-27 04:50:27 BdST

        

ডাক্তার প্রতিদিন স্পেশাল _______________

বাংলা গোয়েন্দা সাহিত্যের অমর জীবন্ত চরিত্র ফেলু মিত্র ওরফে ফেলুদা আসলে কে। বাস্তবে কেউ ফেলুদার মত ছিলেন কি।

অমর কথাশিল্পী ও চলচ্চিত্রকর সত্যজিৎ রায় বেঁচে থাকতে শত কৌতুহলের মুখেও এই কোটি টাকার প্রশ্নের জবাব মেলে নি। সুরাহা হয় নি। সত্যজিৎ রায় অনেকবার প্রশ্নের মুখে পড়েছেন। গোমর ভাঙেন নি।
অবশেষে মহা প্রতিক্ষিত প্রশ্নের জবাব দিলেন তারই পুত্র চলচ্চিত্রকর সন্দীপ রায়।
জানিয়ে দিলেন বাস্তবের ফেলুদার পরিচয়। কাকে ঘিরে তৈরী হয়েছিল এই অবিস্মরনীয় চরিত্র।


কে সে! কোন দুঁদে পুলিশ কর্মকর্তা।
সিআইডির কোন গোয়েন্দা।
নাকি কোন প্রাইভেট ডিটেকটিভ।

অনেকে অবশ্য বলেন, এটা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়কে ব্রান্ডিং করেই। শুনে লজ্জা পেয়েছেন স্বয়ং মহাভিনেতা সৌমিত্র। হেসে উড়িয়ে দিয়েছেন সেসব জল্পনা।
সন্দীপ অবশ্য ফু দিয়ে উড়িয়ে দিলেন, ফিল্মস্টার, পুলিশ, সি আইডি বা গোয়েন্দা চরিত্রের সকল সম্ভাবনাকে।
তার কাছে জানতে চাওয়া হয়েছিল,

 

 

ফেলুদার মতো কোনও মানুষকে সত্যজিৎ রায় কি চিনতেন?

কে আসলে বাস্তবের ফেলুদা।
সন্দীপ এই প্রথম রায় পরিবারের রেওয়াজ ভেঙে বললেন সত্যিটা। যে সত্যি নিয়ে কোন সংশয় নেই কারও।
সন্দীপ সোজা সাপটাই বললেন,

বাবাই ছিলেন ফেলুদা। ফেলুদার অনেস্টি, ডেডিকেশন, বুদ্ধি, জ্ঞান, সবই তো বাবার মতো দেখেছি। এমনকী ফেলুদা যা খেতে ভালবাসত বাবাও তাই খেতে ভালবাসত। যত সময় যাচ্ছে ফেলুদা করতে গিয়ে মনে হচ্ছে বাবাকে নতুন করে খুঁজে পাচ্ছি... ।

অমর ফেলুদা নিয়ে আজও আগ্রহের শেষ নেই। ওড়িয়া থেকে মরাঠি, ভারতের এমন কোনও ভাষা নেই যাতে কি না ফেলুদা অনুবাদ হয়নি! ফরাসি, ইতালিয়ান এবং জাপানিজেও ফেলুদা অনুবাদ হয়েছে। পশ্চিমবঙ্গের বাইরে ফেলুদার গল্প পড়ার চেয়ে বড় পর্দায় ফেলুদাকে দেখে মানুষ বেশি চিনেছে।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।