ডা শাহাদাত হোসেন

Published:
2022-06-25 14:09:41 BdST

সেই মৃত ব্যক্তির কফিনে রাখা ছিল একটি আয়না: কেন! জানতে পড়তে হবে লেখাটি


 

রাজিক হাসান
লন্ডন থেকে
__________________

একটি নামকরা কোম্পানী হঠাৎ অনেক বড় লোকসানের মুখোমুখী হল। এত বড় লোকসান যে কোম্পানিটির টিকে থাকাই কঠিন হয়ে গেল। ছাঁটাইয়ের ভয়ে কর্মচারীরা উদ্বিগ্ন হয়ে পড়ল। ভয়ে অফিসের কেউ কথা বলতে পর্যন্ত চায়না। পুরো অফিস জুড়ে চলতে লাগলো নানা কানাঘুষা আর ফিসফিসানি। একদিন দুপুরে কর্মচারীরা লাঞ্চ বিরতির পর অফিসের নোটিস বোর্ডে দেখতে পেল সেখানে লেখা, "আমাদের অফিসের লোকসানের জন্য যে ব্যক্তিটি দায়ী তিনি মারা গেছেন গতরাতে। তাঁর লাশ কফিনে মিটিং রুমে রাখা আছে। ইচ্ছে করলে জীবনের শেষ দেখা করতে পারেন তার সাথে। "
সহকর্মীর মৃত্যুতে সবাই একটু বিমর্ষ হল। তারপর খুঁজতে লাগলো, কে সেই ব্যক্তি। সবাই খুব কৌতূহলী হল। কে হতে পারে সেই ব্যক্তি যার জন্য কোম্পানির এতো বড় লোকসান হল। সবার একটু স্বস্তিও হল। এ যাত্রা সবাই বেঁচে গেল। মিটিং রুমে একজন করে প্রবেশ করার নিয়ম ছিল। একজন ভেতরে গিয়ে কফিনের দিকে তাকাল। তারপর হঠাৎ চমকে উঠল। চোখ বন্ধ করে মাথা নুইয়ে ধীরে ধীরে সে বের হয়ে গেল। পরের জনও তাই করল। একে একে সব কর্মচারীই একই কাজ করল। সবার মুখ দেখে বোঝা যাচ্ছিল লাশটি মনে হয় তার খুব আপন জনের।
কফিনে আসলে রাখা ছিল একটি আয়না। যে কফিনে তাকিয়ে ছিল আসলে সেই নিজেকে আয়নায় দেখেছিল। আয়নার একপাশে একটি কাগজে লেখা ছিল, "তোমার সাফল্যে বাঁধা হতে সমগ্র পৃথিবীতে আছে শুধু একজনই আর সে হচ্ছো তুমি। তুমিই হচ্ছো একমাত্র ব্যক্তি যে তোমার জীবনে পরিবর্তন আনতে পারে। তুমিই একমাত্র ব্যক্তি যে পারে তোমাকে সুখী করতে; যে পারে তোমাকে সাহায্য করতে। তোমার জীবন তখনই বদলায় যখন তুমি বদলে যাও। তোমার সক্ষমতা সম্পর্কে তোমার বিশ্বাসের সীমারেখা যখন তুমি অতিক্রম করতে পারো, শুধু তখনই তোমার জীবন বদলে যায় আর তখনই পূরণ হয় জীবনের লক্ষ্য গুলো।"
------------------------------------------------------
লেখাটি আমি পড়েছি ডেইলি মেইল, লন্ডন পত্রিকাতে।

-----লেখক

রাজিক হাসান

আপনার মতামত দিন:


কলাম এর জনপ্রিয়