আমিন কাদির / রাতুল সেন

Published:
2020-06-22 10:08:31 BdST

বিশ্বমারী করোনা : জরুরী ব্যবস্থা গ্রহণ কৌশল আর পরিণতি


 

অধ্যাপক ডা. শুভাগত চৌধুরী
বাংলাদেশের স্বাস্থ্যসেবার শুভচিন্তক
______________________

৬ টি দেশের উপর নতুন গবেষণায় দেখা যায় জরুরী ব্যবস্থা গ্রহণ প্রবর্তণ ৫০০ মিলিয়ন SARS CoV2 সঙ্ক্রমণ ঠেকাতে সক্ষম । বিখ্যাত বিজ্ঞান জরনেল NATURE এ প্রকাশিত হয়েছে সে প্রবন্ধ ।
SARS CoV2র আকস্মিক আবির্ভাব আর দ্রুত বিস্তার অনেক দেশের সরকারকে ভাইরাস সম্বন্ধে জরুরি সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন । দেশ ভেদে এই ব্যবস্থার তফাত ঘটেছে তবে মুলত যা করা হয়েছে তা হল কম আবশ্যক ব্যবসা বন্ধ , স্কুল বন্ধ , শারিরিক বিচ্ছিন্নতা , ভ্রমণের উপর বিধি নিষেধ , আর গৃহে বাস । গৃহে সঙ্গ নিরোধ ।
এসব ব্যবস্থা অর্থনীতি আর সমাজের উপর চাপ সৃষ্টি করেছে , আর এর নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে জন স্বাস্থ্যের উপর ।
ভাইরাসের বিস্তার রোধে কখন কিভাবে ব্যবস্থা নিতে হবে তা মুলত নির্ধারিত হয়েছে কম্পিউ টার মডেলিং আর ভবিষ্য বানীর উপর ।
উদাহরন ইম্পেরিএল কলেজ লন্ডনের গবেষণা
এসব মডেল নির্মাণের মূলত ভিত্তি ছিল আগের করোনা সংক্রমণ যেমন SARS , MERS এসবের অভিজ্ঞতা ।
কিছু দেশ করোনার প্রথম ধাক্কা সামলেছে , জরুরি ব্যবস্থা গ্রহন করেছে আর এসব অভিজ্ঞতা ভবিষ্যৎ কর্ম পন্থা গ্রহনে হবে সহায়ক
বারক্লে ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ব বিদ্যালয়য়ের গ্লবেল পলিসি ল্যাবরেটরি ভিত্তিক গবেষণা দল পর্যবেক্ষণের আওতায় এনেছেন ১৭৭ টি পলিসি যা বাস্তবায়িত হয়েছিল জানুয়ারী থেকে ৬ এপ্রিল পর্যন্ত ৬ টি দেশে , চীন , দক্ষিণ কোরিয়া , ইটালি , ফ্রান্স আর যুক্ত রাষ্ট্রে ।
গবেষণায় দেখা গেছে এসব দেশে প্রবর্তিত জরুরী বিধি ব্যবস্থা আনুমানিক ৫৩০ মিলিয়ন সংক্রমণ হ্রাস করেছে ।
গবেষক দলের প্রধান প্রফেসার সলমন সিয়াং বলেন অনেকেরই ইতিমধ্যে বিয়োগান্ত পরিণতি ঘটেছে তবে আমরা এপ্রিল আর মে তে এমন ব্যবস্থা না নিলে অবস্থা হত আরও শোচনীয় ।
" এ যেন ঘরের ছাদ প্রায় হুড় মুড় করে ভেঙে পড়ছিল তবে সবাইকে পিষে মেরে ফেলার আগে আমরা একে ধরে ফেলেছি , ছিল এটি খুব কষ্ট সাধ্য আর শ্রান্তি কর তবু এখনও আমরা একে ধরে আছি । তবে আমরা একত্র হয়ে , সমাজবদ্ধ জীবের মত কাজটি করেছে একা করা সম্ভব ছিলনা আর এমন প্রয়াস আগে কখনও ঘটেনি ।"
সংক্রমণ কে মোকাবেলার জন্য কোন ব্যবস্থা গুলো সবচেয়ে কার্যকর এর পর্যালোচনাও হয়েছে ।
দেখা গেছে হোম আইসোলেশন , ব্যবসা বন্ধ আর লক ডা উন এসব ব্যবস্থা ছিলও বেশ কার্যকর ।
কিছু আচরন গত পরিবর্তন করতে হয় আর এর প্রভাব পেতে সময় লেগেছে ৩ হপ্তা ।
ভ্রমনে বিধি নিষেধ আর জন সমাবেশে যোগ না দেওয়া র প্রভাব মিশ্র নানা দেশে নানা রকম কিছু দেশে সুফল কিছু দেশে নয় ।
স্কুল বন্ধ করায় সুফল হল কিনা তা এখনও বিচার্য ।
গবেষকরা বলেন মানুষের এই ত্যাগ আর বিধি মানাতে সম্ভব হয়েছে একে নিয়ন্ত্রনে আনতে । মানবতার বৃহত্তম এই সম্মিলিত প্রয়াস আর আগে এমন হয়নি ।
" আমার মনে হয়না এর আগে আর কখনও মানুষের এমন প্রয়াস এত স্বল্প সময়ে এত জীবন রক্ষা করেছিল । ঘর বন্দি থেকে আর অনেক প্রোগ্রাম , কর্মসূচি বাতিল করে অনেকে ব্যক্তিগত ক্ষয় ক্ষতি হয়েছে কিন্তু তথ্য উপাত্ত বলে , প্রতিদিনের এমন ব্যবস্থা বদলে দিয়েছে অনেক কিছু । বিজ্ঞান আর মানুষের সম্মিলিত প্রয়াস বদলে দিয়েছে ইতিহাসের গতিপথ ।" বলেছেন প্রধান গবেষক অধ্যাপক সলমন সিয়াং ।

_________________INFORMATION___________________

আপনার মতামত দিন:


কলাম এর জনপ্রিয়