Ameen Qudir

Published:
2019-12-01 18:24:41 BdST

ডা.প্রিয়াঙ্কা ধর্ষণ-হত্যার হোতা মহম্মদ-শিবা গংএর জন্য লড়বেন না তেলঙ্গনার আইনজীবিরা


 

ডেস্ক: ২৮ নভেম্বর ভোরে জাতীয় সড়ক ৪৪-এর একটি ব্রিজের ওপর উদ্ধার হয় এক মহিলার দগ্ধ মৃতদেহ। পরে জানা যায়, পেশায় পশু চিকিৎসক এই মহিলা ডা. প্রিয়াঙ্কাকে নির্মম ভাবে ধর্ষণ করে হত্যা করা হয়েছে।
এ নিয়ে সারা ভারত প্রতিবাদের আগুনে জ্বলছে। গ্রেপ্তার হয়েছে, ধর্ষণ কতলের হোতা: মহম্মদ, শিবা, নভীন, কেশব । শনিবার ৩০ নভেম্বর, তেলঙ্গনার বার কাউন্সিলের সদস্যরা জানিয়ে দিয়েছেন, ঘটনায় অভিযুক্তদের পক্ষে মামলা লড়বেন না এই কাউন্সিলের কোনও সদস্যই।
শুক্রবার, ২৯ নভেম্বর সাইবারবাদ অঞ্চলের পুলিশ ঘটনায় অভিযুক্ত চার অপরাধী— জল্লু শিবা, জল্লু নভীন, চিন্তকুন্ত কেশব এবং মহম্মদ কে গ্রেফতার করে রাঙ্গা রেড্ডি জেলার সংসাবাদ অঞ্চল থেকে।

এই প্রসঙ্গে রাঙ্গা রেড্ডি জেলার বার কাউন্সিলের তরফে একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে। সেই বিজ্ঞপ্তির বক্তব্য অনুসারে, কাউন্সিলের কার্যনির্বাহী সমিতি ২৭/১১/২০১৯-এ তোন্ডাপল্লি টোল প্লাজায় হওয়া ঘটনার তিন্দা করছে। সমিতির তরফ থেকে নিজেদের সদস্যদের অনুরোধ করা হয়েছে, যেন এই ঘটনায় অভিযুক্তদের হয়ে তাঁরা যেন কোনও মামলা না লড়েন।অপরাধীদের খুব তাড়াতাড়ি শাস্তি দেওয়ার আবেদন জানিয়েছেন তাঁরা তেলঙ্গনা সরকারের কাছে। এই মর্মে যেন একটি বিশেষ আদালত গঠন করে এই মামলার দ্রুত নিষ্পত্তি করা হয়, সেই দাবিও করেছেন তাঁরা। এর পাশাপাশি, এই ‘অমানবিক আক্রমণের’ বিরুদ্ধে আগামী সোমবার, ২ ডিসেম্বর আদালতের প্রধান ফটকের বাইরে একটি প্রতিবাদ সভা করবেন বলেও জানিয়েছেন তাঁরা।

তেলঙ্গনা সরকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে, এই মামলাটিকে মহাবাবনগরের ফাস্ট ট্র্যাক আদালতে আনার। এই সিদ্ধান্ত জানার পর মহাবাবনগরের বার কাউন্সিলের সদস্যরাও জানিয়েছেন, যে তাঁরা এই ঘটনায় কোনও অভিযুক্তের হয়ে মামলা লড়বেন না।
সৌজন্যে নিউজপোল

আপনার মতামত দিন:


কলাম এর জনপ্রিয়