Ameen Qudir

Published:
2019-10-06 10:03:16 BdST

সাইকোলজিক্যাল ট্রু স্টোরিমিথ্যা সাক্ষী ও সততা প্রমাণে প্রেস কনফারেন্স ডেকে সবার সামনে রবার্ট ডয়ারের আত্মহত্যা


ডা. সাঈদ এনাম____

উচ্চ শিক্ষিত পেশায় শিক্ষক বাড ডয়ার এক সময় আমেরিকান রিপাবলিকান পার্টির একজন সৎ সফল রাজনীতিবিদ হিসেবে আবির্ভূত হন। এক পর্যায়ে তিনি পেনসেলভেনিয়া রাজ্যের সিনেটর নির্বাচিত হন। পরে তিনি ১৯৮০ সাল থেকে ১৯৮৪ সাল পর্যন্ত পেনসেলভেনিয়া রাজ্যের ট্রেজারার এর ও দায়িত্ব পালন করেন।

ট্রেজারির প্রধান থাকাকালীন সময়ে একবার স্টেট কর্মচারীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত কর আদায় বিষয়ক এক মামলায় তার বিরুদ্ধে ঘুষ নেয়ার গুরুতর অভিযোগ ওঠে। বাড ডয়ার তখন তার বিরুদ্ধে এ অভিযোগ পুরোপুরি নাকচ করে দেন।

তদন্তকারী কর্মকর্তারা তাকে প্রস্তাব দেন, ডয়ার যদি নিজের দোষ স্বীকার করেন এবং ট্রেজারার পদ থেকে ইস্তফা দেন তাহলে তার সাজা কম হবে বড় জোর মাত্র পাঁচ বছরের কারাদণ্ড ও সামান্য জরিমানা। তা না হলে তার পরিনতি হবে ভয়াবহ।

ডয়ার তাদের প্রস্তাবে রাজি হননি। তিনি নিজের সততার ব্যাপারে ছিলেন শতভাগ নিশ্চিত। কিন্তু কোর্টে শেষ পর্যন্ত তাকে দোষী সাব্যস্ত করা হয়। তার ৫৫ বছরের কারাদণ্ড এবং তিন লক্ষ ডলারের জরিমানা হয়।

তার দণ্ড কার্যকর হবার কথা ছিল ১৯৮৭ সালের ২৩ জানুয়ারি থেকে। তার একদিন পূর্বে তিনি একটি প্রেস কনফারেন্স ডাকেন। সেখানে সাংবাদিক সহ উপস্থিত রাজ্যের বিভিন্ন সরকারি কর্মকর্তাদের দাওয়াত করা হয়। অনুষ্ঠান টি লাইভ রেকর্ড ও হচ্ছিলো। বাড ডয়ার কেনো এ প্রেস কনফারেন্স করেন, কি তার বক্তব্য এ সম্পর্কে তিনি গোপনীয়তা বজায় রাখেন।

কনফারেন্সে তিনি নিজেকে নির্দোষ দাবি করেন এবং তার পক্ষে সকল প্রমাণাদি তুলে ধরেন। তিনি এর পরই হঠাৎ একটি রিভলবার বের করেন, এবং আত্মহত্যার সিদ্ধান্ত জানান। তার মৃত্যুকে পরবর্তী প্রজন্মের জন্য একটি দৃষ্টান্ত হিসেবে রেখে যাওয়ার ইচ্ছা ব্যক্ত করেন।
পুরো ঘটনা কয়েক সেকেন্ডের মধ্যেই ঘটে যায়।

তিনি সবার সামনেই রিভলভার বের করেন, এবং মুখের ভিতর ঢুকিয়ে ট্রিগার চেপে আত্মহত্যা করেন।

যদিও হতবিহ্বল উপস্থিত সবাই চিৎকার করে ডয়ারকে চিৎকার করে এই কাজ থেকে বিরত থাকার আহবান করছিল, কিন্তু তিনি তা শুনেননি।

ঘটনার প্রায় দুই দশক পরে প্রমাণিত হয় যে, ডয়ার নিরপরাধ ছিলেন। তিনি কোনরূপ ঘুষ নেননি বা দেননি। যদিও তার এক সহকর্মী নিজেকে বাঁচাতে ও তাকে ফাঁসাতে একটি মিথ্যা সাক্ষী দেয়, যার পরিপ্রেক্ষিতে তিনি দোষী প্রমাণিত হন।

তার এ মৃত্যুকে সত্যিই এক ট্রাজেডি। তার ট্রাজিক আত্মহত্যার লাইভ ভিডিও টি এখনো ইন্টারনেট ঘাটলে পাওয়া যায়।

ডা. সাঈদ এনাম
সাইকিয়াট্রিস্ট

আপনার মতামত দিন:


কলাম এর জনপ্রিয়