Ameen Qudir

Published:
2019-07-03 11:19:39 BdST

নয়ন বণ্ড! এ যেন 'কলা ছিললে কেন বুজিয়ে দাও'র মতো অবস্থা!


 


ডা. আতিকুজ্জামান ফিলিপ

__________________________

নয়ন বণ্ড!
নিজেকে বরগুনার 'জেমস বণ্ড' ভাবা প্রকাশ্য দিবালোকে রিফাত হত্যাকাণ্ডের এই মূল পরিকল্পনাকারী গত ভোর রাতে র‍্যাবের ক্রসফায়ারে নিহত হয়েছে।

অনেকেই বলছেন তাকে ক্রসফায়ার করে তার গডফাদারকে বাঁচিয়ে দেওয়া হলো!
যারা এই কথা বলছেন তাদের অনেককেই দেখেছিলাম রিফাত হত্যাকাণ্ডের পর পরই প্রকাশ্যে নয়ন বণ্ডের ক্রসফায়ার চেয়েছিলেন!

এ যেন 'কলা ছিললে কেন বুজিয়ে দাও'র মতো অবস্থা!

আমরা জানি বহু মামলার আসামী এই নয়ন বণ্ড নিজে একজন দাগি সন্ত্রাসী।
এটাও অবিশ্বাস করার উপায় নেই যে তার কোন গডফাদার ছিলো না, তারও নিশ্চয় একজন গডফাদার ছিলো তবে রিফাত হত্যাকাণ্ডে তার কোন গডফাদারের কোন ভূমিকা ছিলো বলে আমার অন্ততঃ মনে হয় না।

বরং ঘটনার বিশ্লেষণে আমার মনে হয়েছে রিফাত কোন রাজনৈতিক কারনে বা এলাকায় সন্ত্রাস বিস্তার করে অন্য কোন গডফাদারের ভাতমারার দায়ে নিহত হননি বরং রিফাত নিহত হয়েছেন নিছক নয়ন বণ্ডের ব্যাক্তিগত ক্রোধ ও ইগোর কারনে এবং নয়ন বণ্ডই এই হত্যাকাণ্ডের মূল পরিকল্পনাকারী বা একার্থে নয়ন বণ্ড নিজেই এই হত্যাকাণ্ডের গডফাদার!

সুতরাং নয়ন বণ্ডকে ক্রসফায়ার দিয়ে তার গডফাদারকে বাঁচিয়ে দেওয়া হয়েছে -অন্ততঃ এই ঘটনায় এই ইকুয়েশনটি আমার কাছে অমূলক মনে হয়েছে!

এখন প্রশ্ন আসতে পারে নয়ন বণ্ড এই হত্যাকাণ্ডের মূল পরিকল্পনাকারী হলেও কি তাকে প্রচলিত বিচারের আওয়াতায় না এনে এভাবে ক্রসফায়ারে হত্যা করতে হবে ?

বড়ই যৌক্তিক এবং কঠিন প্রশ্ন!

আসলে বিচার বিভাগে বছরের পর বছর জমে থাকা সুরাহা না হওয়া লাখ লাখ মামলা এবং সেগুলোর নিস্পত্তিতে সীমাহীন দীর্ঘসূত্রিতা আমাদেরকে হয়তো ক্রসফায়ারের মতো একটা প্রশ্নবোধক ব্যাপারের দিকে ঠেলে দিচ্ছে, আগ্রহী করে তুলছে!

তাছাড়াও আইনের ফাঁকফোকর গলে এই ধরনের দাগি আসামীদের বেকসুর খালাস পাওয়া বা নামকাওয়াস্তে সর্বনিম্ন শাস্তি পাওয়া বা জামিন পাওয়ার প্রবনতার কারনেই আমরা সাধারন মানুষরা সমাজে আপাতঃ বিচার নিশ্চিৎ করতেই ক্রসফায়ারকে সমাধান হিসেবে কল্পনা করছি!

খড়কুটো তাকে বাঁচাতে পারবে না জেনেও নদীতে বা পুকুরে ডুবতে থাকা মানুষটি সেই খড়কুটোকেই আঁকড়ে ধরে যেমন করে বাঁচতে চায় আমাদের অবস্থাও হয়েছে আসলে তেমন!

আমাদের মতো এমন ছাপোষা 'দিনে এনে দিনে খাওয়া' মানুষগুলোও যে সব ক্রসফায়ারকেই সমর্থন করছি তাও কিন্তু নয়!

যারা ক্রসফায়ার করেন তাদের মধ্যে কেউ কেউ কখনো কখনো অতি উৎসাহী হয়ে বৃহত্তর সাধারন ছাপোষা জনতা কর্তৃক 'গ্রহনযোগ্য' এই 'প্রশ্নবোধক' ব্যাপরটিকেও একইসাথে 'অগ্রহনযোগ্য এবং প্রশ্নবোধক' করে তোলেন!
নয়ন বণ্ডের বেলায় অন্ততঃ এমন কিছু ঘটেনি বলেই আমার মনে হয়েছে।

যাইহোক, ক্রসফায়ার সংশ্লিষ্টরা যদি তাদের অতি উৎসাহী মনোভাবটা এড়িয়ে চলতে পারেন তাহলে সমাজে আশু শান্তি ফিরিয়ে আনতে সাময়িক সময়ের জন্য হলেও এই 'প্রশ্নবোধক' ব্যাপারটিকেই সাধারন মানুষ প্রকাশ্যে না হলেও মনে মনে অবশ্যই সমর্থন দিয়ে যাবে।

'দাগ থেকে যদি ভালো কিছু হয় তাহলে তো দাগই ভালো!'

________

পুনশ্চঃ
কিছু ক্রসফায়ার নিয়ে অনেকের মনেই প্রশ্ন আছে কিন্তু অধিকাংশ ক্রসফায়ার নিয়ে সিংহভাগ জনমনেই কোন প্রশ্ন নেই বরং তারা মনে মনে খুশি!
____________________________

ডা. আতিকুজ্জামান ফিলিপ।
সহ-তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক ,স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ
যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক, চিকিৎসক পরিষদ, বিএসএমএমইউ।
Doctor ,t Bangabandhu Sheikh Mujib Medical University
Former Secretary General বাংলাদেশ ছাত্রলীগ দিনাজপুর মেডিকেল কলেজ শাখা ,দিনাজপুর।
Studied MBBS. at Dinajpur Medical College, Dinajpur

আপনার মতামত দিন:


কলাম এর জনপ্রিয়