Ameen Qudir

Published:
2019-03-13 21:39:53 BdST

টাক মাথায় হেয়ার ট্রান্সপ্ল্যান্ট অপচিকিৎসা : মৃত্যু বরণ করলেন বিজনেসম্যান


প্রতীকি ছবি। ছবি: শাটারস্টক
সংবাদ সংস্থা

 

টাক মাথার ‘লজ্জা’ থেকে বাঁচতে হেয়ার ট্রান্সপ্ল্যান্ট অপারেশন করিয়েছিলেন এক ধনশালী ব্যবসায়ী। কিন্তু অস্ত্রোপচারের দু’দিন কাটতে না কাটতেই মৃত্যু হল সেই ব্যবসায়ীর ৷ মুম্বইয়ের সাকি নাকা এলাকার ওই ব্যবসায়ীর নাম শ্রবণকুমার চৌধুরী বলে জানা গিয়েছে।

গত শনিবার একটি বেসরকারি হাসপাতালে মারাত্মক অ্যালার্জির সংক্রমণ নিয়ে ভর্তি হন ওই ব্যবসায়ী। চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন, সেই সময়ে তীব্র শ্বাসকষ্ট ও ফুলে যাওয়া মুখ-গলা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন ওই ব্যক্তি। এটি একটি বিশেষ ধরণের অ্যালার্জির ফলে হয় বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকেরা। এর পরেই আরও খারাপ হতে থাকে তাঁর অবস্থা। শ্বাসকষ্টের সঙ্গেই একসময় ওই ব্যবসায়ীর হৃদযন্ত্র কাজ করা বন্ধ করে দেয়। তারপর দ্রুত একজন হৃদরোগ বিশেষজ্ঞকে ডেকে আনলেও বিপদ কাটানো যায়নি। গত পরের দিন ভোর ৬ বেজে ৪৫ মিনিট নাগাদ মৃত্যু হয় তাঁর।

মৃত্যুর পরেই ওই ব্যবসায়ীর দেহটি ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়৷ চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন যে, গত বৃহস্পতিবার শ্রবণ হেয়ার ট্রান্সপ্লান্ট করিয়েছিলেন৷ স্থানীয় পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে, প্রায় ১৫ ঘণ্টা ধরে ওই ব্যবসায়ীর মাথায় প্রায় ১০ হাজার চুল বসানো হয়েছিল। তারপরেই ভয়ঙ্কর অ্যালার্জিতে ভরে যায় তাঁর চোখ-মুখ৷ স্বাভাবিক ভাবেই কথা উঠেছে ওই হেয়ার ট্রান্সপ্ল্যান্ট সঠিক উপায়ে হয়েছিল কি না তাই নিয়ে। কেউ কেউ প্রশ্ন তুলেছেন হেয়ার ট্রান্সপ্ল্যান্টের সময় নিয়ে। ১৫ ঘন্টার অস্ত্রোপচারে অ্যানাস্থেশিয়ার প্রভাব অনেকটাই কেটে যায় বলেও অভিযোগ করেছেন অনেকে। যে সংস্থা থেকে হেয়ার ট্রান্সপ্ল্যান্ট করা হয়েছিল, সেই সংস্থার অভিজ্ঞতা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন অনেকে। তদন্তের প্রয়োজনে ওই সংস্থার নাম গোপন রাখা হয়েছে পুলিশের তরফে।

আপনার মতামত দিন:


কলাম এর জনপ্রিয়