ডেস্ক

Published:
2021-10-04 06:40:37 BdST

কিছু লোভী জনগনঃ মাংকি বিজনেস এবং গন কান্না


 

মোটিভেশান স্টোরি
__________________


এক গ্রামে অনেক বানর ছিল।একদিন সেখানে এক বাবার আবির্ভাব ঘটলো। তিনি তার বিশাল শাগরেদ দল নিয়ে গ্রামে আস্তানা গাড়লেন।
প্রথম দিনে শাগরেদগণ ঘোষণা দিলেন, বাবা বানর কিনবেন প্রতি বানর ১০ টাকা করে। ১০ টাকার জন্য কে আর বানরের পিছনে দৌড়াবে? তারপরও যাদের কিছু করার নেই, তারা কিছু বানর ধরে এনে বাবাকে দিলেন।
কিছুদিন পরে বাবা ঘোষণা দিলেন তিনি বানর ১০০ টাকা করে কিনবেন। এবার অনেকেই বানর ধরলেন এবং বাবার কাছে বিক্রি করলেন।
আরও কিছুদিন পর বাবা ঘোষণা করলেন তিনি এখন বানর ৫০০ টাকা করে কিনবেন। পুরো গ্রামে হুলস্থুল পড়ে গেল। সবাই বানর ধরতে ব্যস্ত হয়ে গেলো। বাবা বানরের দাম আরও বাড়িয়ে দিলেন। এখন ১০০০ টাকা! গ্রামের লোকেরা এখন আর কিছু করে না। তারা শুধুই বানর ধরে আর বাবার কাছে বিক্রি করে।
এভাবে গ্রামে সব বানর বাবার খাঁচায়। গ্রামের লোক পাগলের মত চারিদিকে বানর খুঁজে কিন্তু বানর আর পায়না। এর মাঝে বাবার কিছু চালাক শাগরেদ চুপি চুপি লোকদের বলল, তারা বাবার খাঁচা থেকে বানর বের করে দিবে। মাত্র ৯০০ টাকা। সবাই হুড়মুড় করে পড়ল শাগরেদ দের থেকে বানর কেনবার জন্য।কোন পরিশ্রম ছাড়াই, ঘরে বসে নগদে ১০০ টাকা লাভ।
কিছুদিন পর বাবা ঘোষণা দিলেন তিনি এখন বানর ২০০০ টাকা করে কিনবেন। শাগরেদরাও দাম বাড়িয়ে দিল। তারা এখন প্রতি বানর ১৮০০ টাকা করে বেচে। এবার বাবা দাম বাড়িয়ে ৫০০০ টাকা করলেন। লোকেতো এখন পাগল প্রায়। শাগরেদরা এখন বানর ৪০০০ টাকা করেছে...
শাগরেদরা এবার বলতে লাগল, যে বানর কিনে নিয়ে যাও, তবে এখনই বিক্রি করো না। তাদের কাছে গোপন সংবাদ আছে যে বাবা বানর সর্বোচ্চ ৫০০০০ টাকা দিয়ে কিনবেন।
আর পায় কে! সবাই জমানো টাকা ভেঙ্গে, মহিলারা গহনা বিক্রি করে, বয়স্করা পেনশনের টাকা তুলে, যুবকেরা পড়া লেখা বাদ দিয়ে, ব্যবসায়ীরা ব্যবসার মূলধন ভেঙ্গে ৪০০০ টাকা করে বানর কিনে স্টক করলো। অনেকে জমিজমাও বিক্রি করে দিলেন। সবাই বানর কিনছে আর কিনছে। বিক্রি করেনা।
এদিকে বাবাও দাম বাড়িয়ে চলছেন । ১০০০০, ১৫০০০, ২০০০০ … । কিন্তু কেউ এখন বিক্রি করবেনা। সবাই অপেক্ষা করছে কখন ৫০০০০ টাকার কাছকাছি যাবে। পুরো গ্রামে উত্তেজনা। এই বুঝি বড়লোক হয়ে গেলাম।
যারা বানর কিনেনি তাদের নিয়ে লোকজন হাসাহাসি করে, ঈশ কত বোকা!
একদিন সকালে তারা দেখল বাবার আস্তানা খালি। বাবা আর তার শাগরেদরা তাদের তল্পিতল্পা গুটিয়ে গায়েব। পুরো গ্রাম এখন শুধুই বানরময়।
একেই বলে মাংকি বিজনেস।
(Destiny, E-Valy , E-Orange, Dhamaka, Alisha Card এর হোতারা ঘুরে ফিরে আসবে, ভিন্ন ফাঁদ নিয়ে,ভিন্ন নামে,ভিন্ন প্লাটফর্মে, অনুমতি পাবে কোন না কোন সংস্থার!আর এতে লোভে পড়ে ঠকতে থাকে আমাদের দেশের অতি লোভী সাধারণ মানুষেরা।

সূত্র সংগৃহীত 

আপনার মতামত দিন:


কলাম এর জনপ্রিয়