Dr. Aminul Islam

Published:
2020-07-22 10:13:40 BdST

মায়ের শেষযাত্রায় কাঁধ ৫ ছেলের, করোনায় ১৫ দিনের মধ্যে গোটা পরিবারের মৃত্যু






ডেস্ক
________________

গোটা বিশ্বের কাছে ত্রাস হয়ে উঠেছে ক্ষুদ্র এক ভাইরাস। করোনার কামড় থেকে কবে মিলবে রেহাই, জানে না কেউই। প্রতিদিনই আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা রেকর্ড করে চলেছে ভারতবর্ষে । কিন্তু ঝাড়খণ্ডের এক পরিবারের যা পরিণতি হল এই মারণ ভাইরাসের কারণে, তা ভাবনারও অতীত। মর্মান্তিক বা অত্যন্ত দুঃখজনক বললেও এমন ঘটনার কিছুই বলা হয় না হয়ত। করোনা আক্রান্ত মায়ের শেষকৃত্যে অংশ নিয়ে আক্রান্ত হল ৫ ছেলেও। ১৫ দিনের মধ্যেই মৃত্যু হল সকলেরই। অর্থাৎ মাত্র কিছুদিনের ব্যবধানে শেষ হয়ে গেল গোটা পরিবার!

মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে ঝাড়খণ্ডের ধানবাদের কাতরাসে। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, গত জুন মাস একটি পারিবারিক বিয়ের অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছিল ওই পরিবারটি। আনন্দে মেতে উঠেছিল সকলেই। বিয়ের অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছিলেন পরিবারের সবচেয়ে বয়স্ক মানুষটিও। ৮৮ বছর বয়সী ওই বৃদ্ধাও আতঙ্ক কাটিয়ে আনন্দেই কাটাচ্ছিলেন দিনগুলো। কিন্তু বিয়ের অনুষ্ঠান শেষ হতেই ক্রমশ অসুস্থ হতে শুরু করেন তিনি। অসুস্থতা এমন পর্যায়ে পৌঁছায় যে তাঁকে বাড়িতে রাখা অসম্ভব হয়ে পড়ে। ভরতি করা হয় হাসপাতালে। দিন পনেরো আগে সেখানেই তাঁর মৃত্যু হয়। মায়ের মৃত্যুতে শোকে ভেঙে পড়ে বৃদ্ধার ৫ ছেলে। শেষকৃত্যে তাঁরাই মায়ের দেহ কাঁধে করে নিয়ে যান শ্মশানে। তাঁর অন্ত্যেষ্টি সম্পূর্ণ করে বাড়িতে ফিরেই ছেলেদের মাথায় যেন আকাশ ভেঙে পড়ে। হাসপাতাল থেকে জানানো হয়, মৃত্যুর সময় করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন ওই বৃদ্ধা।


ললাটলিখন যেন তখনই লেখা হয়ে গিয়েছিল। ধীরেধীরে একে-একে মৃত বৃদ্ধার সব সন্তানরাই অসুস্থ হয়ে পড়তে শুরু করেন। সকলকেই কয়েক দিনের ব্যবধানেই ভরতি করতে হয় হাসপাতালে। আর কী মর্মান্তিক, ১৫ দিনের মধ্যেই ৫ ছেলের মৃত্যু হয়। হাসপাতাল সূত্রে খবর, ৫ জনের মধ্যে এক জনের আগে থেকেই ক্যানসার ছিল। ফলে তাঁর মৃত্যু ক্যানসারে হয়েছে ধরে নেওয়া গেলেও বাকি চার ছেলেরই মৃত্যু হল করোনায়। অর্থাৎ ১৫ দিনের মধ্যে গোটা পরিবারটাই শেষ হয়ে গেল। গোটা এলাকায় নেমে এসেছে শোকের ছায়া।

জানা গিয়েছে, রাঁচির রাজেন্দ্র ইনস্টিটিউট অফ মেডিক্যাল সায়েন্সে চিকি‍ৎসাধীন অবস্থায় এক ছেলের মৃত্যু হয়। মাত্র কয়েকদিনের মধ্যে বাকি দুই ছেলে মারা যান ধানবাদের করোনা হাসপাতালে। সোমবার রাতে রাজেন্দ্র ইনস্টিটিউট অফ মেডিক্যাল সায়েন্সে মারা গিয়েছেন বৃদ্ধার আরও এক ছেলে। মাত্র ১৫ দিনের মধ্যেই একই পরিবারের ছয় জনের মৃত্যুর ঘটনা সারা ভারতবর্ষে নজিরবিহীন বলেই জানাচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। অনেকেই বলছেন, এই ঘটনা থেকেই বাকিরা শিক্ষা নিক।

সুমন বিশ্বাস, এই সময়, কলকাতার সৌজন্যে।

আপনার মতামত দিন:


কলাম এর জনপ্রিয়