|

পোঈয়ের দেশে ৭মহাচীনের পাতালপুরীতে


Published: 2016-12-13 20:11:06 BdST, Updated: 2017-09-23 11:36:23 BdST

 

ডা. নুরুল হাসান বাবু
_________________________

চীনা বাংলা পন্ডিত পিলকে পেয়ে সবাই এমন খুশী যে মিঠু সাহেব কী গাড়ী পাঠাল বেশ কিছু সময় কারো ভাবারও সময় হয়নি । সবচেয়ে বেশী খুশী আমি কারণ চীনে আমার আর communication problem থাকল না ; পিল আমার প্রায় বিনেপয়সায় দূর্দান্ত দোভাষী হয়ে কাজ করবে । বেইজিং, সাংহাই এ কী হবে জানিনা তবে কুনমিং এ আমার চীনা ভাষার অজ্ঞতা আর চীনাদের ইংরেজীতে মূর্খতা নিয়ে আর কোন দু:চিন্তা থাকল না । মনে মনে চীনাদের বকা দিচ্ছিলাম -আর যাই হোক তোরা যতই উন্নতি করিস না কেন , ইংলান্ড আমেরিকার মত বিশ্বকে কোনদিন নেতৃত্ব দিতে পারবিনা শুধু ইংরেজী না জানার কারনে..। পিলের কারণে গোটা চীনা জাতিকে মাফ করে দিলাম- 'যা তোরা বিশ্ব মোড়ল হ -time old gypsy man তোদের দুয়ারে আসুক তোরা বিশ্বকে নেতৃত্ব দে ।'

গাড়ীটাকে দেখলাম হ্যা মিঠু সাহেব তার কথা মত একটা পার্ল হোয়াইট নতুন ফোর্ডই পাঠিয়েছেন - বেশ প্রশস্ত আরামদায়ক বটে।

কুনমিং এ তখন ঝুম বৃষ্টি পড়ছিল ,পিলকে বললাম -
: এত বৃষ্টিতে সবই পন্ড হয়ে গেল..কোথায় যাব..?
: বৃষ্টি নিয়ে চিন্তা কোরো না ..কুনমিং এ এরকম বৃষ্টি হয় যা সারাদিন থাকে না -পিল এর উৎসাহব্যান্জক উত্তর।

পিলের উত্তরে উৎসাহ পেলেও ভরসা করলাম না । অত্যন্ত টাইট সিডিউলে চীনে এসেছি ..সময় নষ্ট করা যাবে না। সিডিউলে পরিবর্তন আনলাম ।যাবার কথা ছিল stone forest তা পাল্টিয়ে বললাম Jiuxiang (ঝিওজিয়াঙ্গ) চল...
: বাবা ঝিওজিয়াঙ্গ এ আবার কী - stone forest চল -মেয়ের বিষ্ময় আর শংকা ভরা প্রশ্ন ও নির্দেশনা
: ঝিওজিয়াঙ্গ পৃথিবীর একটা Subterranean wonder সাধু বাংলায় অন্তভৌম রহস্য -সোজা বাংলায় 'পাতালপুরীর বিষ্ময়কর জগৎ..' ..আমি বললাম
: কোন পাতালপুরী তাতালপুরী ভয়ংকর যায়গায় আমি কিন্তু যাব না -শম্পা বাধ সাধল..
: 'যেখানে যাবার কথা বলছি তার পুরোটাই মাটির নীচে একটু Adventures তো হবেই ..এত ভয় পেলে চলবে ? ' -বলে আমি পিলকে গাড়ী ছোটাতে বললাম।
Juixiang কুনমিং হতে প্রায় ৯০ কিমি উত্তরপূর্বে -যেতে সময় লাগবে দেড় থেকে দুঘন্টা ..পিল জানালো।
: তুমি ঝিওজিয়াঙ্গ যেতে চাইলে আমি আশ্চর্য হচ্ছি ..বাংলাদেশীরা সাধারণত ঝিওজিয়াঙ্গ যাবার কথা বলে না .. কুনমিং এলে প্রায় সকলে stone forest যায় তুমি প্রথম আমাকে ঝিওজিয়াঙ্গ যেতে বললে..পিল জানাল...
আমি মৃদ্যু হেসে বললাম সবাই আমার মত বেকার ও বোকা বা গাধা নয়..তারা অল্প সময়ে আসল কিছু দেখে যায় আর আমি উল্টাপাল্টা খুঁজে বেড়াই....।

 

চীনের বেইজিং এ সপ্তাশর্য প্রাচীর, জীয়ানের টেরাকোটা ওয়ারিয়র , আধুনিক সাংহাই এর বান্দ কিংবা কুনমিং এর স্টোন ফরেষ্ট বেশ জনপ্রিয় টুরিষ্ট স্পট বলে পরিচিতি সকলের কাছে, কিন্তু কুনমিং ঝিওজিয়াঙ্গ এর পাতালপুরী কেন প্রচার পেলনা তা নিয়ে আমি রীতিমত বিষ্মিত! সত্যি অনিন্দ্যসুন্দর এ পাতাল পুরী- Juixiang Karst Cave Scenic area যা 'Home of Karst Caves' বলে খ্যাত। Karst শব্দটির সঠিক বাংলা অর্থ জানিনা আমি এটটুকুন বুঝি পাথুরে বা 'পাথর (মূলত Limestone )নির্মিত 'বুঝায় এ শব্দটি।

ভূপৃষ্ঠের পাহাড়, ভ্যালী, ঝরনা, খাঁদ , নদীর দেখাতো মিলেই কিন্ত ভূতলে গভির মাটির নীচে বিশাল বিশাল বিষ্ময়কর রোমাঞ্চকর গুহার ভেতর পাহাড়, ভ্যালী, গুহা খাঁদে স্রোতস্বিনী নদী , দুরন্ত দুহাত ধরে চলা চপল-চপলা যুগল ঝরনা সবগুলো একসাথে একই এলাকায় দেখতে পাওয়া আসলেই দূর্লভ । মালয়শিয়ার বাটু কেভ বা নেপালের মহেন্দ্র, গুপ্তেশ্বর বা বাদুর গুহা ঝিওজিয়াঙ্গ কাছে নস্যিতুল্য । আমার অনুরোধ কেউ এখানে আসলে আগে মালয়শিয়ার Batu Cave আর নেপালে ঐ তিন গুহা আগে দেখে আসবেন নইলে পরে গিয়ে ঐ ভ্রমনে মজা পাবেন না।

তথ্যমতে ১০০ টি প্রাকৃতিক গুহা আছে এই ঝিওজিয়াঙ্গ এর 200 বর্গ কিলোমিটার বা ৭৭ বর্গ মাইল এর বিলাশ বিস্তৃত এলাকায় । Yi এ Hui এই দুই চীনা উপজাতি এই এলাকার আদিবাসী - তাদের মতে শত গুহা নয় কত গুহা আছে কেউ যদি গুণে দেখতে চায় তবে তার জীবনের সমস্ত সময় কম পরে যাবে ..গননার কাজ শেষ না হতেই তাকে পৃথিবী থেকে বিদায় নিতে হবে । যাক ভাই, আমি এখানে গুহা গুনতে আসিনি , দেখতে এসেছি..গুহা গননার কাজে বরংচ আমাদের দেশের প্রখ্যাত শিল্পী আইয়ুব বাচ্চুকে পাঠানো যায় ..ওনার তো তাঁরা গোনার শখ.." এক আকাশের তাঁরা তুই একা গনিসনে ...গনতে দিস কিছু মোরে..।" তাঁরা গুণেতো তিনি শেষ করতে পারবেন না নিশ্চিত , তবে এতটা মনবলের মানুষ নিশ্চই এদের গুহা গুণে ইআই(Yi ) আর হুইর (Hui) জাতির গুহা দম্ভ ভাংতে পারবেন বলে মনে হয় আমার।

বিষ্ময়কর গুহাগুলোর ভেতরের পাহাড় , মাল্টি লেয়ারড ভ্যালী, নদী , ঝর্ণা সবকিছুই প্রাকৃতিক ,এমনকি নদীর গা ঘেষা পথ ,পারাপারের সেতুও প্রকৃতি নির্মিত জেনেছি -মানুষ শুধু পথটাকে ঘসে মেজে মসৃণ করেছে মাত্র। বিজ্ঞান মতে ভূপৃষ্ঠের স্তরের চলাচল, ঘর্ষণ , ক্ষয় সেইসাথে অতিআনুবিক্ষনীক জীবানু ফসিল জমে ভূতলের এই বিষ্ময়কর অত্যাশর্যের জন্ম।

Stalagmites ও Stalactites এর স্বর্গরাজ্য ঝিওজিয়াঙ্গ এর এই cave গুলো। Stalagmites ও Stalactites এর আকার ও সৌন্দর্যের বিচারে মেক্সিকোর Carlsbad Caverns এর পর এর অবস্থান। Stalagmites ও Stalactites আবার কী ? নেপাল ভ্রমণে এদের পরিচিতি দিয়েছিলাম -এটা তেমন কিছুনা cave বা গুহাতে দেখা কলাম/ শলা/বা ফলা আকৃতির শিলাখণ্ড যা দেখতে ম্যানগ্রোভ বনের গাছের শ্বাসমূলের মত । এখানে অবশ্য স্তনাকৃতি, আঙ্গুরাকৃতি, কুমির আকৃতির ইত্যাদি বিশেষ আকৃতির দেখা মেলে। ভূবিজ্ঞানের এ দুটি শব্দ Stalagmites ও Stalactites. শব্দদ্বয়ের পার্থক্য শুরু শব্দদ্বয়ের প্রথম syllable - stalag , stalac একটার শেষ 'G' আরেকটার শেষ 'C' বর্ণ থেকে । G - ground ও C- ceiling এর সাথে সম্পর্কযুক্ত নামে ও অবস্থানে । Stalagmites - গুহার ভেতর ভূমির (G for ground) উপর খাড়াঁ দাড়িঁয়ে থাকে আর Stalactites - গুহার উপর ছাঁদ (C for ceiling ) হতে বর্শার মত ঝুলে থাকে । এগুলো গুহার গায়ে জীবাশ্ম , মিনারেল, লাভা , কাঁদা ইত্যাদী জমে জমে গড়ে উঠে বলে বিজ্ঞানের মত । আমি কোন ভূবিদ নই বা ভূবিজ্ঞান গবেষনার ইচ্ছাও নেই , মালয়শিয়ার কুয়ালালামপুরের নিকটবর্তী Batu Cave দেখতে গিয়ে এই শব্দ দুটি ও এদের সাথে আমার পরিচয় ..নেপালের cave গুলোতে এদের দেখা আবার পাই তবে চীনের ঝিওজিয়াঙ্গ এসে এদের বিশাল আকার ,নানা প্রকারভেদ আর অপার সৌন্দর্য দেখেতো এখন আমি রীতিমত Stalagmites ও Stalactites এর প্রেমে পড়ে গ্যাছি- মন চাইছে পৃথীবির সবচেয়ে বড় ভূমির উপর দন্ডায়মান Stalagmites " Witch Finger " দেখতে মেক্সিকোর Carlsbad Caverns এর ভেতর যাই আর stalactites দেখত যাই স্পেন ,অষ্ট্রেলিয়া বা জার্মানির বিশেষ নামকরা গুহা গুলোতে । খেয়ে পরে কাজ নাই , যার যা দেখা বা করার ইচ্ছা আরকী ! আপনার দেখা বা জানার আগ্রহ না থাকলে এগুলোর পরিচয় হবে মাটি বা পাথরের বড় ঢেলা , মূত্রত্যাগের পর সুন্নতি কুলুপ হিসেবে পরে ব্যবহারের কথা ভেবে কেউ কেউ হয়ত ভাংগার ব্যর্থ চেষ্টাও করে থাকেন ; হয়ত আগামীতেও করে যাবেন অনেকে ।

 

____________________________________

 

লেখক ডা. নুরুল হাসান বাবু । শক্তিমান কথাশিল্পী। তার হাতে যাদু আছে। পেয়েছেন ব্যাপক পাঠকপ্রিয়তা। ডাক্তার প্রতিদিনেও নিয়মিত লিখছেন তিনি।
Clinical Ultrasound Consultant at Popular Diagnostic Centre Ltd.
Works at Bangladesh Govt.
Former Assistant Registrar at National Institute of Mental Health
Studied Bachelor of Medicine & Surgery (MBBS) at Rangpur Medical College

 

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।