|

শেবাচিম ডে : নানা টুকরো গল্প


Published: 2016-11-30 10:33:56 BdST, Updated: 2017-01-19 08:15:36 BdST

ডা. শিরিন সাবিহা তন্বী
_____________________________
যেদিন প্রথম শুনলাম শেবাচিম প্রাক্তন ছাত্র সমিতি SBMC ডে পালনের উদ্যোগ নিচ্ছে বেশ এক্সাইটেড ছিলাম।মিটিং গুলোতে যাওয়ার দাওয়াত হেলা করিনি।প্রতিটি বিষয়ে মতামত দিয়েছি।মৌখিক ভাবে অনেক দায়িত্ব দিলেন সিনিয়ররা।কমিটি হবার পর দেখি সাংস্কৃতিক কমিটিতে আমি।এই আয়োজক সিনিয়রদের কমিটির মাঝে সর্বকনিষ্ঠ আমি।
চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিলাম।
সেদিন ই ছোট্ট একটা মিটিং করলাম SudiptoSarker,Tamanna Tarin এর সাথে।পরদিন এসে যোগ দিল Avro Jyoti!
দুটো ছোট শর্ত ছিল এই প্রোগ্রামে।
# সব পারফর্মার হবে এসবিএমসিয়ান।
# সব পারফর্মেন্স হবে বাংলায়।।

 

 


শেবাচিম কালচারাল প্রোগ্রাম খুব বিখ্যাত হলেও হিন্দী গানের নাচের বদনাম আছে।প্রতিজ্ঞা করলাম এটা ঘুচাব।একটাও হিন্দী পারফর্মেন্স থাকবে না।
ওদের সাথে নিয়ে প্রোগ্রামের রুপ রেখা দাঁড় করালাম।
তখন এসে জয়েন করল Hasan Sharif.এমন করিৎকর্মা বিনয়ী ছেলে !আবার মেডিসিন ক্লাব জুনিয়র।চমৎকার টিম ওয়ার্ক।
ততক্ষনে সময় নাই।বাজেট নাই।
প্রিন্সিপল স্যার,সৌরভ দা গান লিখলেন।সিনিয়রদের তাগাদা,লিস্ট,জুনিয়রদের বাছাই,রিহার্সাল!!
ছেলেকে ঘুম থেকে টেনে তুলে নিয়ে বিকেল থেকে রাতাবধি হাসপাতালে।সকাল তো আছেই!!
অবশেষে সেই দিন।
সিনিয়রদের অংশ " Old is gold "এর সঞ্চালনার দায়িত্ব নিলাম।
বহু বছর পর এই অডিটোরিয়াম যেন বহু পুরনো ভালবাসার স্পর্শ পেয়েছে।
স্বনামধন্য লায়লা আরজুমান ম্যাডামের গীটারের সুরে মোহিত সবাই।বিখ্যাত কার্ডিওলোজিষ্ট মুমিনুজ্জামান স্যারের বাঁশী,,হাওয়া ম্যাম,, কাজল ম্যাম,, গুলশান আরা ম্যামের গান,,দীপক স্যারের মেঘ থম থম চোখে পানি এনেছে অনেকের!আরিফ ভাইয়ের ' সালেকা মালেকা ' আর শাকিল ভাইয়ের' পুতুলের মত করে' সব সিনিয়র স্যারদের মঞ্চে এনে নাচিয়ে ছেড়েছে।

 


সে এক অভূতপূর্ব মিলন মেলা।
ভাস্কর স্যার,অনু আপা,শাহ আলম ভাইয়ের কবিতা এনেছে ভিন্ন মাত্রা।
এই অংশ শেষ হতেই ছাত্র ছাত্রীদের অংশ " নবীনের জয়গান"!
সব ব্যাচের চমৎকার সব গান,নাচ,নাটক আর ইন্ট্রোতে নেচে উঠল মঞ্চ!!
সবার প্রান খোলা উচ্ছলতা,আন্তরিক অংশ গ্রহনে চাওয়ার থেকে বেশী প্রশংসা কুঁড়িয়েছি।এতদিনের শংকা,ভয় সব জয়।
আমি রাজ মনের মানুষ।কুটিলতা কম বুঝি।কর্ম পটু।ভাল লাগার কাজ ভালবাসা দিয়ে।ভালবেসেই সফল করেছি SBMC DAY!
শুধু আমি নই।বয়স্ক অনেক অবসরপ্রাপ্ত সিনিয়র স্যারগন,বর্তমান ব্যস্ত চিকিৎসকগন এবং ছাত্র ছাত্রীরা সকলের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহনেই সফল হয়েছে প্রথম SBMC DAY!!
গল্পগুলো অনুভবের।আশা করি যুগ যুগ ধরে পালিত হবে এই দিন।আমি এবং আমরা হয়ত থাকব না।কিন্তু এই প্রথম দিনের স্মৃতি অমলিন থাকুক।গল্পগুলো হৃদয়ে গেঁথে থাকুক।।
___________________________________


লেখক ডা. শিরিন সাবিহা তন্বী
মেডিকেল অফিসার, শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, বরিশাল।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।