|

সব মেয়ের পড়া উচিত অপয়া ১৩ পরামর্শ


Published: 2016-11-22 14:01:19 BdST, Updated: 2017-11-22 09:53:50 BdST


সবার আগে নিজের ক্যারিয়ার গড়বেন। এই জিনিসে কোন কম্প্রোমাইজ করবেন না। মইরা গেলেও না।
.
২. আত্মসম্মান, আত্মমর্যাদা কক্ষনো বিসর্জন দিবেন না। তাতে মরে যেতে হলে, যাবেন।
.
৩. চোখ বন্ধ করে পুরুষকে বিশ্বাস করবেন না। (গনহারে trust এর কথা বলছি, trustworthy man অবশ্যই আছে) পুরা ফেরেশতা মার্কা স্যার, আব্বুর বন্ধু, মামার ফ্রেন্ড, বড় ভাইয়ের বন্ধু, একদম ফ্যামিলি পারসন, এরকম-এমন কারো সাথে একা কোথাও থাকবেন না।
Be careful who you trust, the devil was once an angel.
.
৪. বান্ধবীর বাসায় যেতে হলে পরিবারকে জানান। ফোন নাম্বার আম্মু, আব্বু, বড় ভাই, আপুকে দিয়ে যান। সবসময় নিরাপদে যত দ্রুত সম্ভব বাসায় ফিরবেন। রাতে চেষ্টা করবেন না থাকার। থাকলেও বাসার পরিবেশ দেখে নিয়েন।
.


৫. নিজের gut feelings -কে সব সময় প্রাধান্য দিবেন। দেখে কিছুই মনে হয় না, খুব ভাল মানুষ, কিন্তু মন কেন যেন ব্যাক্তিটাকে পছন্দ করে না। এমন হলে সেই ব্যাক্তি থেকে ১০০ হাত দূরে থাকেন।
trusting your 'Gut Feeling' is often the best strategy to save yourself.
.
৬. নিজের আবেগ সব সময় নিয়ন্ত্রণে রাখবেন। মেয়েরা আবেগের কারনে
ভিক্টিম হয়।
.
৭. ফ্যামিলিকে সব সময় পাশে রাখবেন। ফ্যামিলিকে, বিশেষ করে আম্মুকে বন্ধু বানান। তার সাথে সব যেন শেয়ার করা যায় এমন ভাবে সম্পর্ক করবেন আব্বু আম্মুর গোপনে কিছু কইরেন না। ভিক্টিম হলে আপনি হবেন। তখন আব্বু আম্মু স্রেফ এই ভাব্বে "মেয়েটা আমাদের বলল না কেন!!"
.


৮. কাউকে বিশ্বাস করার আগে ১০০ বার ভাববেন। You read it right. ১০০ বার।
.
৯. নিজেকে ভালবাসেন। এটা খুব দরকার। আপনি কালো, শর্ট, মুখে ব্রন --বিলিভ মি এগুলা কিচ্ছু না। আল্লাহ আপনাকে যেভাবে বানিয়েছেন আপনি সেভাবেই সুন্দর। আপনার মেধা, ব্যাক্তিত্ব দেখে যেন একটা ছেলে দীর্ঘশ্বাস ফেলে নিজেকে ঐভাবে তৈরি করেন।
.
১০. সব সময় সত্যকে পাশে রাখবেন। মিথ্যা অনেক সহজ। অন্যায় অনেক আনন্দ দেয়। কিন্তু তা সব সময় ক্ষণিকের জন্য। সত্য সব সময়ের জন্য। তা যত কষ্টের হোক।
.
১১. জীবন অস্বাভাবিক সুন্দর। হতাশা, unexpected crisis, unexpected incident এগুলা লাইফের পার্ট।
ও আচ্ছা, এমন হইল। ঠিকাছে। এরপর কি?-- লাইফের প্রতি এমন attitude রাখলে লাইফ আর সুবিধা করতে পারে না। পেইন দেবার আগে ভাবে এরে পেইন দিয়া লাভ নাই।
.
আগেই নিজের প্রার্থনা নিজেই অন্তত যেন করি।


.
১২. গাড়ির ড্রাইভার, এপার্টমেন্টের দারোয়ান এই দুই দলের সাথে খারাপ ব্যবহার করবেন না। এই দুই দলের মানুষ বিপদে চরম সাহায্য করে।
.
(বুদ্ধিমানরা এইখানে কি বলি নাই তাও বুঝবে।)
.
১৩. অতীত নিয়ে একদম ভাব্বেন না। তবে অতীত থেকে শিক্ষা নিবেন। সুন্দর একটা স্মৃতি কি দ্বিতীয় বার একইভাবে আনন্দিত করবে আপনাকে? nope, never. প্রথমবারের থেকে কম আনন্দের অনুভূতি দিবে। তাহলে অতীতের দুঃখ কেন বারবার কাঁদাবে? সময় নাই, অতীত নিয়ে ভাবার- এভাবে ভাবেন। ইউ উইল বি হ্যাপিয়ার
.
পৃথিবীর সকল নারী সুরক্ষিত থাকুক।


._________________________________

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন চিকিৎসক বিভিন্ন সূত্র থেকে অনুবাদ করে পাঠিয়েছেন এই লেখা। ।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।