|

এক ডাক্তারের করুণ মৃত্যু এবং কয়েকটি সকরুণ জিজ্ঞাসা


Published: 2017-01-10 00:25:27 BdST, Updated: 2017-11-22 09:53:10 BdST

 

ডা. কৃষ্ণ রায়
______________________________

খুলনা মেডিকেল কলেজের ১৬ ব্যাচের প্রাক্তন ছাত্র এবং বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিসের ৩৩ ব্যাচের স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ সুমন শিকদারের লাশ আজ সোমবার ঢাকা মেডিকেলের ফরেনসিক বিভাগে সনাক্ত হয়েছে।


তিনি তার নিজ জেলা মাগুরার শ্রীপুর উপজেলায় মেডিকেল অফিসার হিসেবে কর্মরত ছিলেন। জানা যায়, গত ২ জানুয়ারী রাতে শাহবাগের আজিজ এপার্টমেন্টে বিকট শব্দে কিছু একটা পড়ে যাওয়ার শব্দ শোনা যায়। পরদিন সকালে চারতলায় একটি লাশ উদ্ধার হয়। লাশটি অজ্ঞাতনামা হিসেবে পুলিশ ঢাকা মেডিকেলে ফরেনসিক পরীক্ষার জন্য হস্তান্তর করেন।


আজ সোমবার ৭ দিন পর তার লাশ পরিচিতের মাধ্যমে সনাক্ত হয়েছে। ডাঃ সুমন হারিয়ে যাওয়ার পরপরই তার পরিবার নিকটস্থ থানায় জিডি করেন এবং পরিচিতদের মাধ্যমে সোশ্যাল এবং অনলাইন মিডিয়ায় প্রচারের ব্যবস্থা করেন।


জানা যায়, ডাঃ সুমন দীর্ঘদিন জটিল মানসিক রোগে ভুগছিলেন এবং সেজন্য চিকিৎসাও নিচ্ছিলেন। কিন্তু উন্নতি পাচ্ছিলেন সামান্যই। এমতাবস্থায় কতকগুলো প্রশ্ন-

* একজন সরকারি কর্মকর্তা যিনি জটিল মানসিক রোগে ভুগছিলেন তিনি কর্মক্ষেত্রে সেবা দেয়ার মত সুস্থতায় ছিলেন কিনা?


* তিনি অসুস্থতা জনিত ছুটি নিয়েছিলেন কিনা?
* ছুটি না নিয়ে থাকলে তার ঊর্ধতন কর্মকর্তা(UH&FPO) কোন ব্যবস্থা নিয়েছিলেন কিনা? অধিনস্ত কর্মকর্তার সুস্থতার স্বার্থে ঊর্ধতনের কোন ভূমিকা রাখার সুযোগ/দায়িত্ব ছিল কিনা?


* একজন অধিনস্ত কর্মকর্তা হারিয়ে যাবার পর পরিবার থেকে জিডি হবার পরও সাত দিন যখন নিরুদ্দেশ তখন তার ঊর্ধতন কর্মকর্তার বিভাগীয় কোন করণীয় ছিল কিনা? সেটা কি হতে পারতো?


* সিভিল সার্ভিসের একজন কর্মকর্তা ৭ দিন ধরে নিখোঁজ ছিল অথচ চিকিৎসক সমাজ, স্বাস্থ্য প্রশাসন, মিডিয়া, নির্বাহী প্রশাসনের এমন অদ্ভুত নীবরতা কেন?
* সিভিল সার্ভিসের একজন ডাক্তার কর্মকর্তার লাশ অজ্ঞাতনামা হিসেবে ৭ দিন হিমঘরে পড়ে থাকে কেন?
* মাগুরায় যার কর্মস্থল ঢাকায় তার এভাবে অপমৃত্যু কেন?

ডাঃ সুমনের অপমৃত্যুর সুষ্ঠু তদন্ত হোক। তার এই অসময়ে চলে যাওয়া বড় বেদনাদায়ক। খুলনা মেডিকেল, চিকিৎসক সমাজ এবং ৩৩ তম বিসিএস ব্যাচের জন্য আজ এক বড় বিষাদের দিন।


__________________________

 

লেখক
ডা. কৃষ্ণ রায় । সুলেখক । MD, PSYCHIATRY, residency course, BSMMU

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।