Ameen Qudir

Published:
2018-02-27 12:10:54 BdST

ঢাকার মেগা সিরিয়াল সাত ভাই চম্পার নায়ক মহারাজা একজন ডাক্তার


 

 


ডেস্ক রিপোর্ট
___________________

ঢাকার জনপ্রিয় চ্যানেল আইয়ের মেগা সিরিয়াল ‘সাত ভাই চম্পা’র মূল চরিত্র মহারাজার ভূমিকায় অভিনয় করছেন একজন ডাক্তার। ইতোমধ্যেই এই সুদর্শন চিকিৎসক দর্শকদের হার্টথ্রবে পরিনত হয়েছেন। মেগা সিরিয়ালের পাইলট এপিসোডেই ঘটেছে বাজিমাত। ইউটিউবে এক ঘন্টার এপিসোড নিয়ে দর্শকদের মধ্যে ক্রেজ তৈরী হয়েছে। সবাই অপেক্ষায় বাকি পর্ব দেখতে।
দর্শকদের অনেকেই বিশ্বাস করতে পারছেন না এই সুঠামদেহী অতিম বিক্রম যুবক বাংলাদেশের অভিনেতা।

সাত ভাই চম্পা সম্প্রচারে যেতেই পরিনত হয়েছে হাইরেটিং সিরিয়ালে। পাইলট এপিসোডেই কোটি কোটি দর্শক লুফে নিয়েছেন সিরিয়ালটি। অনলাইন ইউটিউবে এপিসোডটির দর্শক রেকর্ড সৃষ্টি করেছে।

অসামান্য ফিল্মি নির্মাণের কারণে সিরিয়ালটি এর মধ্যেই বিদেশী ডাবিং নির্ভর বিজাতীয় সিরিয়ালের সম্প্রচারের হিড়িককে পর্যুদস্ত করেছে।

দর্শকদের মাঝে সাত ভাই চম্পাকে নিয়ে বিপুল কৌতুহল।
সবার বক্তব্য , আমরা এমন একটি দেশীয় কাহিনি নির্ভর মেগা সিরিয়ালের অপেক্ষায় ছিলাম। চ্যানেল আই মানুষের মনের কথা বোঝে। তাই দেশীয় কাহিনির নির্মানে তারা নতুন দিগন্ত উম্মোচণ করল।

চ্যানেল আইয়ের মেগা সিরিজ ‘সাত ভাই চম্পা’-তে গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করছেন মহারাজা। এই সিরিজটি প্রচারে আসবে ২৮ ফেব্রুয়ারি থেকে। সবকিছু ছাপিয়ে মহারাজা এসেছেন আলোচনায়। প্রমো, বিলবোর্ড কিংবা পর্দায় তাকে দেখলে যে কারো চোখ কপালে উঠতে পারে, তিনি যেন অবিকল ‘সিনবাদ’!

চ্যানেল আই অনলাইন জানাচ্ছে,

রাশভারি মুড, সুঠাম দেহ, ছয় ফুট উচ্চতা, লম্বা চুল, বাঁকানো গোঁফ! সবকিছুতেই মহারাজার খানদানি স্টাইল। মহারাজার ইশারায় চলে পুরো সম্রাজ্য। তিনি হেঁটে গেলে রাজপ্রাসাদ কেঁপে ওঠে। দস্যুদের ঘায়েল করতে তলোয়ার চালাতে জুড়ি নেই মহারাজার। অন্যদিকে, তাকে পাওয়ার জন্য রাজপ্রাসাদে ব্যাকুল তার হিরা জহরতে সাজানো সাত রানী।

অনেকেই জানতে চাচ্ছেন, কে এই সুদর্শন মহারাজ? তিনি কি বাংলাদেশি নাকি বিদেশি?


পর্দার বাইরে মহারাজার নাম অমিত সিনহা। জন্ম-বেড়ে উঠা কুমিল্লা জেলায়। মাধ্যমিক পর্যন্ত লেখাপড়া করেছেন কুমিল্লা জিলা স্কুলে। সেখান থেকে কৃতিত্বের সঙ্গে পাশ করে ভর্তি হন নটরডেম কলেজে।

বিজ্ঞান বিভাগ থেকে উত্তীর্ণ হয়ে অমিত সিনহা ভর্তি হন সিলেট মেডিকেল কলেজে, এমবিবিএস ৩৬তম ব্যাচে। ২০০৯ সালে এমবিবিএস পাশ করে সম্পন্ন করেন এমপিএইচ ডিগ্রিও। এরপর অ্যাডহক বেসিসে ডাক্তার হিসেবে কর্মজীবন শুরু করেন। সেখানে থেকে যাননি মহারাজা ওরফে অমিত সিনহা। ২০১০ সালে ৩৩ তম বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস (বিসিএস) পরীক্ষায় স্বাস্থ্য ক্যাডার হিসেবে উত্তীর্ণ হন। কিন্তু কোথাও চাকরী করেননি।

অমিত সিনহা বলেন, ২০০৫ সাল থেকে মিডিয়াতে টুকটাক কাজ করি। আমি ছিলাম মূলত র‌্যাম্প মডেল। বিভিন্ন র‌্যাম্প মডেলিংয়ে স্টপার হিসেবে কাজ করেছি। ২০০৫ সাল থেকে ২০১০ সাল পর্যন্ত কাজ করেছি। এরপর আর কোনো কাজ করিনি। ২০১৪ সালে খিজির হায়াত খানের একটি ছবিতে আমি কাজ শুরু করি। ওই ছবিটি ৩০ শতাংশ কাজের পর থেমে যায়। ওটাই ছিল মিডিয়াতে কামব্যাকের প্ল্যাটফর্ম।

 


তিনি বলেন, চ্যানেল আই তে সাত ভাই চম্পার মতো এত বড় একটা সিরিয়াল হতে যাচ্ছে আমি জানতাম না। আমার বেস্ট ফ্রেন্ড অভিনেত্রী নওশাবা আমাকে জানায়। এরপর আমি অডিশন দিতে আসি। তখন এই সিরিয়ালের বড় বড় চরিত্রগুলো সিলেক্ট হয়ে ছিল। আমি কোনো লিস্টেই ছিলাম না। এই সিরিয়ালের পরিচালক রিপন নাগ আমাকে দেখে পছন্দ করলেন। সাত ভাই চম্পার জন্য আমি অডিশন দেই ২০১৬ সালের শেষের দিকে। চারবার অডিশন নিলেন। আমি টিকে গেলাম।

 


ছবি: জাকির সবুজ;সৌজন্যে চ্যানেল আই অনলাইন  


অমিত বলেন, মহারাজ চরিত্রের জন্য আমাকে কিছু প্রস্তুতিও নিতে হয়েছে। ঘোড়া চালানো, তলোয়ার চালানো সবকিছু শিখতে হয়েছে। আগেই আমি আট মাস ধরে মার্শালআর্ট শিখেছিলাম। ওটা এখানে কাজে লেগেছে। তিনি বলেন, বিদেশি সিরিয়ালের আগ্রাসন থেকে আমাদের দেশের দর্শকদের ফিরিয়ে আনতে চাই। ‘সাত ভাই চম্পা’ সিরিজটি দর্শকদের ফিরিয়ে আনতে সহায়ক হবে।

তিনি বলেন, আমরা সম্পূর্ণ দেশের শিল্পী, কলাকুশলীরা এই সিরিজে কাজ করেছি। আমরা আমাদের সবোর্চ্চ মেধার ব্যবহার করেছি। ‘সাত ভাই চম্পা’ মেগা সিরিজটি দর্শকদের ভালো লাগবে এটা আমার দৃঢ় বিশ্বাস। আর এই সিরিজটি ছাড়া আমার মূল উদ্দেশ্য চলচ্চিত্রে কাজ করা। আমি নিজেকে পারফেক্ট মনে করি। মন থেকেই আমি চাই, চলচ্চিত্রে প্রতিষ্ঠা হতে।

প্রসঙ্গত, শুক্রবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) চ্যানেল আইয়ের পর্দায় বিশেষ পর্ব প্রচারের মাধ্যমে শুরু হয়েছে মেগা টিভি সিরিজ ‘সাত ভাই চম্পা’। রাত ৮টায় ৫২ মিনিটের বিশেষ পর্ব প্রচারিত হয়েছে চ্যানেল আইতে। একই চ্যানেলে ৩০০ পর্বের ধারাবাহিকটি নিয়মিত প্রচার হবে ২৮ ফেব্রুয়ারি থেকে প্রতি সপ্তাহে বুধবার, বৃহস্পতিবার ও শুক্রবার রাত আটটায়।


বিনোদন এর জনপ্রিয়